ঢাকা, শুক্রবার, ১৩ মাঘ ১৪২৯, ২৭ জানুয়ারি ২০২৩, ০৪ রজব ১৪৪৪

জাতীয়

শেরপুরে যুবককে হাত-পা বেঁধে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২৩২৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৭, ২০২২
শেরপুরে যুবককে হাত-পা বেঁধে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন

শেরপুর: শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে আবু রায়হান গাজী (৪০) নামে এক যুবককে মধ্যযুগীয় কায়দায় হাত-পা বেঁধে নির্যাতনের অভিযোগে আবুল কালাম আজাদ ও হুমায়ুন কবির নামে দুই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

রোববার (২৭ নভেম্বর) সকালে উপজেলার ধানশাইল ইউনিয়নের মাদারপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

 

নির্যাতিত আবু রায়হান ওই গ্রামের মৃত আব্দুল ওয়াহাবের ছেলে। অভিযুক্তরা তারই প্রতিবেশী বলে জানা গেছে।

পুলিশ ও স্থানীয়সূত্রে জানা গেছে, আবু রায়হানের সঙ্গে ওই এলাকার প্রভাবশালী আবুল কালাম আজাদ, হুমাযুন কবির ও ছামিউল গংদের দীর্ঘদিন ধরে জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে রোববার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে আজাদ-হুমায়ুনসহ তার লোকজন আবু রায়হানকে হাত-পা বেঁধে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন চালায়। এসময় আবু রায়হানকে উদ্ধার করতে এসে মারপিটের শিকার হন তার স্ত্রী রানী আক্তারও।

পরে ৯৯৯ নম্বরে ফোন দেন স্থানীয়রা। ফোন পেয়ে ঝিনাইগাতী থানার এসআই ফরিদ উদ্দিন, এএসআই জিল্লুর রহমান সঙ্গীয় পুলিশ ফোর্সসহ ঘটনাস্থলে পৌঁছে আবু রায়হানকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে দেয়।

এসময় ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে আবুল কালাম আজাদ ও হুমায়ুন কবিরকে আটক করে থানা পুলিশ।  

এ ব্যাপারে নির্যাতিত আবু রায়হানের বড় ভাই জালাল উদ্দিন বাদী হয়ে ৯ জনকে আসামি করে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।
 
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ঝিনাইগাতী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুল আলম ভুইয়া বলেন, এ ঘটনায় আবুল কালাম আজাদ ও হুমায়ুনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্য আসামিরা পলাতক থাকায় তাদের গ্রেপ্তারে পুলিশি অভিযান চলছে।  

বাংলাদেশ সময়: ২২৫৭ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৭, ২০২২
জেএটি/এনএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa