ঢাকা, বুধবার, ৪ বৈশাখ ১৪৩১, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ০৭ শাওয়াল ১৪৪৫

কৃষি

নেত্রকোণায় মিষ্টি কুমড়ার বাম্পার ফলন, কৃষকের মুখে হাসি 

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০৩৮ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২৪
নেত্রকোণায় মিষ্টি কুমড়ার বাম্পার ফলন, কৃষকের মুখে হাসি 

নেত্রকোনা: নেত্রকোনায় মিষ্টি কুমড়ার বাম্পার ফলন হয়েছে। হাওরের অনাবাদি জমি আবাদ করে কৃষকের মুখে ফুটেছে হাসি।

হাওরের বিস্তীর্ণ ভূমি যুগ যুগ ধরে বর্ষাকালে পানির নিচে ডুবে থাকতো আর পানি শুকিয়ে গেলে অনাবাদি পড়ে থাকতো সেই হাওরের মাঠে মাঠে এখন বড় বড় মিষ্টি কুমড়া। লাভজনক হওয়ায় আগ্রহ বাড়ছে অন্যান্য কৃষকদের।  

জানা গেছে, হাওর উপজেলা মদন, খালিয়াজুরী ও কলমাকান্দায় অনেক পতিত জমি রয়েছে। প্রশাসনের নির্দেশে কৃষি অফিসের সহযোগিতায় এই জমিগুলো আবাদের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। কৃষি অফিস জানায় এ বছর হাওর এলাকায় ৭১৯ হেক্টর পতিত জমিতে লালিমা, ওয়ানাডার বল, ব্ল্যাক সুইটি, সন্ধানী, শিলা, সুইট স্পট জাতের মিষ্টি কুমড়া চাষ করা হয়েছে। ফলন ভালো হওয়ায় কৃষকেরাও খুশি।

প্রায় ৩০-৪০ বছর আগে এসব জমিতে সরিষা, তিল ও মাষকলাই চাষ হতো। দীর্ঘদিন পতিত থাকার পর গত বছর থেকে মিষ্টি কুমড়া চাষ হচ্ছে। ফলন ভালো হলেও এ বছর প্রচণ্ড শীত থাকায় কিছুটা কম হয়েছে। বাজার মূল্য ভালো থাকলে লাভবান হওয়ার আশা করছেন কৃষকেরা।  

স্থানীয় কৃষি বিভাগ এবং উপজেলা প্রশাসনের সহযোগিতা ও পরামর্শে মিষ্টি কুমড়া চাষে লাভবান হওয়ায় আগ্রহী হয়ে উঠছে অন্যান্য কৃষকেরাও।

মদন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. শাহ আলম মিয়া বলেন, প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী প্রশাসনের সার্বিক  সহযোগিতায় হাওরের অনাবাদি জমি আবাদ করে কৃষকেরা আর্থিকভাবে লাভবান হচ্ছে। আগামী বছর হাওর এলাকার কোনো পতিত জমি অনাবাদি থাকবে না সেই লক্ষ্যে কাজ করছি আমরা।  

দেশের চাহিদা পূরণে সবজি চাষে কৃষকদের উদ্বুদ্ধকরণসহ বিভিন্নভাবে সহযোগিতা করবে সরকার এবং সবজি সংরক্ষণের জন্য হাওরে হিমাগার স্থাপন করবে সরকার এমনটিই প্রত্যাশা কৃষকদের।

বাংলাদেশ সময়: ১০৩৭ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২৪
এসএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
welcome-ad