ঢাকা, রবিবার, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৪ শাবান ১৪৪৫

শিল্প-সাহিত্য

‘এক্সিম ব্যাংক-অন্যদিন হুমায়ূন আহমেদ সাহিত্য পুরস্কার’ পাচ্ছেন ইমদাদুল হক মিলন ও মাহবুব ময়ূখ রিশাদ

শিল্প-সাহিত্য ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৪৩ ঘণ্টা, নভেম্বর ২, ২০২৩
‘এক্সিম ব্যাংক-অন্যদিন হুমায়ূন আহমেদ সাহিত্য পুরস্কার’ পাচ্ছেন ইমদাদুল হক মিলন ও মাহবুব ময়ূখ রিশাদ ইমদাদুল হক মিলন ও মাহবুব ময়ূখ রিশাদ

এক্সিম ব্যাংক-অন্যদিন হুমায়ূন আহমেদ সাহিত্য পুরস্কার ২০২৩ পাচ্ছেন কথাসাহিত্যিক ইমদাদুল হক মিলন ও মাহবুব ময়ূখ রিশাদ।

বৃহস্পতিবার (০২ নভেম্বর) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে পুরস্কারের জন্য তাঁদের নাম ঘোষণা করা হয়েছে।

কথাসাহিত্যে সামগ্রিক অবদানের জন্য ইমদাদুল হক মিলনকে এ পুরস্কার দেওয়া হচ্ছে। আর ‘রাইরিন্তার শেষ উপহার’ গল্পগ্রন্থের জন্য নবীন সাহিত্যিক শ্রেণিতে পুরস্কার পাচ্ছেন মাহবুব ময়ূখ রিশাদ।

প্রখ্যাত কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের মৃত্যুর পর ২০১৫ সালে ‘এক্সিম ব্যাংক-অন্যদিন হুমায়ূন আহমেদ সাহিত্য পুরস্কার’ দেওয়া শুরু হয়। দেশের প্রবীণ ও নবীন এই দুই শ্রেণির কথাসাহিত্যিকদের অনুপ্রাণিত করার লক্ষ্যে এ পুরস্কার দেওয়া হয়। এর পর থেকে প্রতিবছর দুজন করে কথাসাহিত্যিককে দেওয়া হচ্ছে এ পুরস্কার।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, ইমদাদুল হক মিলন ও মাহবুব ময়ূখ রিশাদ পুরস্কার হিসেবে পাবেন যথাক্রমে পাঁচ লাখ ও এক লাখ টাকা। এ ছাড়া তাঁদের ক্রেস্ট, উত্তরীয় ও সনদ দেওয়া হবে। ১০ নভেম্বর বিকেলে আনুষ্ঠানিকভাবে তাঁদের হাতে এ পুরস্কার তুলে দেওয়া হবে।

২০১৫ সালে প্রথমবার এই পুরস্কার পেয়েছিলেন শওকত আলী এবং সাদিয়া মাহ্জাবীন ইমাম। ২০১৬ সালে পুরস্কৃত হয়েছিলেন হাসান আজিজুল হক এবং স্বকৃত নোমান।

২০১৭ সালে এ পুরস্কার তুলে দেওয়া হয় জ্যোতিপ্রকাশ দত্ত এবং মোজাফ্ফর হোসেনের হাতে। ২০১৮ সালে পুরস্কৃত হয়েছিলেন রিজিয়া রহমান এবং ফাতিমা রুমি।

২০১৯ সালে পুরস্কার পান রাবেয়া খাতুন ও সাদাত হোসাইন। ২০২০ সালে পুরস্কৃত হন হাসনাত আবদুল হাই ও নাহিদা নাহিদ। ২০২১ সালে পুরস্কার পান সেলিনা হোসেন ও ফাতেমা আবেদীন।

সবশেষ ২০২২ সালে পুরস্কৃত হয়েছিলেন আনোয়ারা সৈয়দ হক ও মৌরি মরিয়ম।

বাংলাদেশ সময়: ২১৩৮ ঘণ্টা, নভেম্বর ০২, ২০২৩
এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।