ঢাকা, শনিবার, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ২৮ রবিউস সানি ১৪৪৩

শিল্প-সাহিত্য

১২ জন পেলেন চর্যাপদ সাহিত্য একাডেমি দোনাগাজী পদক 

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪২৮ ঘণ্টা, মে ২৮, ২০২১
১২ জন পেলেন চর্যাপদ সাহিত্য একাডেমি দোনাগাজী পদক 

চাঁদপুর: স্বাস্থ্যবিধি মেনে চর্যাপদ সাহিত্য একাডেমি দোনাগাজী পদক ২০২০ এবং ২০২১ দেওয়া হয়েছে।

শুক্রবার (২৮ মে) সকাল সাড়ে ১০টায় চাঁদপুর শহরের নিউ ট্রাক রোডের অনলাইন নিউজ পোর্টাল ফোকাস মোহানা কার্যালয়ে এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এ পদক তুলে দেওয়া হয়।

 

একাডেমির সভাপতি নূরুন্নাহার মুন্নির সভাপতিত্বে ও উদযাপন পরিষদের প্রধান সমন্বয়কারী জয়ন্তী ভৌমিকের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি গোলাম কিবরিয়া জীবন।  

বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন লায়ন মাহমুদ হাসান খান এবং স্বাগত বক্তব্য দেন চর্যাপদ সাহিত্য একাডেমির মহাপরিচালক রফিকুজ্জামান রণি।  

শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন চাঁদপুর লেখক পরিষদের সভাপতি জাহাঙ্গীর হোসেন, একাডেমির পরিচালক দুখাই মুহাম্মাদ, জুরিবোর্ডের প্রধান সমন্বয়কারী শিউলী মজুদার, সহযোগী পরিচালক ফেরারি প্রিন্স, লাইব্রেরি পরিচালক আইরিন সুলতানা লিমা, বিজ্ঞান ও আইসিটি পরিচালক রাসেল ইব্রাহীম প্রমুখ।  

বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের কারণে গত বছর এ আয়োজন বন্ধ থাকায় এবার দুই বছরের পদক একসঙ্গে দেওয়া করা হয়। বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে ১২ জন পেয়েছেন এ পদক। সালে কবিতায় মোহাম্মদ নূরুল হক, কথাসাহিত্যে নিলুফা আকতার, প্রবন্ধে ফারুক সুমন, অনুবাদে মামুন রশীদ, ফিচার ও ভ্রমণসাহিত্যে আবু আফজাল সালেহ, লিটলম্যাগ সম্পাদনায় কবি প্রত্যয় হামিদ পেয়েছেন চর্যাপদ সাহিত্য একাডেমি দোনাগাজী পদক ২০২১ এবং কবিতায় আজিজ কাজল, প্রবন্ধে জোবায়ের মিলন, নাটকে প্রণব কুমার রায়, ফিচার ও ভ্রমণসাহিত্যে রিফাত কান্তি সেন, সংগঠনে নীহার রঞ্জন হালদার এবং বাচিকশিল্পে দীপান্বিতা দাস পেয়েছেন চর্যাপদ সাহিত্য একাডেমি দোনাগাজী পদক ২০২০।  

এছাড়া করোনাকালে সাহসী ভূমিকা পালন করায় এবং সাধারণ মানুষের সেবায় নিরলসভাবে কাজ করে যাওয়ায় হাইমচর লেখক ফোরামের প্রতিষ্ঠাতা ইমরান শাকিরকে দেওয়া হয় বিশেষ সম্মাননা। এসময় উপস্থিত ছিলেন অধ্যাপক দুলাল চন্দ্র দাস, আল-আমিন সানি, আবদুর রাকিব।

চর্যাপদ একাডেমির প্রতিষ্ঠাতা রফিকুজ্জামান রণি বলেন, করোনার ভয়াবহতার কারণে এবং চাঁদপুর রেড জোনে পরিণত হওয়ায় বড় ধরনের আয়োজন করতে পারিনি। আমরা সাধারণত চাইনিজ রেস্টুরেন্টগুলোতে অনেক ঘটা করে এ ধরনের আয়োজন করে থাকি। কিন্তু করোনা রোধে সরকারি বিধি-নিষেধ থাকায় সীমিত পরিসরে আয়োজন করতে বাধ্য হয়েছি। দূরদূরান্তের যে লেখকরা পদক নিতে আসতে পারেননি, আমাদের একাডেমির নিজস্ব খরচে তাদের ঠিকানায় পদক পৌঁছে দেওয়া হবে। পরিস্থিতি বিবেচনা করে, অনুষ্ঠানে স্বশরীরে যোগদানের ব্যাপারে আমরা তাদের খুব একটা উৎসাহিত করিনি। মূলত স্বাস্থ্যবিধির কথা চিন্তা করে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছি।  

গত ২৩ মে রোববার সন্ধ্যায় জুরিবোর্ডের প্রধান সমন্বয়কারী কবি শিউলী মজুমদার ও উদযাপন পরিষদের প্রধান সমন্বয়কারী জয়ন্তী ভৌমিকের যৌথ বিবৃতিতে এ পদক ঘোষণা করা হয়।  

মধ্যযুগের কিংবদন্তি পুঁথিসাহিত্যিক, চাঁদপুরের কীর্তমান কবি দোনাগাজীর সম্মানে ২০১৯ সালে প্রথমবারের মতো পদক প্রবর্তন করে চর্যাপদ একাডেমি। এরপর প্রতি বছর সারাদেশ থেকে শিল্প-সাাহিত্যের শুদ্ধতম ব্যক্তিদের খুঁজে বের করে এনে পদক দেওয়া হয়।  

এর আগে কথাসাহিত্যে মনি হায়দার, কবিতায় অনু ইসলাম, গবেষণা সাহিত্যে এ এসএম ইউনুছ, সার্বিক সাহিত্যে মোস্তফা হায়দার, লিটলম্যাগ সম্পাদনায় সুমন কুমার দত্ত, সংগীতে মোহাম্মদ ইউসুফ ও বাচিকশিল্পে জেরিন সিঁথিকে প্রথম এ পদক দেওয়া হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৪২৩ ঘণ্টা, মে ২৮, ২০২১
এসআই
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa