ঢাকা, শুক্রবার, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২ শাবান ১৪৪৫

এভিয়াট্যুর

সিলেটে ফ্লাইট পরিচালনা শুরু করলো এয়ার অ্যাস্ট্রা

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২৩২ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২৩
সিলেটে ফ্লাইট পরিচালনা শুরু করলো এয়ার অ্যাস্ট্রা

সিলেট: ঢাকা-সিলেট রুটে যাত্রা শুরু করলো দেশের নতুন বেসরকারি এয়ারলাইন্স এয়ার অ্যাস্ট্রা।

বৃহস্পতিবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের মাধ্যমে ঢাকা-সিলেট-ঢাকা রুটে ফ্লাইট পরিচালনা শুরু করলো কোম্পানিটি।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সিলেট বিভাগীয় কমিশনার (অতিরিক্ত সচিব) ড. মুহাম্মদ মোশাররফ হোসেন।

আরও উপস্থিত ছিলেন সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের পরিচালক হাফিজ আহমদ, গ্র্যান্ড সিলেট হোটেল ও রিসোর্টের নির্বাহী পরিচালক শুব্রত ব্যানার্জি, এয়ার অ্যাস্ট্রার প্রধান নির্বাহী (সিইও) ইমরান আসিফসহ এয়ারলাইন্সটির অন্যান্য কর্মকর্তারা।

সংশ্লিষ্টরা জানান, প্রতিদিন ২টি ফ্লাইট পরিচালনা করবে এয়ারলাইন্সটি। ঢাকা ও সিলেট থেকে ওয়ান ওয়ে সর্বনিন্ম ভাড়া ট্যাক্সসহ নির্ধারণ করা হয়েছে ৩ হাজার ৪৯৫ টাকা।

এয়ার অ্যাস্ট্রার সিইও ইমরান আসিফ বলেন, মাত্র তিন মাসের মধ্যে এয়ার অ্যাস্ট্রার বহরে তৃতীয় এয়ারক্রাফট এটিআর ৭২-৬০০ যুক্ত হওয়ায় আমরা আমাদের নতুন গন্তব্যে ফ্লাইট শুরু করতে পারলাম। সিলেটে প্রতিদিন দুটি ফ্লাইট চালু করার সাথে সাথে এয়ার অ্যাস্ট্রা তার পরিচালনা প্রসারিত করার মধ্য দিয়ে যাত্রীদের সুবিধাজনক এবং আরামদায়ক ভ্রমণের বিকল্প দিচ্ছে। যাত্রীরাও এয়ার অ্যাস্ট্রায় ভ্রমণ করার মধ্য দিয়ে আমাদের পরিষেবার প্রশংসা করবেন।

চট্টগ্রাম এবং কক্সবাজারের পর বাংলাদেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের গন্তব্য সিলেট এয়ার অ্যাস্ট্রার জন্য গুরুত্বপূর্ণ গন্তব্য উল্লেখ করে তিনি বলেন, গত বছরের ২৪ নভেম্বর চট্টগ্রাম এবং কক্সবাজারে বাণিজ্যিক ফ্লাইট পরিচালনা শুরু করার মাত্র তিন মাসের মধ্যে নতুন এই গন্তব্যে ফ্লাইট পরিচালনা শুরু করলো এয়ার অ্যাস্ট্রা। যাত্রীদের সুবিধার কথা মাথায় রেখে ফ্লাইটগুলোর সময় নির্ধারণ করা হয়েছে। ঢাকা থেকে যথাক্রমে দুপুর ২টা ১০ এবং রাত ৮টায় এবং সিলেট থেকে যথাক্রমে দুপুর ৩টা এবং রাত ৮টা ৫০ মিনিটে ফ্লাইট পরিচালনা করবে এয়ার অ্যাস্ট্রা।

এয়ার অ্যাস্ট্রার বহরে বর্তমানে তিনটি এটিআর ৭২-৬০০ এয়ারক্রাফট রয়েছে, যা ফ্রান্সে নির্মিত সর্বাধুনিক প্রযুক্তির টার্বোপ্রপ এয়ারক্রাফট এবং ৭০ জন যাত্রী বহন করতে সক্ষম। এয়ার অ্যাস্ট্রা যাত্রীদের নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে ফ্লাইট পরিচালনার এক বছরের মধ্যে বাংলাদেশের প্রথম বেসরকারি এয়ারলাইন্স হিসেবে ইন্টারন্যাশনাল এয়ার ট্রান্সপোর্ট অ্যাসোসিয়েশন (IATA) কতৃক প্রণোদিত আইএটিএ অপারেশনাল সেফটি অডিট (IOSA) সম্পন্ন করার প্রচেষ্টায় নিয়োজিত আছে।

বাংলাদেশ সময়: ২২৩১ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২৩
এনইউ/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।