ঢাকা, বুধবার, ১১ বৈশাখ ১৪৩১, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১৪ শাওয়াল ১৪৪৫

এভিয়াট্যুর

ককপিটে ভুল সিগন্যাল, অবশেষ নিরাপদ অবতরণ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮২৭ ঘণ্টা, মার্চ ২৯, ২০১৫
ককপিটে ভুল সিগন্যাল, অবশেষ নিরাপদ অবতরণ ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা: বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের (বিজি-০৮৫ ফ্লাইট) সিঙ্গাপুর-ঢাকা রুটের ফ্লাইটটি শনিবার (২৮ মার্চ ২০১৫) ঢাকায় নিরাপদে অবতরণ করেছে।  

রোববার (২৯ মার্চ) বিমানের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

 

বিষয়টি খতিয়ে দেখতে এরই মধ্যে বিমানের পক্ষ থেকে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। বিমানের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এয়ারবাস ৩১০ উড়োজাহাজটি সিঙ্গাপুরের স্থানীয় সময় বিকেল ৪টায় ঢাকার উদ্দেশ্যে বিমানবন্দর ত্যাগ করে।   উড্ডয়নের পর উড়োজাহাজের ককপিট মনিটর-এ ‘ফ্লাইট ওয়ার্নিং ইনডিকেশন’ দেখা গেলে উড্ডয়নের  ঘণ্টাখানেক পর উড়োজাহাজটি পুনরায় বিমানবন্দরে অবতরণ করে।

ত্রুটি সারানোর পর জাহাজটি পুনরায় স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৬টা ৩০ মিনিটে ঢাকা অভিমুখে যাত্রা করে। দীর্ঘ ৩ ঘণ্টা নিরাপদে উড্ডয়নের পর ঢাকায় অবতরণের ৩০ মিনিট আগে ককপিট মনিটরে ২ নম্বর ইঞ্জিনে ফায়ার ওয়ার্নিং-এর সংকেত পাওয়া যায়। এ অবস্থায় বৈমানিক চেক-লিস্ট অনুযায়ী তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা গ্রহণ করে ঢাকাস্থ কন্ট্রোল টাওয়ারকে ‘জরুরি অবতরণের’ বার্তা পাঠান। যথাসময়ে বৈমানিক উড়োজাহাজটিকে সম্পূর্ণ নিরাপদে অবতরণ ঢাকায় করান। অবতরণকালে ফ্লাইটের যাত্রী, ক্রু এবং উড়োজাহাজের কোনো ধরনের ক্ষতি হয়নি বা কেউ আঘাতপ্রাপ্ত হননি।

ঢাকা অবতরণের পর উড়োজাহাজটি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে নিশ্চিত হওয়া গেছে যে, ইঞ্জিনে কোনো ধরনের আগুনের সৃষ্টি হয়নি। ফায়ার ওয়ার্নিং সিস্টেমের ‘ভুল সংকেত’ পাঠানোর কারণে এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছিল।   এখানে উল্লেখ্য যে, সিঙ্গাপুরে পরিলক্ষিত ক্রুটি এবং ঢাকা অবতরণের আগ-মুহুর্তে  প্রাপ্ত ফায়ার ওয়ার্নিং সিগন্যাল-দুটি সম্পূর্ণ আলাদা বিষয় ছিল।

বাংলাদেশ সময়: ১৮১৮ ঘণ্টা, মার্চ ২৯, ২০১৫

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
welcome-ad