ঢাকা, শনিবার, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ২৮ রবিউস সানি ১৪৪৩

আওয়ামী লীগ

বাংলাদেশের গ্রামীণ অর্থনীতির উন্নয়ন এখন বিশ্বের কাছে অনুকরণীয়

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬২৪ ঘণ্টা, এপ্রিল ৫, ২০১৬
বাংলাদেশের গ্রামীণ অর্থনীতির উন্নয়ন এখন বিশ্বের কাছে অনুকরণীয় ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ভোলা: বর্তমানে দেশের জিডিপি প্রবৃদ্ধির হার সাত শতাংশ। এ সরকারের দক্ষ নেতৃত্বে গ্রামীণ অর্থনীতির উন্নয়ন শক্তিশালী হয়েছে, যা এখন আন্তজার্তিক বিশ্বে অনুকরণীয়।

উন্নয়নের মাধ্যমে বেশ কিছু গ্রাম রুপান্তিত হচ্ছে শহরে। এতে বর্হিবিশ্বে আমাদের দেশ একটি মর্যাদাশালী দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার (৫ এপ্রিল) দুপুরে শহরের গজনবী স্টেডিয়ামে মাসব্যাপী কৃষি, শিল্প ও বাণিজ্য মেলার উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ এ কথা বলেন।

তিনি এসময় বলেন, গবেষণায়  দেখা গেছে, দেশে নারী ও শিশু মৃত্যুর হার কমে এসেছে। এক্ষেত্রে পাকিস্তান ও ভারতের চেয়ে এগিয়ে রয়েছে বাংলাদেশ।

২০১৯ সালে শেখ হাসিনার অধিনেই জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে উল্লেখ করে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ আরও বলেন, বিএনপি নেত্রী আগের বার (৫ জানুয়ারির নির্বাচন) বাসের টিকেট মিস করেছেন। এবারের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের মতো জাতীয় নির্বাচনেও অংশ নেবেন তিনি। কারণ তিনি জ্বালাও-পোড়াও আন্দোলন করে নিজেই আত্মসমর্পণ করে ঘরে ফিরে গেছেন।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, ভোলায় প্রচুর গ্যাস মজুদ রয়েছে, যা দিয়ে তৈরি হবে শিল্প কারখানা।
আন্তর্জাতিক মানের বিদেশি কোম্পানিগুলো এখানে বিনিয়োগ করবে। এখানে ২২৫ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ কেন্দ্র চালু হয়েছে। শিগগিরই প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদনের মাধ্যমে আরও ২২৫ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ কেন্দ্রের কাজ শুরু হবে।

দেশের সঙ্গে যোগাযোগ ব্যবস্থা আরও সহজ করতে অচিরেই ভোলা-বরিশাল সড়ক পথ চালু হবে। তখন ভোলা থেকে সড়ক পথে সরাসরি রাজধানীতে যাতায়াত করা যাবে, যোগ করেন মন্ত্রী।

ভোলা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের আয়োজনে অনুষ্ঠিত মাসব্যাপী মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ব্যবসায়ী এই সংগঠনের সভাপতি আবদুল মমিন টুলু।

এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন-ভোলা-তিন আসনের সংসদ সদস্য নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন।
 
এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন- ভোলার জেলা প্রশাসক মো. সেলিম উদ্দিন, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান, পৌর মেয়র মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান মনির, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোশারেফ হোসেন, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ডেপুটি কমান্ডার শফিকুল ইসলাম, আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জহিরুল ইসলাম নকিব, সাংগঠনিক সম্পাদক মাঈনুল ইসলাম বিপ্লব, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম গোলদার, সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো. ইউনুছ প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে উপস্থাপনার দায়িত্বে ছিলেন তালহা তালুকদার বাঁধন, লেডিস ক্লাব সম্পাদিকা খাদিজা আখতার স্বপ্না ও রেহানা ফেরদৌস।

বাংলাদেশ সময়: ১৬২২ ঘণ্টা, এপ্রিল ০৫, ২০১৬
আরবি/এসআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa