ঢাকা, শুক্রবার, ৬ কার্তিক ১৪২৮, ২২ অক্টোবর ২০২১, ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

বাজেট

ভর্তুকি-প্রণোদনা ২০ হাজার কোটি টাকা বেশি রাখার প্রস্তাব

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৪১ ঘণ্টা, জুন ১১, ২০২০
ভর্তুকি-প্রণোদনা ২০ হাজার কোটি টাকা বেশি রাখার প্রস্তাব

ঢাকা: ২০২০-২১ অর্থবছরে ভর্তুকি, প্রণোদনা ও চলতি স্থানান্তর খাতে ১ লাখ ৪২ হাজার ২৫১ কোটি টাকার বরাদ্দ রাখার প্রস্তাব রাখা হয়েছে বাজেটে।

জাতীয় সংসদে বৃহস্পতিবার (১১ জুন) অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল ২০২০-২১ অর্থবছরের বাজেট উত্থাপন করে এ প্রস্তাব রাখেন।

বাজেটের সংক্ষিপ্ত বিবরণীতে বলা হয়েছে, ২০২০-২১ অর্থবছরে ভর্তুকি, প্রণোদনা ও চলতি স্থানান্তর খাতে ১ লাখ ৪২ হাজার ২৫১ কোটি টাকার বরাদ্দ রাখার প্রস্তাব করা হয়েছে।

আগের অর্থ বছরে (২০১৯-২০) ‍যা ছিল ১ লাখ ২২ হাজার ৮৩ কোটি টাকা। অর্থাৎ আগের অর্থবছরের চেয়ে এবার এ খাতে ২০ হাজার কোটি টাকা বেশি রাখার প্রস্তাব করা হয়েছে।

গতবার এ খাতে প্রস্তাব করা হয়েছিল ১ লাখ ২৪ হাজার ২৫১ কোটি টাকা। পরবর্তীতে সংশোধিত বাজেটে ২ হাজার ১৬৮ কোটি টাকা কমানো হয়েছিল।

এবার বিভিন্ন খাতে ভর্তুকিতে প্রস্তাব করা হয়েছে ৩৮ হাজার ৬৪৮ কোটি টাকা, প্রণোদনায় ১০ হাজার ৩৮৫ কোটি টাকা এবং সাহায্য মঞ্জুরিতে ৬২ হাজার ৬৯৫ কোটি টাকা রাখার প্রস্তাব করা হয়েছে। এছাড়া অবসর ভাতা ও আনুতোষিকে ২৭ হাজার ৬৩৭ কোটি টাকা এবং অন্য খাতে ২ হাজার ৮৮৬ কোটি টাকার বরাদ্দ রাখার প্রস্তাব রাখা হয়েছে।

ভর্তুকি ও প্রণোদনা দেওয়া হবে কৃষি, স্বাস্থ্য, অর্থ-বাণিজ্য, পরিবহনসহ বিভিন্ন খাতে।

বিকেল সোয়া ৩টায় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপস্থিতিতে বাজেট বক্তব্য পেশ করেন অর্থমন্ত্রী।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৩৯ ঘণ্টা, জুন ১১, ২০২০
ইইউডি/আরবি/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa