ঢাকা, শনিবার, ১২ আষাঢ় ১৪২৯, ২৫ জুন ২০২২, ২৫ জিলকদ ১৪৪৩

জলবায়ু ও পরিবেশ

নদী রক্ষায় সোচ্চার হওয়ার আহ্বান

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯১১ ঘণ্টা, অক্টোবর ৩, ২০১৫
নদী রক্ষায় সোচ্চার হওয়ার আহ্বান ছবি : বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ঢাকা: দেশের বিপন্ন নদ-নদী রক্ষায় রাষ্ট্রকে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণের আহ্বান জানিয়েছেন নদী বিশেষজ্ঞ ও নদীপ্রেমীরা।

বিশ্ব নদী দিবস উপলক্ষে শনিবার (৩ অক্টোবর) ‘নদীর জন্য পদযাত্রা’ কর্মসূচিতে এ আহ্বান জানান তারা।



‘নদী রাখো দূষণমুক্ত’ শীর্ষক শ্লোগানে পদযাত্রা করার আগে রাজধানীর বাহাদুর শাহ পার্কে সমবেত হন পরিবেশবাদী ৪০টি সংগঠনের কর্মী-সংগঠকরা। সেখানে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে নদীপ্রেমীরা দেশের নদ-নদী ও মুক্ত জলাশয়ের বিপন্নদশার কথা তুলে ধরেন।

বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলনের (বাপা) সাধারণ সম্পাদক ডা. আবদুল মতিন নদ-নদীর দখল ও দূষণের জন্য প্রধান রাজনৈতিক দলের নেতা-কর্মীদের দায়ী করে বলেন, ‘যে রাজনৈতিক দল যখন ক্ষমতায় থাকে তাদের নেতাকর্মীরা নদী দখল করে ব্যবসা করেন। নদী রক্ষায় প্রশাসনও আন্তরিক নয়। সর্বোচ্চ আদালতের নির্দেশনা সত্ত্বেও নদী সীমানা পিলার নদীর ভেতরে চলে যায়। ’

নদী রক্ষায় গঠিত টাস্কফোর্স কার্যকর পদক্ষেপ নিতে পারছে না বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

নদী বিশেষজ্ঞ ম ইনামুল হক বলেন, ‘দেশের রাজনৈতিক দলগুলোর নির্বাচনী ইশতেহারে এখনও নদী ও পরিবেশ রক্ষার জোরালো অঙ্গীকার নেই। আমরা আজ ৪০টি সংগঠন নদী রক্ষার কথা বলতে এখানে সমবেত হয়েছি। কিন্তু সবচেয়ে বড় সংগঠন হলো রাষ্ট্র। সবাইকে একাত্ম করে নদী রক্ষায় পদক্ষেপ নিতে হবে রাষ্ট্রকেই। ’

সমাবেশে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- নদীপ্রেমী শরীফ জামিল, রিভারাইন পিপলের সুদীপ্ত শর্মা, নোঙরের সুমন শামস, নদীপক্ষের হাসান ইউসুফ খান, সিএসআরএল’র খুজিস্তা বেগম জোনাকি, বাংলাদেশ নদী বাঁচাও আন্দোলনের হাসনাত কাইউম, মনোয়ার হোসেন রনি, মিহির বিশ্বাস প্রমুখ।

সমাবেশ শেষে বাহাদুর শাহ পার্ক থেকে পদযাত্রা বের করা হয়। এটি সদরঘাটে বুড়িগঙ্গার পাড়ে গিয়ে শেষ হয়।

কর্মসূচিতে অংশ নেয়- বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা), রিভারাইন পিপল, অঙ্গীকার বাংলাদেশ, বাংলাদেশ নদী বাঁচাও আন্দোলন, বংশী নদী সুরক্ষা আন্দোলন, বড়াল রক্ষা আন্দোলন, বারসিক, বায়াসড,বুড়িগঙ্গা বাঁচাও আন্দোলন, বুড়িগঙ্গা ক্যাম্প, ক্লিন,সিএসআরএল, ডাকাতিয়া সুরক্ষা আন্দোলন, ফাউন্ডেশন ফর ডিজাস্টার ফোরাম, গ্রিন ম্যাগাজিন, গ্রিন ভয়েস, হালদা নদীরক্ষা কমিটি, হাওর অঞ্চলবাসী, আইডিএমভিএস (ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়), জঙ্গলবাড়ী, জল পরিবেশ ইনস্টিটিউট,নদীপক্ষ, নাগরিক সংহতি, ন্যাশনাল চর অ্যালায়েন্স, নিরাপদ নৌপথ বাস্তবায়ন আন্দোলন, নোঙর, পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলন (পবা), পিপলস সার্ক ওয়াটার ফোরাম বাংলাদেশ, প্রতিবেশ আন্দোলন, রেল নৌ-যোগাযোগ উন্নয়ন গণকমিটি, রিভার ট্রাভেলার, সেভ আওয়ার সি, সবুজপাতা, তিস্তা নদীরক্ষা সংগ্রাম কমিটি, তরুপল্লব, তুরাগ বাঁচাও আন্দোলন, ওয়াটার কমনস ফোরাম, ওয়াটার কিপারস বাংলাদেশ ও ওয়ার্ক ফর বেটার বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ সময়: ১৯১১ ঘণ্টা, অক্টোবর ০৩, ২০১৫
এডিএ/এইচএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa