ঢাকা, সোমবার, ১৩ আষাঢ় ১৪২৯, ২৭ জুন ২০২২, ২৭ জিলকদ ১৪৪৩

জলবায়ু ও পরিবেশ

লাউয়াছড়ায় ১৩ নাজা কেউটিয়াসহ ২০ সাপ অবমুক্ত

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৪১ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৪, ২০১৫
লাউয়াছড়ায় ১৩ নাজা কেউটিয়াসহ ২০ সাপ অবমুক্ত ছবি : বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

শ্রীমঙ্গল (মৌলভীবাজার): খামারির বাড়ি থেকে উদ্ধার করা ২২টি বিভিন্ন জাতের সাপের মধ্যে ২০টি লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানে অবমুক্ত করা হয়েছে। মারা গেছে দু’টি সাপ।



বুধবার (১৪ অক্টোবর) সাপগুলো অবমুক্ত করা হয়। মঙ্গলবার (১৩ অক্টোবর) হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার বাঘাউড়া গ্রাম থেকে ১৩টি নাজা কেউটিয়াসহ মোট ২২টি সাপ উদ্ধার করা হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বন্যপ্রাণি ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ সিলেট বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মো. সাঈদ আলী, সহকারী বন সংরক্ষক মো. সরওয়ার আলম, বন্যপ্রাণি ও জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণ কর্মকর্তা মীর্জা মেহেদি সারওয়ার প্রমুখ।

বন্যপ্রাণি ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগ সিলেট বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মো. সাঈদ আলী বাংলানিউজকে বলেন, মঙ্গলবার হবিগঞ্জ থানা পুলিশের সহযোগিতায় নবীগঞ্জ উপজেলার বাঘাউড়া গ্রামের মুজাহিদুর রহমানের বাড়িতে অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় সাপের ১৮টি বাক্সে রাখা ২২টি সাপ উদ্ধার করা হয়।

তিনি আরও বলেন, এসব সাপের মধ্যে আছে নাজা কেউটিয়া (কালো গোখরা) ১৩টি, নাজা নাজা (খয়েরি গোখরা) ৫টি, দাঁড়াশ ২টি, নাজা কেউটিয়ার বাচ্চা ১টি এবং শঙ্খিনী ১টি। এর মধ্যে ২টি সাপ মারা যায়। বিকেলে লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানে সাপগুলোকে অবমুক্ত করা হয়েছে।

সাপগুলো উদ্ধার প্রসঙ্গে এ বন কর্মকর্তা বলেন, বাড়ির মালিক মুজাহিদুর রহমান জানিয়েছেন, তারা নাকি সাপের খামার করবেন। কিন্তু এজন্য অনুমোদন নেওয়া হয়নি। অবৈধভাবে বন্যপ্রাণি রাখার দায়ে বন্যপ্রাণি আইনে মামলা করা হবে। মামলা প্রক্রিয়াধীন।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৩৮ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৪, ২০১৫
বিবিবি/এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa