ঢাকা, সোমবার, ২৩ মাঘ ১৪২৯, ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৪ রজব ১৪৪৪

জলবায়ু ও পরিবেশ

জলবায়ু পরিবর্তনের জন্য ঢাকা অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ: মেয়র

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২০২ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৭, ২০২২
জলবায়ু পরিবর্তনের জন্য ঢাকা অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ: মেয়র

ঢাকা: ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম বলেছেন, জলবায়ু পরিবর্তনের জন্য ঢাকা অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ। ঢাকার বাসিন্দা ও আগত অভিবাসীদের রক্ষা করতে হবে।

জলবায়ু অভিযোজনের বিনিয়োগ করতে হবে।

বৃহস্পতিবার (১৭ নভেম্বর) স্থানীয় সময় দুপুরে জাতিসংঘের আয়োজনে মিসরের পর্যটন নগরী শার্ম আল-শেখে চলমান কপ-২৭ সম্মেলনে জলবায়ু বিষয়ক এক  প্যানেল আলোচনায় তিনি এ কথা বলেন।

আতিকুল ইসলাম বলেন, উন্নত দেশ ও দাতা সংস্থার সহযোগিতায় নগরের জন্য জলবায়ু অভিযোজন তহবিল গঠন করতে হবে। 'বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বন্যা, খরা, নদী ভাঙন, লবণাক্ততা প্রভৃতির কারণে বিপুল সংখ্যক ক্ষতিগ্রস্ত মানুষ নিরাপদ জীবনের খোঁজে প্রতিদিন রাজধানী ঢাকায় চলে আসছে। প্রতিদিন গড়ে দুই হাজার মানুষ ঢাকায় আসছে। শহরের মানুষের সংখ্যা বেড়েই চলছে

জলবায়ু তহবিলের কথা উল্লেখ করে মেয়র বলেন, 'মোট জলবায়ু তহবিলের অন্তত ৫০ শতাংশ ঢাকার মতো ঝুঁকিপূর্ণ ও ক্ষতিগ্রস্ত শহরগুলোকে দিতে হবে। জলবায়ু উদ্বাস্তুদের ক্ষতিগ্রস্ত ও ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা থেকে সরিয়ে নিরাপদ স্থানে আবাসনের ব্যবস্থা কর‍তে হবে ও তাদের মর্যাদা দিতে হবে এবং উদ্বাস্তুদের জন্য কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও দক্ষতা বাড়ানোর জন্য সহায়তা দিতে হবে। '

উদ্বাস্তুদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা কথা উল্লেখ করে মেয়র বলেন, 'জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে শহরে চলে আসা উদ্বাস্তুদের জন্য কর্মসংস্থান সৃষ্টি করতে হবে। এজন্য উন্নত দেশ ও দাতা সংস্থার সহযোগিতা প্রয়োজন। সবচেয়ে ঝুকিপূর্ণদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করতে হবে। বিশেষ করে গ্রিন জব তৈরিতে গুরুত্বারোপ করতে হবে। স্থানীয় ও জাতীয় উভয় প্রশাসনকে অন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয়ন ও কর্মসংস্থানকে অগ্রাধিকার দিতে হবে। বাংলাদেশ সরকার ২০৩০ সালের মধ্যে চার মিলিয়নেরও বেশি জলবায়ু-সহনশীল কর্মসংস্থান সৃষ্টির ঘোষণা দিয়েছে। '

আতিকুল ইসলাম বলেন, 'ঢাকা উত্তরের মেয়র, সি৪০ সিটিসের ভাইস-চেয়ার এবং মেয়রস মাইগ্রেশন কাউন্সিলের লিডারশিপ বোর্ডের সদস্য হিসেবে আমি উদ্বাস্তুদের জন্য কাজ চালিয়ে যেতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। খাল এবং জলাশয়গুলো পুনরুদ্ধার করে চলেছি। খেলার মাঠ ও পার্ক নির্মাণ করেছি। বৃক্ষরোপণ করছি। ইউনাইটেড ইন বিল্ডিং ক্লাইমেট রেজিলিয়েন্স বিভাগের অধীনে সি৪০ সিটিস ব্লুমবার্গ ফিলানথ্রপিস্ট অ্যাওয়ার্ডের মাধ্যমে আমাদের প্রচেষ্টা স্বীকৃত হয়েছে। সবুজ স্থান সম্প্রসারণের প্রতি আমাদের দৃষ্টি এবং প্রতিশ্রুতি ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনে একটি সবুজ, আরও অন্তর্ভুক্তিমূলক এবং বসবাসযোগ্য শহর গড়ে তোলা হচ্ছে'।

বাংলাদেশ সময়: ২২০২ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৭, ২০২২
এমএমআই/আরআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa