ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩ বৈশাখ ১৪৩১, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৬ শাওয়াল ১৪৪৫

আদালত

ছয় মাসে নারী-শিশু মামলার নিষ্পত্তি না হলে প্রতিবেদন দিতে হবে

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫০৩ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৭, ২০১৬
ছয় মাসে নারী-শিশু মামলার নিষ্পত্তি না হলে প্রতিবেদন দিতে হবে

আইন অনুসারে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের মামলা ছয় মাসের মধ্যে নিষ্পত্তি করতে না পারলে পরবর্তী ৩০ দিনের মধ্যে ‍তারকারণ জানিয়ে প্রতিবেদন দিতে নির্দেশ দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন।

ঢাকা: আইন অনুসারে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের মামলা ছয় মাসের মধ্যে নিষ্পত্তি করতে না পারলে পরবর্তী ৩০ দিনের মধ্যে ‍তারকারণ জানিয়ে প্রতিবেদন দিতে নির্দেশ দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন।
 
প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নির্দেশে রোববার (২৭ নভেম্বর) এ সংক্রান্ত সার্কুলার জারি করেছেন সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের রেজিস্ট্রার আবু সৈয়দ দিলজার হোসেন।

 
 
নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৩১ (ক) ধারায় বলা হয়েছে, ‘কোনো মামলা এ আইনের ২০ ধারা অনুসারে ১৮০ দিনের মধ্যে নিষ্পত্তি না হলে ট্রাইব্যুনাল তার কারণ লিপিবদ্ধ করে একটি প্রতিবেদন ৩০ দিনের মধ্যে সুপ্রিম কোর্টের কাছে দাখিল করিতে হবে। যার একটি অনুলিপি সরকারের কাছেও দাখিল করতে হবে। প্রতিবেদন পর্যালোচনার পর যথাযথ কর্তৃপক্ষ নির্ধারিত সময়ের মধ্যে মামলা নিষ্পত্তি না হওয়ার জন্য দায়ী ব্যক্তি বা ব্যক্তিবর্গের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন’।
 
সার্কুলারে বলা হয়, ‘সুপ্রিম কোর্টের কাছে গোচরীভূত হয়েছে যে, আইনে নির্ধারিত সময়সীমার মধ্যে মামলা নিষ্পত্তি না হলেও তার কোনো কারণ লিপিবদ্ধ করে সংশ্লিষ্ট ট্রাইব্যুনাল থেকে কোনো প্রতিবেদন সুপ্রিম কোর্টে পাঠানো হচ্ছে না। অধিকন্তু এ বিষয়ে পাবলিক প্রসিকিউটর ও সংশ্লিষ্ট পুলিশ কর্মকর্তারাও এর কারণ লিপিবদ্ধ করে সরকারের কাছে প্রতিবেদন দাখিল করে তার অনুলিপি এ কোর্টে পাঠাচ্ছেন না। বিষয়টি অনাকাংঙ্খিত, অনভিপ্রেত ও আইন বহির্ভূত’।  
 
‘এমতাবস্থায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৩১ (ক) ধারা আবশ্যিকভাবে প্রতিপালন করার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে নির্দেশ প্রদান করা হলো’।

বাংলাদেশ সময়: ২০৫৬ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৭, ২০১৬
ইএস/এএসআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।