ঢাকা, সোমবার, ৯ কার্তিক ১৪২৮, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

আদালত

নদী দখল: ইউপিতে এক প্রার্থীকে ভোট থেকে বিরত রাখার আদেশ 

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০০৩৯ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৮, ২০১৯
নদী দখল: ইউপিতে এক প্রার্থীকে ভোট থেকে বিরত রাখার আদেশ 

ঢাকা: নদী দখলের অভিযোগে কক্সবাজারের মহেশখালী উপজেলার শাপলাপুর ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী অ্যাডভোকেট আবদুল খালেককে নির্বাচন থেকে তিন মাস বিরত রাখতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

বুধবার (২৭ নভেম্বর) খালেকের বিরুদ্ধে নদী দখলের অভিযোগ এনে করা এক রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে বিচারপতি মইনুল ইসলাম ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি খোন্দকার দিলীরুজ্জামানের হাইকোর্ট বেঞ্চ রুলসহ এ আদেশ দেন।

আদালতে রিট আবেদনকারীর পক্ষে আইনজীবী ছিলেন- অ্যাডভোকেট জগলুল হায়দার আফ্রিক।

রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন- ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল সাইফুদ্দিন খালেদ। আবদুল খালেকের পক্ষে ছিলেন- আইনজীব শেখ মো. মোরশেদ।

রিট আবেদনকারী জগলুল হায়দার আফ্রিক বলেন, নদী দখলের কারণে নদী কমিশনসহ তিনটি তালিকায় অ্যাডভোকেট আবদুল খালেকের নাম রয়েছে। স্থানীয় রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে অভিযোগ দেওয়ার পরও নির্বাচনে তার প্রার্থীতা বৈধ করা হয়েছে। এ সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল করা হলেও নির্বাচন কমিশন আগের সিদ্ধান্ত বহাল রাখেন। তা হাইকোর্টের রায়ের পরিপন্থি। পরবর্তীতে এ ইস্যুতে শাপলাপুর ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান ও প্রার্থী নুরুল হক হাইকোর্টে রিট করেন। এ রিটের শুনানি নিয়ে আদালত রুল জারি করে আবদুল খালেককে নির্বাচন থেকে তিন মাসের জন্য বিরত রাখতে নির্দেশ দেন।    

আগামী ১২ ডিসেম্বর শাপলাপুর ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

চলতি বছরের ফেব্রুয়ারির এক রায় অনুসারে কোনো প্রার্থীর বিরুদ্ধে নদী দখলের অভিযোগ থাকলে জাতীয় বা স্থানীয় সব ধরনের নির্বাচনের জন্য তাকে অযোগ্য ঘোষণা করবে নির্বাচন কমিশন। এ ব্যাপারে যথাযথ ব্যবস্থা নিতে বলেছেন হাইকোর্ট।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৩৭  ঘণ্টা, নভেম্বর ২৭, ২০১৯
ইএস/এইচজে 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa