ঢাকা, শনিবার, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০, ০২ মার্চ ২০২৪, ২০ শাবান ১৪৪৫

ক্রিকেট

শান্তর রেকর্ড সেঞ্চুরিতে দিনটা বাংলাদেশের

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, স্পোর্টস | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৫৩ ঘণ্টা, নভেম্বর ৩০, ২০২৩
শান্তর রেকর্ড সেঞ্চুরিতে দিনটা বাংলাদেশের

সিলেট থেকে: নাজমুল হোসেন শান্ত সেঞ্চুরি ছুঁয়েই ছুটলেন ড্রেসিংরুমের দিকে। এর বহু আগে থেকেই তার নামে স্লোগান।

সেসব শুনে নিশ্চয়ই শিহরণ বয়ে গেছে শান্তর শরীরে। রেকর্ডবুকে নাম তুলে ফেলা সেঞ্চুরিটি করার আগে এই দর্শকদের উৎসাহ নিশ্চয়ই কাজ করে অনুপ্রেরণা হিসেবেও।  

অথচ এর আগে কত বন্ধুর পথই না পাড়ি দিতে হয়েছে তাকে। এ নিয়ে জমা ছিল অভিমানও। এখন তিনিই টেস্ট অধিনায়কত্বের অভিষেকে সেঞ্চুরি পাওয়া বাংলাদেশের প্রথম ক্রিকেটার। প্রথম দুদিন কেটেছিল সমতায়। শান্তর সেঞ্চুরির কল্যাণে সিলেট টেস্টের তৃতীয় দিনটি শুধুই বাংলাদেশের।  

সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথমটিতে মুখোমুখি হয়েছে বাংলাদেশ ও নিউজিল্যান্ড। প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের ৩১০ রানের জবাবে নিউজিল্যান্ড করে ৩১৭ রান।  তৃতীয় দিনশেষে দ্বিতীয় ইনিংসে ৩ ‍উইকেট হারিয়ে ২১২ রান করেছে স্বাগতিকরা। লিড নিয়েছে ২০৫ রানের। ১৯৩ বলে ১০৪ রান করে শান্ত ও ৭১ বলে ৪৩ রান নিয়ে মুশফিকুর রহিম বাংলাদেশের হয়ে চতুর্থ দিন শুরু করবেন।   

অথচ তৃতীয় দিনের প্রথম ঘণ্টা বাংলাদেশের জন্য ছিল ভীষণ হতাশার। উইকেটের দেখা মিলছিল না, রানও আটকে রাখতে পারছিলেন না বোলাররা। পরে কাইল জেমিসন ও টিম সাউদির দারুণ ব্যাটিংয়ে লিডও নিয়ে ফেলে কিউইরা।  

তবে লিডটা বড় হতে দেননি মুমিনুল হক। আগের দিন গ্লেন ফিলিপসকে ফিরিয়ে জুটি ভাঙা এই ‘অকেশনাল বোলার’ এদিনও বল হাতে একই কাজ করেন। পানি বিরতির পরের ওভারেই তাকে বোলিংয়ে আনেন অধিনায়ক নাজমুল হোসে শান্ত।  

প্রথম বলেই তিনি জেমিসনকে ফেরান। ৭০ বল খেলে ২৩ রান করা এই ব্যাটার হন এলবিডব্লিউ। রিভিউ নিয়েও বাঁচতে পারেননি তিনি। ভাঙে সাউদির সঙ্গে ৫২ রানের জুটি। ওই ওভারেই শেষ উইকেটটিও নিয়ে নেন মুমিনুল। ৬২ বলে ৩৫ রানের গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেলার পর তাকে বোল্ড করেন তিনি। ৩১৭ রানে অলআউট হয় নিউজিল্যান্ড।

এরপর ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতে দুটি বাউন্ডারি হাঁকালেও পরে ধরে খেলেছেন দুই উদ্বোধনী ব্যাটার জাকির হাসান ও মাহমুদুল হাসান জয়। তারা লাঞ্চের আগে কোনো উইকেট হারাতে দেননি বাংলাদেশকে।  

কিন্তু বিরতি থেকে ফেরার পর আর উইকেট ধরে রাখতে পারেনি বাংলাদেশ। আগের ইনিংসের মতো এবারও জাকির হাসানকে ফেরান এজাজ প্যাটেল। ৩০ বলে ১৭ রান করে হন এলবিডব্লিউ। তার বিদায়ের পর মাহমুদুলের সঙ্গী হন নাজমুল হোসেন শান্ত।  

তারা দুজনও ঠিকপথেই এগোচ্ছিলেন। কিন্তু হুট করে হারাতে হয় মাহমুদুলকেও। ৪৬ বলে ৮ রান করে নন স্ট্রাইক প্রান্তে রান আউট হন তিনি। ক্রিজ ছেড়ে একটু সামনে এগিয়ে এসেছিলেন শান্তর মারা বলে হাত ছুয়ে দেন সাউদি। বল স্টাম্প ভাঙলে আউট হয়ে ফিরতে হয় মাহমুদুলকে।  

এরপর থেকে দারুণভাবে খেলতে থাকেন শান্ত। তাদের খুব একটা চ্যালেঞ্জের মুখেও ফেলতে পারেননি কিউই বোলাররা। কিন্তু এরপর আবারও রান আউটের ‍দুর্ভাগ্য বরণ করতে হয় বাংলাদেশকে।  

মিড অনে বেশ জোরে খেলে রান নিতে ছোটেন মুমিনুল। কিন্তু তখনও বলের দিকে তাকিয়ে ছিলেন শান্ত। মুমিনুল পরে যখন আবার স্ট্রাইক প্রান্তে ফেরা শুরু করেছেন, ততক্ষণে হেনরি নিকোলসের থ্রোতে স্টাম্প ভেঙে ফেলেছেন উইকেটরক্ষক ব্লান্ডেল।  

পরের গল্পজুড়ে নাজমুল হোসেন শান্ত। দুর্দান্ত এক ইনিংস খেলে এখনও অপরাজিত আছেন তিনি। দিনের শেষ ওভারে এজাজ প্যাটেলের বল মিড অফে ফেলে রান নিয়ে সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন তিনি। টেস্ট অধিনায়কত্বের অভিষেকে বাংলাদেশের প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে সেঞ্চুরি করেছেন। টেস্ট ক্যারিয়ারে এটি তার পঞ্চম সেঞ্চুরি। শেষ পাঁচ ইনিংসে তৃতীয়।

শান্তর চার মারা দিয়ে ওই ওভারে শেষ হয় দিনের খেলা। তৃতীয় দিনশেষে নিশ্চিতভাবেই ম্যাচে এগিয়ে আছে বাংলাদেশ। দিনের শুরুতে বাংলাদেশের বোলাররা টার্ন পেলেও কিউইদের ক্ষেত্রে সেটি কম দেখা গেছে। বাংলাদেশের ব্যাটারদের খুব একটা চ্যালেঞ্জেও ফেলতে পারেননি তারা।  

এখনও বাংলাদেশের হাতে সাত উইকেট আছে। নিউজিল্যান্ডের সামনে বড় রানের লক্ষ্য দেওয়ার বেশ ভালো সম্ভাবনাই এখনও টিকে আছে।

বাংলাদেশ সময় :  ১৬৫৩ ঘণ্টা, নভেম্বর ৩০, ২০২৩
এমএইচবি/এএইচএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।