ঢাকা, শনিবার, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ২৮ রবিউস সানি ১৪৪৩

ক্রিকেট

যা হওয়ার দুবাইয়ে হবে!

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০০৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৩, ২০১৪
যা হওয়ার দুবাইয়ে হবে! ছবি : বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ঢাকা: আইসিসির নতুন সংস্কার অনুযায়ী বিশ্ব ক্রিকেটে তিন মাতবর হতে যাচ্ছে অস্ট্রেলিয়া, ভারত ও ইংল্যান্ড। পুরো ক্রিকেট নিয়ন্ত্রণ করবে তারাই, চিন্তা করছে নয় ও দশ নম্বরে থাকা দলকে টেস্ট থেকে বাতিল করতে।

এতে করে শীর্ষ আটে থাকা সত্ত্বেও পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও দক্ষিণ আফ্রিকা এই বিতর্কিত প্রস্তাবের বিরোধিতা শুরু করে দিয়েছে। অথচ নিজেদের সম্ভাব্য পরিণতির কথা বুঝতে পেরেও নিশ্চুপ বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

আগামী ২৮-৩০ জানুয়ারি দুবাইয়ে আইসিসির নির্বাহী কমিটির সভা বসবে। সেখানে এই তিন মাতবরের সঙ্গে বাংলাদেশসহ অন্য দেশের বোর্ড কর্মকর্তারাও থাকবে।

এমন প্রস্তাবের বিরোধিতা দূরে থাক, বিসিবি ভুগছে সিদ্ধান্তহীনতায়। জানিয়েছে, দুবাইয়ের আসন্ন ওই সভায় অন্য বোর্ডের পক্ষ নেওয়া বা বিরোধিতা থেকে সিদ্ধান্ত নেবে কোন দিকে যাবে তারা। সেক্ষেত্রে এই প্রস্তাব ভোটে হেরে গেলে বাংলাদেশ বরণ করে নেবে এই দুর্ভাগ্যকে।

অবশ্য সভা বসার আগের দিনই দুবাই পৌঁছাবেন জানালেন বিসিব প্রধান নাজমুল হাসান পাপন। অন্য দেশের প্রতিনিধিদের সঙ্গে এই বিষয় নিয়ে আলাপ আলোচনা করবেন। তিনি বলেন,‘গত রাতে এই বিষয়টি নিয়ে আমি ভালোভাবে দেখেছি। ইতোমধ্যে আমরা প্রচারণা শুরু করছি যেন আমাদের পক্ষে মতামত থাকে। শ্রীলঙ্কান ক্রীড়ামন্ত্রীর সঙ্গে আমাদের কথা হয়েছে। তবে তাদের ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে কথা হয়নি। পাকিস্তান গত আইসিসির সভায় এই প্রস্তাবের বিরোধিতা করেছে। পরিস্থিতি বুঝেই আমাদের সিদ্ধান্ত নিতে হবে। অন্য দেশগুলো আমাদের পক্ষে থাকে না বিপক্ষে থাকে, এরপরই বলতে পারব কী হতে যাচ্ছে না হতে যাচ্ছে। ’

অন্য দেশগুলোর প্রস্তাবের উপরই নির্ভর করছে নাজমুল হাসানের প্রস্তাব,‘সভায় গিয়ে যদি বুঝতে পারি প্রস্তাবে কাজ হবে তাহলে আমরা উপস্থাপন করব। আর যদি আগে থেকেই তারা সিদ্ধান্ত নিয়ে রাখে তবে প্রস্তাব দেওয়া না দেওয়া একই কথা। এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন হলে আমাদের সেটা মেনে নিতে হবে। আর বাদ না পড়লে তো এগিয়ে যাবই। ’

বাদ পড়ে গেলেও বাংলাদেশের টেস্ট খেলার সম্ভাবনা শেষ হয়ে যাবে না জানালেন বোর্ড প্রধান। তবে সেটা প্রতিপক্ষের দয়ার উপর নির্ভর করবে,‘টেস্টে আমাদের মর্যাদা থাকবে, কিন্তু এফটিপি অনুযায়ী খেলতে পারব না। তবে অন্য দেশকে আমন্ত্রণ জানানোর পর তারা রাজি হলে খেলা যাবে। ’

নতুন মোড়লদের প্রস্তাব অনুযায়ী বাদ পড়ার তালিকা বাস্তবায়িত হলে বাংলাদেশ সঙ্গে পাচ্ছে জিম্বাবুয়েকে। এর বিরোধিতায় প্রচারণা চ‍ালাতে সঙ্গী পাওয়ায় নাজমুল জানালেন,‘আমরাই শুধু আলোচনা করব তা নয়, জিম্বাবুয়েও আছে। তারাও বিভিন্ন প্রচেষ্টা চারাবে তাদের পক্ষ থেকে। এটা আমাদের জন্যও ভালো। ’

এখনই কিছু করতে না পারলেও দেশের ক্রিকেটের এর প্রভাব খারাপ হবে সেটা মানছেন নাজমুল,‘র‌্যাঙ্কিংয়ে আমাদের থেকে জিম্বাবুয়ে অনেক উপরে আছে। আমার তো মনে হয় না আগামী দশ বছর টেস্ট খেললেও আট নম্বরে যেতে পারব। এই খেলে যে আমরা লাভবান হচ্ছি তাও না। তবে গত দেড় বছর ভালো খেলছে দেশ।

এক্ষেত্রে আমাদের পারফরমাদের সংখ্যা বাড়ছে। এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন হলে তাই খারাপ হবে। র‌্যাঙ্কিংয়ে যা একটু পয়েন্ট পেতাম সেটাও হবে না। ’

বাংলাদেশ সময়: ১৯৫৬ ঘণ্টা, ২৩ জানুয়ারি ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa