ঢাকা, বুধবার, ১১ কার্তিক ১৪২৮, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

ক্রিকেট

জেতার অভ্যাস ধরে রাখতে চান এনামুল

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮১৬ ঘণ্টা, মার্চ ১৯, ২০১৪
জেতার অভ্যাস ধরে রাখতে চান এনামুল ছবি : শোয়েব মিথুন / বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

চট্টগ্রাম থেকে: বাছাই পর্বের অন্য দলের চেয়ে এগিয়ে বাংলাদেশ। দুই ম্যাচের মধ্যে দু’টিতেই জিতেছে দাপটের সঙ্গে।

টাইগাররা বৃহস্পতিবার শেষ ম্যাচে মাঠে নামবে হংকংয়ের বিপক্ষে। সুপার টেনের ট্রেন ধরতে আর মাত্র একটি ম্যাচ লাল-সবুজদের সামনে। বুধবার দুপুর আড়াইটার পর জহুর আহমেদ স্টেডিয়ামে অনুশীলনে নামে বাংলাদেশ দল।

সংবাদ সম্মেলনে এসে পরবর্তী ম্যাচ নিয়ে কথা বলেন ওপেনার এনামুল হক। দুই ম্যাচেই দারুণ খেলা এই ওপেনার বলেন,‘ ব্যাটিংয়ে কিছু উন্নতি করার চেষ্টা করেছি। কিছু মূল পরিকল্পনা করার চেষ্টা করেছি। আশা করি ভবিষ্যতেও কাজে লাগবে। আসলে কাল রান নেয়ার সময় আমার কল ছিল না। হয়তো ভুল বোঝাবুঝির কারণেই হয় নাই। আর আমরা শেষ ম্যাচটায় মজা করেছি, উপভোগ করেছি। কিন্তু হংকং নিয়ে তখন কিছু ভাবি নাই। তাদের নিয়ে ভাবার জন্য আজকের দিন আছে। ’



নিয়মিত জেতার অভ্যাস ধরে রাখতে পালে কঠিন ম্যাচও নিজের করে নেওয়া যায় মনে করেন তিনি। ক্যারিয়ারের পাঁচ টি-টোয়েন্টিতে একটি অর্ধশতক ও ১৯০ রানের পুঁজি রয়েছে তার,‘জেতার অভ্যাস থাকাটা খুব গুরুত্বপূর্ণ। জিততে পারলে সেটা অনেক কাজে লাগে। আমরা দেখেছি শ্রীলঙ্কা অনেক ম্যাচ জিতে এমন একটা অভ্যাস তৈরি করেছে, এখন অনেক কঠিন ম্যাচেও ওরা জিতেছে। জেতাটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার। এই অভ্যাস ধরে রাখলে আশা করি কঠিন ম্যাচও জেতা সম্ভব হবে। ’    



এশিয়া কাপে ভারতের বিপক্ষে ৭৭ ও পাকিস্তানের বিপক্ষে শতক করা এনামুল বোলিংয়ের পার্থক্য নিয়ে বলেন, ‘অভিজ্ঞতার একটা বড় ঘাটতি সব সময় থাকে বলে আমার মনে হয়। পাকিস্তানের বোলারদের অনেক অভিজ্ঞতা ছিল। আম‍ার কাছে মনে হয় অভিজ্ঞতা খুব গুরুত্বপূর্ণ। হংকং, নেপাল বা আফগানিস্তানের ওতটা অভিজ্ঞতা নেই যেটা বড় দলগুলোর আছে। ’

প্রতিপক্ষ যে দলই হোক তাদের নিয়ে খসড়া পরিকল্পনা করছে বাংলাদেশ। তাদের নিয়ে পর্যালোচনা করে সাকিব-রাজ্জাক-মাশরাফিরা,‘আমি আগের তিনটি ম্যাচ দেখেছি। ওরা চার-পাঁচটা পেস বোলার খেলায়। আমরা প্রতিটি ম্যাচের আগে প্রতিপক্ষকে নিয়ে হোমওয়ার্ক অবশ্যই করে থাকি। প্রতিটি খেলোয়াড়কে নিয়েও আমরা আলোচনা করে থাকি। আশা করি আজকেও তা করবো। আমাদের কি করলে ভালো হবে সেদিকে খেয়াল রাখবো। ’



সুপার টেনে বড় দলগুলোর সঙ্গে আত্মবিশ্বাস বাড়াতে শেষ ম্যাচটাকে গুরুত্ব দিচ্ছেন এই ব্যাটসম্যান,‘বড় দলের বিপক্ষে খেলার আগে কালকের ম্যাচটি আমাদের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ। কালকের ম্যাচে আমরা যদি ব্যক্তিগতভাবে কিছু পারফরম করতে পারি সুপার টেনে আমাদের আত্মবিশ্বাস আরো বাড়বে। ’

যত বেশি টি-টোয়েন্টি খেলা হবে তত বেশি দল পাকাপোক্ত হবে এমনটি মনে করেন এনামুল,‘এমন ম্যাচ যত বেশি খেলবো তত উন্নতি করার সুযোগ থাকে। আমরা অভিজ্ঞতা নিতে পারবো। প্রতিটি ম্যাচ থেকে আরো নতুন নতুন কিছু শিখতে পারবো। ’

বাংলাদেশ সময়: ১৮১৬ ঘণ্টা, ১৮ মার্চ ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa