ঢাকা, শুক্রবার, ৬ মাঘ ১৪২৮, ২১ জানুয়ারি ২০২২, ১৭ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

ক্রিকেট

বৃষ্টির পর পাকিস্তানের রানবন্যা, বাবরের ফিফটি

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৩৪ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৪, ২০২১
বৃষ্টির পর পাকিস্তানের রানবন্যা, বাবরের ফিফটি দারুণ এক ফিফটি তুলে নিয়েছেন বাবর আজম/ছবি: শোয়েব মিথুন

মধ্যাহ্ন বিরতির পর ঘণ্টাখানেক খেলা হতেই মিরপুর শের-ই-বাংলায় নেমে আসে বৃষ্টি। পিচ কাভার দিয়ে ঢেকে ফেলা হয়।

ক্রিকেটার এবং আম্পায়ারেরা মাঠ ত্যাগ করেন। কিছুক্ষণ খেলা বন্ধ থাকার পর সাকিবকে দিয়ে বোলিং শুরু করান মুমিনুল। কিন্তু সেখান থেকেই বাবর আজম ও আজহার আলী রানের ফোয়ারা ছুটিয়ে যাচ্ছেন।  
 
বৃষ্টির কারণে মিনিট পনেরো খেলা বন্ধ থাকার পর সাকিবের বলে বাবরের ক্যাচ সীমানার কাছাকাছি ফেলে দেন খালেদ। পাকিস্তানি ডানহাতি ব্যাটার তখন ৩৯ রানে ব্যাট করছিলেন। সেই মিস হওয়া ক্যাচটি চার হয়ে যায়। পরের বলেও সাকিবকে চার মারেন বাবর। জীবন পাওয়ার পর বাবর ৭৫ বলে ফিফটি তুলে নেন। পাকিস্তানের অধিনায়ককে যোগ সঙ্গ দিচ্ছেন আজহার আলী। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ২ উইকেট হারিয়ে ৫৫ ওভার শেষে পাকিস্তানের সংগ্রহ ১৫২।  

সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট ম্যাচের প্রথম দিন শনিবার শের-ই-বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান নেন পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজম।  

টেস্ট সিরিজ বাঁচানোর মিশনে শুরুতে ফিল্ডিং করছে মমিনুলবাহিনী। এই স্বাগতিক একাদশে রয়েছে অনেক চমক। বাংলাদেশের ৯৯তম খেলোয়াড় হিসেবে টেস্ট অভিষেক হয়েছে মাহমুদুল হাসান জয়ের। একাদশে ফিরেছেন সাকিব আল হাসান ও খালেদ হোসেনও। দল থেকে বাদ পড়েছেন আবু জায়েদ রাহি, সাইফ হাসান ও ইয়াসির আলী রাব্বি।

সকালের সুইং ব্যবহার করে দুই পেসার এবাদত ও খালেদের বোলিংয়ের শুরুটা হয় আঁটসাঁট। কিন্তু ধীরে ধীরে সেট হয়ে হাত খুলতে শুরু করেন দুই পাকিস্তানি ওপেনার আবিদ ও শফিক। দুজনের জুটি ৫০ পেরিয়ে যায়। কিন্তু তাদের বেশিদূর যেতে দেননি তাইজুল। ১৯তম ওভারে সেট হয়ে যাওয়া দুই ব্যাটারের জুটি ভাঙেন তিনি। এই বাঁহাতি স্পিনারের বল শফিকের ব্যাট ও প্যাডকে ফাঁকি দিয়ে স্ট্যাম্প ভেঙে দেয়। ৫০ বল খেলে ২ চার ও ১ ছক্কায় ২৫ রানের ইনিংস খেলে বিদায় নেন শফিক। ৫৯ রানে প্রথম উইকেট হারায় পাকিস্তান।

পাকিস্তানের আরেক ওপেনার আবিদ আলীকেও বেশিদূর যেতে দেননি তাইজুল। বাঁহাতি স্পিনারের বলে কাট করতে গেলে বল আবিদের ব্যাটের কানা ছুঁয়ে স্ট্যাম্পে আঘাত হানে। আগের ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান আবিদ এবার বিদায় নিলেন ৮১ বলে ৬ চারে ৩৯ রান করে। কিন্তু এরপর বাবর জম ও আজহার মিলে দারুণ জুটি গড়েন। বৃষ্টি বাধায় দেরি হলেও খেলা শুরু হওয়ার পর দুজনের জুটিতে ৮০-এর বেশি রান এসে গেছে।

বাংলাদেশ একাদশ: মুমিনুল হক (অধিনায়ক), সাদমান ইসলাম, মাহমুদুল হাসান জয়, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুশফিকুর রহিম, লিটন কুমার দাস, সাকিব আল হাসান, মেহেদি হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, খালেদ হোসেন, এবাদত হোসেন।

পাকিস্তান একাদশ: বাবর আজম (অধিনায়ক), মোহাম্মদ রিজওয়ান (সহ-অধিনায়ক ও উইকেটরক্ষক), আব্দুল্লাহ শফিক, আবিদ আলী, আজহার আলী, ফাহিম আশরাফ, ফাওয়াদ আলম, হাসান আলী, নোমান আলী, সাজিদ খান ও শাহীন শাহ আফ্রিদি।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৩৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৪, ২০২১
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa