ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৬ মে ২০২২, ২৪ শাওয়াল ১৪৪৩

ক্রিকেট

তামিমের ঝড়ো সেঞ্চুরিতে সিলেটকে উড়িয়ে দিল ঢাকা

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৫২ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৮, ২০২২
তামিমের ঝড়ো সেঞ্চুরিতে সিলেটকে উড়িয়ে দিল ঢাকা ছবি: সোহেল সরওয়ার

দীর্ঘদিন পর ছন্দ ফিরে পেলেন দেশসেরা ওপেনার তামিম ইকবাল। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) দশম ম্যাচে সিলেট সানরাইজার্সের বিপক্ষে ঝড়োগতির শতক হাঁকিয়ে মিনিস্টার ঢাকাকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়লেন তিনি।

 

শুক্রবার (২৮ জানুয়ারি) চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে লিন্ডল সিমন্সের শতকে ভর করে ১৭৫ রানের সংগ্রহ পায় সিলেট। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ১৮ বল হাতে রেখে জয় নিশ্চিত করে তামিম ইকবালরা। ৯ উইকেটের বড় জয় পায় ঢাকা।

বিপিএলের চট্টগ্রাম পর্বের দ্বিতীয় ম্যাচে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে দারুণ শুরু করেন সিলেটের দুই ওপেনার সিমন্স ও এনামুল হক বিজয়। ৩৫ বলে ৫০ রানের জুটি গড়ে এবাদত হোসাইনের বলে উইকেট হারান বিজয়। ১৮ রানে তার ফেরার পর ব্যাট করতে নেমে ৬ রানে বিদায় নেন মোহাম্মদ মিঠুন। এরপর মাঠে নেমে ডাক মেরে বিদায় নেন কলিন ইনগ্রাম। ব্যাটারদের আসা-যাওয়ার মাঝে একপ্রান্ত ঠিকই আগলে রাখে সিমন্স।

থিতু হয়ে থাকা সিমন্সের সঙ্গে ৬৩ রানের জুটি গড়ে ব্যক্তিগত ১৩ রানে বিদায় নেন রবি বোপারা। এরপর সিমন্সকে সঙ্গ দেন অধিনায়ক মোসাদ্দেক হোসাইন। বিধ্বংসী ইনিংস খেলে ৫৯ বলে সিমন্স ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি শতক তুলে নেন। ভয়ঙ্কর ক্যারিবিয় এই ব্যাটারকে শেষ পর্যন্ত ফেরান স্বদেশী আন্দ্রে রাসেল। ১৪ চার ও ৫ ছয়ে ৬৫ বলে ১১৬ রান করে সাঝঘরে ফেরেন সিমন্স। শেষদিকে এসে দারুণ ব্যাট করে দলের সংগ্রহ বাড়ান মোসাদ্দেক। নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৭৫ রানের সংগ্রহ পায় সিলেট। ৮ বলে ১৩ রান নিয়ে অপরাজিত থাকেন মোসাদ্দেক।

জয়ের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমেই উড়ন্ত শুরু করেন ঢাকার দুই ওপেনার তামিম ও শেহজাদ। দীর্ঘদিন পর ছন্দ খুঁজে পাওয়া তামিম ইকবাল একপ্রান্তে ব্যাটিং তাণ্ডব চালাতে থাকেন। অপরপ্রান্তে তাকে সঙ্গ দোন আফগান ওপেনার মোহাম্মদ শেহজাদ। সপ্তদশ ওভারে আলাউদ্দিন বাবুর করা নো বলে চার হাঁকিয়ে শতক পূর্ণ করেন তামিম ইকবাল। ৬১ বলে ১৬ চার ও ৩ ছয়ে সেঞ্চুরির দেখা পান দেশসেরা এই ওপেনার। শেষদিকে এসে বাবুর বলে উইকেট হারান শেহজাদ। ৩৯ বলে ৫৩ রান করে বিদায় নেন তিনি। এই ওভারের শেষ বলে চার হাঁকিয়ে দলের জয় নিশ্চিত করেন তামিম। ১১১ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ২১৫২ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৮, ২০২২
আরইউ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa