ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৬ মাঘ ১৪২৯, ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৭ রজব ১৪৪৪

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

প্রধানমন্ত্রীর সফর: সড়কে যানবাহন চলাচলে থাকছে যেসব বিধিনিষেধ 

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৫৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১, ২০২২
প্রধানমন্ত্রীর সফর: সড়কে যানবাহন চলাচলে থাকছে যেসব বিধিনিষেধ  ট্রাফিক বিভাগের রোডম্যাপ

চট্টগ্রাম: আগামী ৪ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চট্টগ্রাম সফর সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে সম্পাদনের জন্য যানবাহন চলাচলে থাকছে কিছু বিধিনিষেধ।

রোববার (৪ ডিসেম্বর) সকাল ৮টা থেকে প্রধানমন্ত্রীর সফর শেষ না হওয়া পর্যন্ত চট্টগ্রাম মহানগরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ও প্রধান সড়কে চলাচল নিয়ন্ত্রণ ও বন্ধ রাখা হবে।

 

এছাড়াও  ঐদিন সকাল আটটা থেকে রাত আটটা পর্যন্ত পর্যন্ত আন্ত জেলা যাত্রীবাহী এসি ও নন-এসি বাস মহানগরে প্রবেশ করতে পারবেনা।  

চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের (সিএমপি) গণমাধ্যম ও জনসংযোগ শাখা থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

 

সিএমপির গণমাধ্যম ও জনসংযোগ বিভাগের অতিরিক্ত উপকমিশনার (এডিসি) পংকজ দত্ত বাংলানিউজকে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফর সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে সম্পাদন জন্য  চট্টগ্রাম মহানগরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়কে কিছু সময়ের জন্য যান চলাচল নিয়ন্ত্রণ ও বন্ধ রাখা হবে। প্রধানমন্ত্রীর সফর সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে সম্পাদনের জন্য নির্দেশনা সকল প্রকার যানবাহনের চালক, যাত্রী সাধারণ ও সমাবেশে অংশগ্রহণকারী সকলকে যথাযথভাবে মেনে চলার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করা যাচ্ছে। একই সঙ্গে সিএমপির ট্রাফিক বিভাগ নগরের সর্বাত্মক সহযোগিতা প্রত্যাশা করছে।

সিএমপি সূত্র বলছে, প্রধানমন্ত্রীর চলাচলের সময় বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ও প্রধান সড়কে কিছু সময়ের জন্য যান চলাচল নিয়ন্ত্রণ করা হবে।  

  নগরের এমএ আজিজ স্টেডিয়াম থেকে রেডিসন গোলচত্বর, ইস্পাহানী মোড়, টাইগারপাস হয়ে পলোগ্রাউন্ড সমাবেশস্থল এবং পলোগ্রাউন্ড মাঠ থেকে টাইগারপাস, ইস্পাহানি মোড়, রেডিসন  গোলচত্বর হয়ে এম এ আজিজ স্টেডিয়াম পর্যন্ত সড়কে রোববার সকাল আটটা থেকেসফর শেষ না হওয়া পর্যন্ত যানবাহন চলাচল নিয়ন্ত্রণ করা হবে।  

সমাবেশে আগত ছোট-বড় গাড়ির পার্কিং স্থান নিধারণসহ সুষ্ঠু ট্রাফিক ব্যবস্থাপনার লক্ষে সিএমপি’র ট্রাফিক বিভাগ কিছু পদক্ষেপ নিয়েছে।

এরমধ্যে রয়েছে নগরের হাই লেভেল রোড, ওয়াসার মোড়, জমিয়াতুল ফালাহ্ পশ্চিম গেইট ইউর্টান, লালখান বাজার ফ্লাইওভারের নামার মুখ, আলমাস মোড়, চানমারি রোড, ম্যাজিষ্ট্রেট কলোনী রোডের মুখ, সিটি করপোরেশনের অফিস গলির উভয় মুখ, দেওয়ানহাট ব্রীজের মুখ, টাইগারপাস মোড়, আমবাগান রেলক্রসিং, কাজীর দেউড়ী, নেভাল এভিনিউ, ইঞ্জিনিয়ার ইনিষ্টিটিউট, রেলওয়ে অফিসার্স কলোনী মসজিদ, কুক আউট রেষ্টুরেন্ট , উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়, কাঠের বাংলো, ফ্রান্সিস রোড, আটমার্সিং, এনায়েত বাজার, পুরাতন রেল স্টেশন, কদমতলী মোড়, নিউ মার্কেট মোড়, সিটি কলেজ মোড়, ব্রীজ ঘাট(অভয়মিত্র ঘাট), নতুন ব্রীজ (মেরিন ড্রাইভ রোডের মুখ), আখতারুজ্জামান ফ্লাইওভারে উঠার মূখ (বেবী সুপার মার্কেট), ষোলশহর ২নং গেইট পুলিশ বক্সের সামনে, ফ্লাইওভারে উঠার মুখ (এন মোহাম্মদ মুরাদপুর), পেনিনসুলা হোটেলের সামনে, শহীদ শাহজাহান মাঠের সামনে (আমবাগান রোড), পাঞ্জাবি লেইনের মুখ (জাকির হোসেন রোড), আগ্রাবাদ বাদামতলী মোড়। এ সকল রুটের মূখে  রোড ব্লক স্থাপন ও ডাইভারশন প্রদানের মাধ্যমে ভিভিআইপি চলাচলের সময় সকল ধরণের যানবাহন চলাচল নিয়ন্ত্রণ করা হবে।

সমাবেশে গাড়ি নিয়ে আসা অংশগ্রহণকারীদের জন্য ড্রপিং পয়েন্ট হলো নতুন ব্রীজ গোল চত্বরের পশ্চিম পার্শ্বে, কদমতলী মোড়, ষোলশহর রেল স্টেশনের সামনে রাস্তা, শহীদ শাহজাহান মাঠ ও আগ্রাবাদ বাদামতলী মোড়।  বীর মুক্তিযোদ্ধাগনের ড্রপিং পয়েন্ট শহীদ শাহজাহান মাঠ ও নিউ মার্কেট।

এছাড়া  মন্ত্রী, মেয়র, এমপি, কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ, জিওসি- ২৪ পদাতিক ডিভিশন, বিভাগীয় কমিশনার, পুলিশ কমিশনার ও রেঞ্জ ডিআইজি মহোদয়গণের ড্রপিং পয়েন্ট পলোগ্রাউন্ড বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে (টাইগারপাস হতে সকল গাড়ি উল্টো পথে এসে ড্রপ করে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের গাড়ি ইউর্টান করে কাঠের বাংলো দিয়ে সিআরবিতে চলে যাবে।  

মন্ত্রী, মেয়র, এমপি, জিওসি- ২৪ পদাতিক ডিভিশন, বিভাগীয় কমিশনার, পুলিশ কমিশনার ও রেঞ্জ ডিআইজি গণের গাড়ি সোজা সামনে গিয়ে রেলওয়ে পাবলিক স্কুল মাঠে প্রবেশ করবে ।   

পার্কিং:

মন্ত্রী, মেয়র, এমপি, জিওসি- ২৪ পদাতিক ডিভিশন, বিভাগীয় কমিশনার, পুলিশ কমিশনার ও রেঞ্জ ডিআইজি পার্কিংঃ রেলওয়ে পাবলিক স্কুল মাঠ।  
 
কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের পার্কিং হবে সিআরবি সাত রাস্তা (এক সারিতে)। বীর মুক্তিযোদ্ধাগণের গাড়ি পার্কিংঃ শহীদ শাহজাহান মাঠ ও শুভপুর বাস টার্মিনাল। এছাড়া ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণের কার পার্কিং পুরাতন রেল স্টেশন ও সিআরবি সাত রাস্তা।

মহানগর ও জেলা নেতৃবৃন্দের কার পার্কিং করবেন জমিয়াতুল ফালাহ্ মসজিদ মাঠ,  পুরাতন রেল স্টেশন ও প্যারেড গ্রাউন্ড।  নেতৃবৃন্দের মাইক্রোবাস পার্কিং স্থান প্যারেড গ্রাউন্ড (চকবাজার)।  
 
সমাবেশে আসা বাসগুলো পার্কিং করবে নতুন ব্রীজ হতে কালামিয়া বাজার এক্সেস রোড, শুভপুর টার্মিনাল, ফরেস্ট গেইট (বন গবেষণা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ), বহদ্দারহাট টার্মিনাল, শহীদ শাহজাহান মাঠ (আমবাগান রোড), আগ্রাবাদ এক্সেস রোড ও অলংকার আলিফ গলি।  বিভিন্ন মিডিয়ার কার পার্কিং করবে জমিয়াতুল ফালাহ্ মসজিদ মাঠ।

বাংলাদেশ সময়: ২১৪৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১, ২০২২ 
এমআই/পিডি/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa