ঢাকা, শুক্রবার, ৫ বৈশাখ ১৪৩১, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৯ শাওয়াল ১৪৪৫

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

উত্তর জেলা যুবলীগ: একদিন না যেতেই দুই সহ সভাপতির পদত্যাগ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬০১ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৭, ২০২৩
উত্তর জেলা যুবলীগ: একদিন না যেতেই দুই সহ সভাপতির পদত্যাগ সদ্য ঘোষিত কমিটির পদত্যাগী দুই সহ সভাপতি নুরুল মোস্তফা মানিক ও রাজীবুল আহসান সুমন

চট্টগ্রাম: সম্মেলনের প্রায় সাড়ে আট মাস পর উত্তর জেলা যুবলীগের কমিটি ঘোষণা করা হয় সোমবার (৬ ফেব্রুয়ারি) রাতে। এরই মধ্যে কমিটি নিয়ে ক্ষোভ ও অসন্তোষ দেখা দিয়েছে।

কমিটি ঘোষণার পরপরই পদত্যাগ করেছেন সদ্য ঘোষিত কমিটির দুই সহ সভাপতি নুরুল মোস্তফা মানিক ও রাজীবুল আহসান সুমন।  

সোমবার (৬ ফেব্রুয়ারি) যুবলীগে কেন্দ্রীয় কমিটির চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস্ পরশ ও সাধারণ সম্পাদক মো. মাইনুল হোসেন খান নিখিলের যৌথ স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এই কমিটি ঘোষণা করা হয়।

কমিটিতে উত্তর জেলা যুবলীগের সদ্য সাবেক সাধারণ সম্পাদক এস এম রাশেদুল আলমকে সভাপতি ও সীতাকুণ্ডের মো. শাহজাহানকে সাধারণ সম্পাদক করে চট্টগ্রাম উত্তর জেলা যুবলীগের ৩২ সদস্য বিশিষ্ট আংশিক কমিটি ঘোষণা করা হয়। আগামী ৪৫ দিনের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ কমিটি কেন্দ্রে অনুমোদনের জন্য জমা দেওয়ারও এতে নির্দেশ দেওয়া হয়।

এদিকে কমিটি ঘোষণার পর সোমবার রাতে ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে পদত্যাগের কথা জানান নতুন কমিটির সহ সভাপতি নুরুল মোস্তফা মানিক। যুবলীগের চেয়ারম্যান ও সাধারণ সম্পাদক বরাবর পাঠানো পদত্যাগপত্রের মাধ্যমে তিনি জানান, সবিনয় নিবেদন এই যে আমি নিম্নস্বাক্ষরকারী বিগত ৩৫/৩৬ বছর ধরে বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বুকে ধারণ করে জননেত্রী শেখ হাসিনার ভিশন বাস্তবায়নে ক্ষুদ্র কর্মী হিসেবে যুবলীগ এবং ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত থেকেছি।  চাওয়া পাওয়ার হিসেবে নিকেশ কিংবা ত্যাগ তিতিক্ষার ফিরিস্তি তুলে ধরতে চাইনা। শেখ হাসিনার একজন কর্মী এই পরিচয়ই আমার জন্য যথেষ্ট।  

অতএব মহোদয় এর কাছে আকুল আবেদন সদ্য ঘোষিত চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী যুবলীগ এর সহসভাপতি পদ থেকে পদত্যাগ করতে সুযোগ দিয়ে বাধিত করবেন।  

নুরুল মোস্তফা মানিক চট্টগ্রাম উত্তর জেলা যুবলীগের সর্বশেষ কমিটিতেও সহ সভাপতি পদে ছিলেন। এছাড়া তিনি মিরসরাই উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

তিনি বাংলানিউজকে বলেন, আমি উত্তর জেলা যুবলীগের সভাপতি পদে সিভি জমা দিয়েছেন, সহ সভাপতি পদে নয়। কিন্তু ঘোষিত কমিটিতে আমাকে সহ সভাপতি করা হয়েছে। আমি বিদায়ী কমিটিতে চার নম্বর সহ সভাপতি ছিলাম। কমিটিতে সিনিয়র-জুনিয়র মেইনটেইন করা হয়নি। জুনিয়রদের মূল্যায়ন করা হয়েছে। জুনিয়রদের সঙ্গে রাজনীতি করা যায় না। আমি শেখ হাসিনার কর্মী হিসেবেই মাঠে রাজনীতি করবো।

পদত্যাগের বিষয়ে রাজীবুল আহসান সুমন বাংলানিউজকে বলেন, আমি উপজেলা ও জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ছিলাম। আমি উত্তর জেলা যুবলীগের সভাপতি পদে সিভি জমা দিয়েছেন, সহ সভাপতি পদে নয়। কিন্তু ঘোষিত কমিটিতে আমাকে সহ সভাপতি করা হয়েছে। আমি সহ সভাপতি হিসেবে কমিটির সঙ্গে কাজ করতে পারব না, যার কারণে পদত্যাগ করেছি।  

বাংলাদেশ সময়: ১৬০০ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৭, ২০২৩ 
এমআই/পিডি/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।