ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১ আশ্বিন ১৪২৯, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

বিশেষ অভিযানের নামে নেতাদের গুম-হত্যা করা হচ্ছে: নোমান

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭১৯ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৯, ২০১৩
বিশেষ অভিযানের নামে নেতাদের গুম-হত্যা করা হচ্ছে: নোমান ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

চট্টগ্রাম: ক্ষমতাকে চিরস্থায়ী করতে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সাথে দলীয় ক্যাডারদের একীভূত করে বিশেষ অভিযানের নামে দেশে বিএনপি নেতাকর্মীদের নির্যাতন ও গুম করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান।

তিনি বলেছেন,‘স্বাধীনতার পর আওয়ামী লীগ আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সাথে রক্ষী বাহিনীকে এক করে হাজার হাজার মুক্তিযোদ্ধা ও বিরোধীদলের নেতকর্মীদের হত্যা করেছিল।

বর্তমান সরকারও প্রার্থীবিহীন নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতাকে চিরস্থায়ী করতে পুলিশ, র‌্যাব ও বিজিবি’র সাথে দলীয় ক্যাডারদের একীভূত করে বিশেষ অভিযানের নামে সারাদেশে বিএনপি নেতা-কর্মীদের গ্রেপ্তার, নির্যাতন, গুম ও নির্বিচারে হত্যা করছে। ’

বৃহস্পতিবার নগরীর নুর আহমেদ সড়কে নগর বিএনপির উদ্যোগে আয়োজিত সমাবেশে আবদুল্লাহ আল নোমান প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।  

তিনি বলেন,‘এই নারকীয় কর্মকা- অব্যাহত থাকলে বাংলাদেশ একটি ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত হবে। গণতন্ত্র, ভোটাধিকার ও দেশ রক্ষার চলমান আন্দোলনকে আরো জোরদার করে এই সরকারের পতন ঘটানো ছাড়া বর্তমান সংকট থেকে উত্তরণের অন্য কোন পথ খোলা নেই। ’

এজন্য নেতাকর্মীদেরকে ঐক্যবদ্ধভাবে আন্দোলন সংগ্রাম চালিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানান বিএনপি আমলের সাবেক এই মন্ত্রী।

বুধবার ১৪ দলের সভায় প্রধানমন্ত্রীর ভাষণের সমালোচনা করে নোমান বলেন,‘ সভায় প্রধানমন্ত্রী সরাসরি বিরোধী দলের রাজনৈতিক আন্দোলনে সংশ্লিষ্ট নেতাকর্মীদের বাসা ও অফিসে হামলা করা হবে বলে যে বক্তব্য দিয়েছেন তাতে  দেশের সমগ্র জনগণ আতঙ্কিত ও উদ্বিগ্ন। এই বক্তব্যের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী তার শপথ ভঙ্গ করেছেন। এই বক্তব্যে দেশের রাজনৈতিক সংকট আরো ঘনিভূত হবে। ’

অনুষ্ঠানে নগর বিএনপির সহ-সভাপতি আবু সুফিয়ান বলেন,‘চলমান আন্দোলনকে সহিংসতা যুদ্ধাপরাধীদের বিচার ঠেকানোর কথা বলে সরকার আন্দোলনকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার চেষ্টা করছে। কিন্তু আমাদের এ আন্দোলন গণতন্ত্র রক্ষা, মানুষের ভোটাধিকার ফিরিয়ে দেয়া এবং মৌলিক অধিকার রক্ষার আন্দোলন। একে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করা যাবে না। ’

নগর বিএনপি’র সহ-সভাপতি আবু সুফিয়ানের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য দেন বিএনপি’র কেন্দ্রীয় তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক সৈয়দ ওয়াহিদুল আলম, নগর বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী, সাবেক যুগ্ম সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুস সাত্তার, নগর জাসাসের সভাপতি কাজী আকবর, আহমেদুল আলম রাসেল, আবদুল মান্নান এবং কাউন্সিলর ও মহিলা দল নেত্রী মনোয়ারা বেগম মণি প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৫৫ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৯, ২০১৩
সম্পাদনা: তপন চক্রবর্তী, ব্যুরো এডিটর।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa