ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ আশ্বিন ১৪২৯, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

ব্যবসায়ীদের ক্ষতির হিস্যা ব্যাংককেও বহন করতে হবে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮০৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৯, ২০১৩
ব্যবসায়ীদের ক্ষতির হিস্যা ব্যাংককেও বহন করতে হবে

চট্টগ্রাম: চলমান রাজনৈতিক সহিংসতায় ব্যবসায়ীদের ক্ষতির হিস্যা ব্যাংককেও বহন করতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন চট্টগ্রাম চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম।

বিরাজমান অর্থনৈতিক স্থবিরতা কাটিয়ে উঠতে বাংলাদেশ ব্যাংক গভর্নর ড. আতিউর রহমান’র সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় এ মন্তব্য করেন চেম্বার সভাপতি।



মঙ্গলবার বিকেলে বাংলাদেশ ব্যাংক কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এ সভায় বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর এস কে সুর চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।

অর্থনৈতিক স্থবিরতা নিরসনে ৭ ডিসেম্বর চিটাগাং চেম্বার কর্তৃক উত্থাপিত দাবির কয়েকটি এরই মধ্যে বাস্তবায়ন করা হয়েছে বলে জানান ড. আতিউর রহমান।

তিনি বর্তমানে ফরেইন রিজার্ভ ১৮ বিলিয়ন’র উপর উল্লেখ করে চামড়া, সিরামিক ও প্লাষ্টিক সামগ্রী রপ্তানিকারকদের বিশেষ আর্থিক সুবিধা দেয়া, সেবার মান বৃদ্ধিতে গ্রাহকদের জন্য কাস্টমার ইন্টারেস্ট প্রোটেকশন সেন্টার (সিআইপিসি) স্থাপন এবং সরাসরি অভিযোগ শোনার জন্য হটলাইনের ব্যবস্থা করা হয়েছে বলেও জানান।

গভর্নর যেকোন পরিস্থিতিতে চট্টগ্রাম বন্দর সচল রাখা ও ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক নির্বিঘ্ন রাখার উপর গুরুত্বারোপ করেন এবং রপ্তানি উৎসাহিত করণের লক্ষ্যে এক্সপোর্টার ডেভেলপমেন্ট ফান্ডের মাধ্যমে ১ দশমিক ৫ শতাংশ সুদে ১ কোটি ডলার পর্যন্ত ঋণ প্রদানের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে বলে চেম্বার সভাপতিকে অবহিত করেন।

চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম বলেন, হরতাল অবরোধের কারণে এদেশের অর্থনীতি ও শিল্পোদ্যোক্তারা আর্থিক ক্ষতির শিকার। বর্তমান অচলাবস্থা বিবেচনা করে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের আপদকালীন সময়ের সুদ মওকূফের অনুরোধ জানান।  

তিনি চট্টগ্রাম বন্দর সচল রাখা ও ঢাকা-চট্টগ্রাম হাইওয়ে নির্বিঘ্ন রাখার ক্ষেত্রে প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট সকল পক্ষকে নিয়ে চেম্বারের ভূমিকার কথা গভর্নরকে অবহিত করেন।

বাংলাদেশ সময়:১৮০০ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৯, ২০১৩

সম্পাদনা: তপন চক্রবর্তী, ব্যুরো এডিটর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa