ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ২৬ রবিউস সানি ১৪৪৩

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

খুলে দেওয়া হয়েছে বহদ্দারহাট ফ্লাইওভার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২০৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩১, ২০১৩
খুলে দেওয়া হয়েছে বহদ্দারহাট ফ্লাইওভার

চট্টগ্রাম: উদ্বোধনের প্রায় আড়াই মাস পর যান চলাচলের জন্য খুলে দেওয়া হয়েছে চট্টগ্রাম নগরীর বহদ্দারহাটে নির্মিত এম এ মান্নান ফ্লাইওভার। মঙ্গলবার বিকাল থেকে এটি খুলে দেওয়া হয়।



গত ১২ অক্টোবর এ ফ্লাইওভারের উদ্বোধন করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

ফ্লাইওভারটির প্রকল্প পরিচালক মেজর হাসানুজ্জামান বাংলানিউজকে বলেন,‘উদ্বোধনের সময় ফ্লাইওভারের এক্সপানশন জয়েন্টের(সংযোগস্থল) কাজ বাকি ছিল। তাই উদ্বোধনের পর যান চলাচল বন্ধ রাখা হয়। মঙ্গলবার বিকেল থেকে সব ধরণের যান চলাচলের জন্য সেটি খুলে দেওয়া হয়েছে। ‘

দক্ষিণ চট্টগ্রামসহ কক্সবাজার-বান্দরবান এলাকার হাজার হাজার যাত্রী প্রতিদিন এ রুটে যাতায়াত করে। প্রতিদিন লেগে থাকে দীর্ঘ যানজট।

যানবাহনের বাড়তি চাপ সামলাতে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (চউক) নগরীর শুলকবহর থেকে বহাদ্দারহাট এক কিলোমিটার এলাকা পর্যন্ত এ উড়ালসড়ক নির্মাণের উদ্যোগ নেয়। ২০১০ সালের জানুয়ারিতে প্রধানমন্ত্রী এর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। ওই বছরের ডিসেম্বরে নির্মাণকাজ শুরু হয়। কাজ শেষ হওয়ার সম্ভাব্য সময় ছিল ২০১৩ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে। কিন্তু ২০১২ সালের নভেম্বরে গার্ডার ধসের ঘটনার কারণে নির্মাণকাজ প্রায় সাত মাস বন্ধ ছিল। ওই ঘটনায় ১৪ জন নিহত হন।

এরপর নির্মাণ কাজের তদারকির দায়িত্ব দেওয়া হয় সেনাবাহিনীকে। পরে বাস্তবায়নকাল ডিসেম্বর পর্যন্ত বাড়ানো হয়। চার দফায় বাড়ানো হয় প্রকল্প ব্যয়। প্রথমে ১০৬ কোটি ব্যয় ধরা হলেও ১ দশমিক ৩৭ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের ফ্লাইওভারটির নির্মাণে খরচ হয়েছে প্রায় ১৪৪ কোটি ১৮ লাখ টাকা।

বাংলাদেশ সময়: ২২০৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩১, ২০১৩
সম্পাদনা: তপন চক্রবর্তী, ব্যুরো এডিটর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa