ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ মাঘ ১৪২৮, ২৫ জানুয়ারি ২০২২, ২১ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

ইকোপার্কে আগুন

মামলা হয়নি, পার পেয়ে গেল ছাত্রলীগ-যুবলীগ কর্মীরা

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৪৩ ঘণ্টা, এপ্রিল ২২, ২০১৪
মামলা হয়নি, পার পেয়ে গেল ছাত্রলীগ-যুবলীগ কর্মীরা ছবি:ফাইল ফটো

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড উপজেলার ইকোপার্কে আগুন দেয়ার সঙ্গে জড়িত ছাত্রলীগ ও যুবলীগ কর্মীদের বিরুদ্ধে এ ঘটনায় কোন মামলা দায়ের করেনি পুলিশ কিংবা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। তাদের মঙ্গলবার ৫৪ ধারায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে হাজির করা হলে বিচারক তাদের জামিন দেন।



চট্টগ্রামের বিচারিক হাকিম মনজুর এলাহী তাদের জামিন মঞ্জুর করেন।

চট্টগ্রাম জেলা পুলিশের আদালত শাখার পরিদর্শক অনু মং মারমা বাংলানিউজকে বলেন, যেহেতু তাদের বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট কোন মামলা নেই কিংবা ধর্তব্য অপরাধের কোন অভিযোগও নেই, তাদের ৫৪ ধারায় চালান দেয়া হয়। তারা জামিনের আবেদন জানালে বিচারিক হাকিম মনজুর এলাহী তা মঞ্জুর করেন।

এর আগে সোমবার দুপুরে ছাত্রলীগ-যুবলীগের কর্মীরা দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ইকোপার্কের পার্শ্ববর্তী এলাকায় জায়গা দখল করতে যায়। সেখানে তারা ব্যর্থ হয়ে সীতাকুণ্ড ইকোপার্কে প্রবেশ করে। ইকোপার্কের অভ্যন্তরে তাণ্ডব চালিয়ে একপর্যায়ে সেখানে আগুন ধরিয়ে দেয়। আগুনে ইকোপার্কের ভেতরে থাকা দোকানপাট পুড়ে যায়। পরবর্তীতে আগুন ছড়িয়ে পড়ে জঙ্গলে।

খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা প্রায় তিনঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এসময় ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রসহ ২১ জনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। রাতে আটক ছাত্রলীগ-যুবলীগের নেতাকর্মীদের ছাড়িয়ে নিতে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা থানায় তদবির শুরু করেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সূত্র জানায়, আওয়ামী লীগের তদবিরের কারণে ইকো পার্কের স্থাপনা পুড়লেও বন বিভাগ এ ঘটনায় কোন মামলা দায়ের করেনি। এমনকি ইকো পার্ক কর্তৃপক্ষ কিংবা যেসব দোকানপাট পুড়েছে সেগুলোর মালিকরাও কোন মামলা করেননি। আর পুলিশ শুরু থেকেই ছাত্রলীগ-যুবলীগ নেতাকর্মীদের পক্ষে অবস্থান নিয়ে বিতর্কিত ভূমিকা পালন করে বলে অভিযোগ আছে।

সীতাকুণ্ড থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইফতেখার হাসান বাংলানিউজকে বলেন, পুলিশের তো এখানে কিছু করার নেই। বন বিভাগ কিংবা যাদের দোকান পুড়েছে তারা যদি মামলা দিত, তাহলে আমরা সেই মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে পাঠাতাম। কেউ মামলা না করায় আমরা ৫৪ ধারায় দিয়েছি।

বাংলাদেশ সময়: ২১২০ঘণ্টা, এপ্রিল ২২, ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa