ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ মাঘ ১৪২৮, ২৫ জানুয়ারি ২০২২, ২১ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়

জালিয়াতির মাধ্যমে পদোন্নতির চেষ্টা, শিক্ষক বহিষ্কার

বিপ্লব পার্থ, চবি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৪২ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৪, ২০১৪
জালিয়াতির মাধ্যমে পদোন্নতির চেষ্টা, শিক্ষক বহিষ্কার

চট্টগ্রাম: পদোন্নতির জন্য পরিকল্পনা কমিটির সদস্যদের স্বাক্ষর নকল করার অভিযোগে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের এক সহযোগী অধ্যাপককে বহিষ্কার করা হয়েছে।

বহিষ্কৃত ড. এস এম  রফিকুল আলম আরবী বিভাগের শিক্ষক।

তিনি ওই বিভাগের সভাপতির দায়িত্বও পালন করেছেন।

বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪৯২তম সিন্ডিকেট সভায় তাকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র জানায়, ড. এস এম রফিকুল আলম অধ্যাপক পদে পদোন্নতির জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার বরাবর আবেদন করেন। আবেদনের সঙ্গে তিনি বিভাগের প্ল্যানিং কমিটির সদস্যদের স্বাক্ষর সম্বলিত একটি সুপারিশনামাও পাঠান।

পরে খোঁজ নিয়ে দেখা যায়, প্ল্যানিং কমিটির সদস্যরা তার পদোন্নতির ব্যাপারে কোন সুপারিশ করেননি। তিনি কমিটির সদ্যদের স্বাক্ষর নকল করেছেন।

এছাড়া, পদোন্নতির জন্য ৫টি প্রবন্ধ ও ১টি বই নকল করার অভিযোগও উঠে তার বিরুদ্ধে।

এসব ঘটনায় দুটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছিল বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। দু’টি কমিটির মধ্যে একটিতে বিশ্ববিদ্যালয় উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী এবং অপরটিতে ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. খান তৌহিদ ওসমানকে প্রধান করা হয়েছিল।

দুটি কমিটিই স্বাক্ষর জাল এবং নকল প্রকাশনার বিষয়ে সত্যতা খুজে পাওয়ার পার বিশ্ববিদ্যালয় সিন্ডিকেট এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সদস্য এবং কলা ও মানবিক অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. ইমরান হোসেন।

তিনি বাংলানিউজকে বলেন, পদোন্নতির জন্য স্বাক্ষর জালিয়াতি এবং নকল প্রকাশনা জমা দেয়ার অভিযোগে আরবী বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. এস এম রফিকুল আলমকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময় : ২১৪০ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৪, ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa