ঢাকা, রবিবার, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৯ মে ২০২৪, ১০ জিলকদ ১৪৪৫

দিল্লি, কলকাতা, আগরতলা

ত্রিপুরার দুটি লোকসভা আসনেই বিজেপি জিতবে: মুখ্যমন্ত্রী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৩২ ঘণ্টা, মার্চ ২৯, ২০২৪
ত্রিপুরার দুটি লোকসভা আসনেই বিজেপি জিতবে: মুখ্যমন্ত্রী

আগরতলা(ত্রিপুরা): পশ্চিম ত্রিপুরা লোকসভা আসনের বিজেপি প্রার্থী বিপ্লব কুমার দেবের সমর্থনে শুক্রবার (২৯ মার্চ) জিরানীয়া এলাকায় এক মোটরসাইকেল র‍্যালি ও সভার আয়োজন করা হয়।  

এতে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী অধ্যাপক মানিক সাহাসহ অন্য নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

জিরানীয়া ব্রিজ থেকে মোটরসাইকেল র‍্যালি শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। এতে কয়েকশ মোটরসাইকেলের পাশাপাশি গাড়িও ছিল।  

এদিন আয়োজিত নির্বাচনী সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মানিক সাহা বলেন, বিজেপি ও জোট সঙ্গীরা মিলে যে চারশ আসনে জয়ের ডাক দিয়েছে, তার চেয়ে বেশি আসনে জয়ী হবে।

তিনি রাজ্যের বর্তমান পরিস্থিতি সম্পর্কে বলতে গিয়ে জানান, বিরোধীরা প্রায়ই অভিযোগ করে বলছেন, রাজ্যের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি এখন ভালো নয়। কিন্তু বাস্তব তথ্য অন্য কথা বলছে, দেশের ২৮ টি রাজ্যের মধ্যে রাজ্যের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি ভালোর দিক থেকে তৃতীয় স্থানে রয়েছে। জাতীয় স্তরের জরিপ এ কথা বলছে।  

নির্বাচনী পরিস্থিতি সম্পর্কে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, আগে রাজ্যের নির্বাচন মানেই ছিল রক্তপাত। কিন্তু ২০২৩ সালে ত্রিপুরা রাজ্যের নির্বাচন বিজেপি সরকার কোনো রক্তপাত ছাড়াই সফলভাবে করে দেখিয়েছে। সারা দেশের মধ্যে ত্রিপুরা রাজ্যের সামাজিক ভাতা সবচেয়ে বেশি। আগে মানুষ ৭০০ টাকা সামাজিক ভাতা পেতেন। বিজেপি সরকারর নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী তা দুই হাজার টাকা করেছে। দেশের অন্য কোনো রাজ্যে এত বেশি সামাজিক ভাতা দেওয়া হয় না।  

তিনি বলেন, রাজ্যের সাধারণ মানুষের সব সমস্যার সমাধান করতে চায় সরকার। তাই একের পর এক উন্নয়নমূলক কাজ করে যাচ্ছে।  প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি নারীদের কল্যাণে কাজ করছেন। রাজ্য সরকারি চাকরিতে ৩৩ আসন নারীদের জন্য সংরক্ষণ করেছে।  

এসব কারণে বর্তমান সরকারের প্রতি মানুষের দারুণ আস্থা রয়েছে এবং এবারের নির্বাচনে দুটি লোকসভা আসনে বিজেপি প্রার্থীদের বিপুল জয় হবে বলে দাবি করেন তিনি।  

বাংলাদেশ সময়: ১৬২৯ ঘণ্টা, মার্চ ২৮, ২০২৪
এসসিএন/আরএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।