ঢাকা, শনিবার, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৮ মে ২০২২, ২৬ শাওয়াল ১৪৪৩

দিল্লি, কলকাতা, আগরতলা

গরমের শুরুতেই ত্রিপুরার বাজারে বাড়ছে ​তরমুজের চাহিদা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৫৪ ঘণ্টা, মার্চ ২০, ২০২১
গরমের শুরুতেই ত্রিপুরার বাজারে বাড়ছে ​তরমুজের চাহিদা গরমের শুরুতেই ত্রিপুরার বাজারে বাড়ছে ​তরমুজের চাহিদা। ছবি: বাংলানিউজ

আগরতলা (ত্রিপুরা): গ্রীষ্ম ঋতু আসেনি এখনো তবে ত্রিপুরা জুড়ে গরমের দাপট শুরু হয়ে গিয়েছে। গরমের মৌসুমী ফল তরমুজ ইতোমধ্যে বাজারে চলে এসেছে।

দাম তুলনামূলক সামান্য বেশি হলেও ব্যাপক হারে বিক্রি হচ্ছে বলে ​জানালেন ব্যবসায়ীরা।

শীত ঋতুকে বিদায় জানিয়ে ঋতুরাজ বসন্তের আগমন ঘটেছে বেশ কিছুদিন হলো। ঋতু পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে প্রকৃতিতে তাপমাত্রার পারদ ঊর্ধ্বমুখী।

শনিবার (২০ মার্চ) আগরতলায় তাপমাত্রার পারদ ৩৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসে পৌঁছে গিয়েছে। আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস বলছে আগামী দুই দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রার পারদ এক লাফে ৩৯ ডিগ্রি সেলসিয়াসে পৌঁছবে। তীব্র গরম থেকে বাঁচতে মানুষ ঠাণ্ডা জাতীয় খাবারের খোঁজ করেন। এই মৌসুমের অন্যতম একটি জনপ্রিয় রসালো ফল হচ্ছে তরমুজ।

আগরতলার একজন খুচরা ফল ব্যবসায়ী সঞ্জয় পাল বাংলানিউজকে জানান, বর্তমানে বাজারে যে তরমুজ পাওয়া যাচ্ছে এগুলি দক্ষিণের রাজ্য বেঙ্গালুরু, কোচবিহার, গৌহাটি ইত্যাদি জায়গা থেকে এসেছে।

তিনি আরও জানান, আগে যেখানে ত্রিপুরার দক্ষিণ জেলার বিলোনিয়া, সাব্রুম ইত্যাদি জায়গা থেকে তরমুজ আসতো। কিন্তু গত দুই বছর ধরে রাজ্যে তরমুজের উৎপাদন তুলনামূলক কম হচ্ছে। তাই বহিরাগতদের উপরই নির্ভর করতে হচ্ছে রাজ্যবাসীকে। প্রতি কেজি তরমুজ ৪০ রুপি করে বিক্রি হচ্ছে মৌসুমের শুরু তাই দাম তুলনামূলক বেশি। তবে আর কয়েক দিনের মধ্যে দাম আরও কমে যাবে বলেও জানান তিনি।

রামু মণ্ডল নামে অপর এক ব্যবসায়ী জানান, অন্যান্য বছরের তুলনায় এ বছর বাজারে পর্যাপ্ত পরিমাণে তরমুজ নেই।

রাজ্যের চাষিদের উৎপাদিত তরমুজ বাজারে এলে দাম আরও কমে যাবে এমনটাই আশা ব্যবসায়ী ও ক্রেতাদের।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৫৪ ঘণ্টা, মার্চ ২০, ২০২১
এসসিএন/কেএআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa