ঢাকা, সোমবার, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০, ০৪ মার্চ ২০২৪, ২২ শাবান ১৪৪৫

অর্থনীতি-ব্যবসা

রোজা উপলক্ষে ৯০ টাকায় চিনি ও ৪৫ টাকায় চাল বিক্রি করছে দেশবন্ধু গ্রুপ

বিজনেস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮১৪ ঘণ্টা, মার্চ ১৯, ২০২৩
রোজা উপলক্ষে ৯০ টাকায় চিনি ও ৪৫ টাকায় চাল বিক্রি করছে দেশবন্ধু গ্রুপ

ঢাকা: আসন্ন রমজান মাস উপলক্ষে ভর্তুকি দিয়ে মাত্র ৯০ টাকা কেজিতে চিনি ও ৪৫ টাকা কেজিতে চাল বিক্রি শুরু করেছে দেশের শীর্ষ স্থানীয় শিল্প প্রতিষ্ঠান দেশবন্ধু গ্রুপ। দেশবন্ধু গ্রুপ দেশের সাধারণ মানুষের কথা চিন্তা করে সরকার নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে কেজিতে ১৭ টাকা কমে চিনি ও কেজিতে আট থেকে ১০ টাকা কম মূল্যে চাল বিক্রি শুরু করলো।

যা চলবে পুরো রজমান মাস।  

রোববার (১৯ মার্চ) সাড়ে ১০টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ভর্তুকি মূল্যে নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যপণ্য বিক্রির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।  

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) এ এইচ এম সফিকুজ্জামান, বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির সভাপতি হেলাল উদ্দিন, দেশবন্ধু গ্রুপের চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তাফা, উপদেষ্টা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) সারোয়ার জাহান তালুকদার, দৈনিক আজকালের খবরের সম্পাদক ফারুক আহমেদ তালুকদার।  

এছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন দেশবন্ধু গ্রুপের সিওও ইদ্রিস আলী, জিএম অপারেশন রাকিকুল ইসলাম, সিনিয়র ম্যানেজার মঞ্জুরুল হোসেন ও মো. শাহ বদরু রিয়াজসহ দেশবন্ধু গ্রুপের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেন, রমজান মাসে নিত্যপণ্যের দাম স্বাভাবিক রাখতে নিরলসভাবে কাজ করছে সরকার। সম্প্রতি বেসরকারি উদ্যোক্তদেরও সরকারের এ কাজে অংশ নেওয়ার জন্য আহ্বান জানানো হয়। সরকারের সেই আহ্বানে সাড়া দিয়ে এগিয়ে এসেছে দেশবন্ধু গ্রুপ। নিম্ন মধ্যবিত্ত মানুষের জন্য ভর্তুকি মূল্যে চিনি, চাল ও জুসের ব্যবস্থা করার জন্য ধন্যবাদ জানাই দেশবন্ধু গ্রুপকে।  

তিনি বলেন, দেশবন্ধু গ্রুপের মতো দেশের অন্যান্য বৃহত্তর শিল্প গ্রুপগুলো যদি রমজান মাসে এগিয়ে আসে, তাহলে সাধারণ মানুষ স্বাচ্ছন্দ্যে রোজা রাখতে পারবে।

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) সফিকুজ্জামান বলেন, নিত্যপণ্যের মূল্য ঊর্ধ্বমুখী হওয়ায় দেশের এক কোটিরও বেশি মানুষকে সাশ্রয়ীমূল্যে নিত্যপণ্য পৌঁছে দিচ্ছে টেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি)। এর মাধ্যমে দেশের বড় একটা মানুষ উপকারভোগী হচ্ছেন ঠিকই। তারপরও অনেক মানুষ সমস্যায় রয়েছে। তাদের কথা চিন্তা করে সরকারকে সহায়তার জন্য বেসরকারি শিল্পপ্রতিষ্ঠানকে আহ্বান জানানো হয়। তারই অংশ হিসেবে সর্বপ্রথম দেশবন্ধু গ্রুপ সাড়া দিয়েছে। নিম্ন ও মধ্যবিত্ত মানুষের জন্য ভর্তুকি মূল্যে চিনি, চাল ও জুসের ব্যবস্থা করেছে। সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়ানো জন্য ও সরকারের সহায়তায় এগিয়ে আসার জন্য দেশবন্ধু গ্রুপের চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফাসহ সংশ্লিষ্টদের ধন্যবাদ জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে দেশবন্ধু গ্রুপের চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা বলেন, করোনা ভাইরাসের পর রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে শুধু বাংলাদেশ নয়, বিশ্ব অর্থনীতি দুর্বল হয়ে পড়েছে। তবে অন্যান্য দেশের তুলনায় বাংলাদেশের অবস্থা কিছুটা হলেও ভালো। কারণ বর্তমান সরকার সঠিক সময়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

সরকার দেশের এক কোটি মানুষকে সাশ্রয়ীমূল্যে ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমে নিত্যপণ্য পৌঁছে দিচ্ছে টিসিবি। তবে রমজান মাসকে সামনে রেখে অনেক মানুষ সমস্যায় থাকতে পারে চিন্তা করে এবং ব্যবসায়িক উদ্দেশ্য নয়, সরকারি সংস্থা টিসিবির আদলে দেশ ও দেশের মানুষের সেবায় এগিয়ে এসেছে দেশ ও জনগণের বন্ধু নামের এ শিল্প গ্রুপটি।

তিনি বলেন, দেশবন্ধু গ্রুপ সব সময় দেশের সাধারণ মানুষের কথা চিন্তা করে। তারই অংশ হিসেবে রমজান মাসকে সামনে রেখে গতবারের মতো এবারও নিম্ন আয়ের মানুষের জন্য চাল, চিনিসহ বেশ কিছু পণ্য ভর্তুকি মূল্যে বিক্রির আয়োজন করা হয়েছে। যা পুরো রমজান মাসজুড়ে চলবে।

তিনি আরও বলেন, আমার বিশ্বাস দেশবন্ধু গ্রুপের এ স্বল্প আয়োজন কিছুটা হলেও দেশবাসীর উপকার হবে।

এদিকে চিনি ও চাল ছাড়াও দেশবন্ধুর ম্যাংগো ড্রিংক ৫০০ মিলি ১০ টাকা কমে ৩০ টাকা, এক লিটারে ১০ টাকা কমে ৬০ টাকা, দেশবন্ধু অরেঞ্জ ড্রিংক ৫০০ মিলি ৫ টাকা কমে ২৫ টাকা, অরেঞ্জ ড্রিংক লিটারে ১০ টাকা কমিয়ে ৪০ টাকা বিক্রি করছে। অপর দিকে ফ্রেন্ডস আপ ৫০০ মিলি ৫ টাকা কমিয়ে ২৫ টাকা, ফ্রেন্ডসআপ এক লিটার ১০ টাকা কমে ৪০ টাকা, ফ্রেন্ড কোলা ৫০০ মিলি ৫ টাকা কমিয়ে ২৫ টাকা এবং ফ্রেন্ডস কোলা এক লিটার ১০ টাকা কমিয়ে ৪০ টাকায় বিক্রি শুরু হয়েছে। প্রতিদিন পাঁচটি স্থানে ট্রাক প্রতি ১০ টন পণ্য যেমন- চিনি, চাল ও বেভারেজ (কোমল পানীয় ও জুস) বিক্রি করবে। সরকারি ছুটির দিন বাদে প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে বাংলাদেশ ব্যাংকের সামনে, জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে, নিউমার্কেট এলাকায়, কারওয়ান বাজার এবং কলমিলতা মার্কেট (বিজয়  সরণি) এলাকায় এসব পণ্য বিক্রি হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮১৩ ঘণ্টা, মার্চ ১৯, ২০২৩
আরআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।