ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ০৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

অর্থনীতি-ব্যবসা

বাংলাদেশের গ্যাসে ভারতে বিদ্যুৎ: ভারতীয় মিডিয়ার এ দাবি নাকচ জ্বালানি উপদেষ্টার

হাসান আজাদ, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৮০৫ ঘণ্টা, আগস্ট ২৪, ২০১০
বাংলাদেশের গ্যাসে ভারতে বিদ্যুৎ: ভারতীয় মিডিয়ার এ দাবি নাকচ জ্বালানি উপদেষ্টার

ঢাকা: বাংলাদেশের গ্যাস দিয়ে ভারতে বিদ্যুৎ উৎপাদন হবে ভারতীয় মিডিয়ার এমন দাবি নাকচ করে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর জ্বালানি বিষয়ক উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী।

মঙ্গলবার বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম.বিডি’র সঙ্গে আলাপকালে জ্বালানি উপদেষ্টা বিস্ময় প্রকাশ করে বলেন, বাংলাদেশ থেকে গ্যাস সরবরাহ করা হবে, তা দিয়ে ভারতে বিদ্যুৎ উৎপাদন হবে এটা কিভাবে সম্ভব!’

তিনি বলেন, যদিও সংবাদটি আমি দেখিনি, তারপরেও বাংলাদেশে গ্যাসে অন্য দেশে বিদ্যুৎ উৎপাদিত হবে এটা হতে পারে না।

যেখানে আমাদেরই গ্যাসের সঙ্কট রয়েছে।  

২১ আগস্ট ভারতের অনলাইন নিউজ পোর্টাল সিফি ডট কম (sify.com) ও ডেইলি ইন্ডিয়া ডট কম (Daily India.com) এ ‘ওএনজিসি সেট আপ ফার্স্ট পাওয়ার প্রজেক্ট টু রান অন বাংলাদেশ গ্যাস’ শিরোনামে প্রকাশিত এক সংবাদে ভারতের রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান দি অয়েল অ্যান্ড ন্যাচারাল গ্যাস করপোরেশন লিমিটেড (ওএনজিসি)-এর বরাত দিয়ে বলা হয়, ত্রিপুরা রাজ্যের রাজধানী আগরতলা থেকে ৬০ কিলোমিটার দূরে পলাতনায় এ প্রকল্পের কাজ শুরু হয়েছে। এ প্রকল্পে ব্যয় হচ্ছে ৯ হাজার কোটি ভারতয়ি রুপি।

সংবাদে আরও বলা হয়, ভারতের রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান ওএসজিসি এই প্রকল্পের কাজ করছে। এরই মধ্যে ৭২৬ মেগাওয়াট ক্ষমতাসম্পন্ন বিদ্যুৎকেন্দ্রের প্রথম ইউনিটের কাজ শেষ হয়ে গেছে। এই পুরো প্রকল্প চলবে বাংলাদেশের গ্যাসে।

ওএসজিসির চেয়ারম্যান আর এস শর্মার উদ্ধৃতি দিয়ে সংবাদে আরও বলা হয়, পলাতনা বিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে ২০১১ সালের ডিসেম্বর মাস থেকে ভারতবাসী বিদ্যুৎ পাবে। আর পুরো প্রকল্প চালু হবে ২০১২ সালের মার্চ মাসের মধ্যে। এই প্রকল্প সচল করতে এরই মধ্যে প্রকল্প এলাকায় গ্যাসলাইন বসানো হয়েছে।

তবে এ ধরনের সকল সম্ভাবনাই নাকচ করে দিয়েছেন তৌফিক-ই-এলাহী চৌধুরী।

বাংলাদেশ স্থানীয় সময় : ১৮৫৮, ২৪ আগস্ট, ২০১০।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa