ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ কার্তিক ১৪২৭, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

অর্থনীতি-ব্যবসা

৭ মাস পর খুললো তাহিরপুরের তিন বন্দর, চুনাপাথর আমদানি শুরু

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৫৪ ঘণ্টা, অক্টোবর ১, ২০২০
৭ মাস পর খুললো তাহিরপুরের তিন বন্দর, চুনাপাথর আমদানি শুরু বাগলী শুল্ক বন্দর। ছবি: বাংলানিউজ

সুনামগঞ্জ: প্রায় সাত মাস বন্ধ থাকার পর খুললো সুনামগঞ্জ তাহিরপুর উপজেলা সীমান্তের তিনটি শুল্ক বন্দর বড়ছড়া, চারাগাঁও ও বাগলী। এর মধ্যে বাগলী শুল্ক বন্দর দিয়ে চুনাপাথর আমদানি কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

 

বৃহস্পতিবার (০১ অক্টোবর) দুপুর থেকে বাগলী শুল্ক বন্দর দিয়ে চুনাপাথর আমদানি শুরু হয়েছে। তবে অন্য ওই দুই বন্দর বড়ছড়া ও চারাগাঁও দিয়ে বন্ধ আছে কয়লা আমদানি কার্যক্রম।

এর আগে করোনা পরিস্থিতির কারণে লকডাউন পরবর্তী সময়গুলোতে কয়লা ও চুনাপাথর আমদানি বন্ধ হওয়ায় বিপাকে পড়েন কয়েক হাজার শ্রমজীবী লোকজন। বিপাকে পড়েন আমদানিকারকরাও। প্রায় সাত মাস ফের চুনাপাথর আমদানি শুরু হওয়ায় এ কাজে নির্ভরশীল শ্রমজীবী ও আমদানিকারকদের মধ্যে স্বস্তি ফিরেছে।  

বাগলী চুনাপাথর ও কয়লা আমদানিকারক সমিতির সভাপতি মো. খালেক মোশাররফ বাংলানিউজকে জানান, কয়লা ও চুনাপাথর আমাদানি বন্ধ থাকায় শ্রমজীবী লোকজনের পাশাপাশি বিপাকে পড়েন আমদানিকারকরাও। বৃহস্পতিবার চুনাপাথর আমদানি শুরু হওয়ায় কিছুটা স্বস্তি ফিরে এসেছে। আজ প্রথম দিনই ৬৩ মেট্রিক টন চুনাপাথর আমদানি হয়েছে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- বাগলী চুনাপাথর ও কয়লা আমদানিকারক সমিতির সা. সম্পাদক ডা. মনির, সহ-সভাপতি মো. উমর আলী, কার্যকরী কমিটির সদস্য শেখ মোস্তফা, লিটন মিয়া, আলী হোসেন প্রমুখ।

এ বিষয়ে সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা মো. দুলাল বেগ বাংলানিউজকে জানান, বাগলী শুল্ক বন্দর দিয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বৃহস্পতিবার থেকে চুনাপাথর আমদানি শুরু হয়েছে। আইনি জটিলতা না থাকলে এখন থেকে প্রতিদিন এলসি (আমদানির ঋণপত্র) করা চুনাপাথর আমদানি কার্যক্রম চালু থাকবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৫০ ঘণ্টা, অক্টোবর ০১, ২০২০
এসআরএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa