ঢাকা, বুধবার, ৮ ফাল্গুন ১৪৩০, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১০ শাবান ১৪৪৫

শিক্ষা

গণহত্যা-স্বাধীনতা দিবসে ঢাবির কর্মসূচিতে যা থাকছে

ইউনিভার্সিটি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৩৪ ঘণ্টা, মার্চ ২৩, ২০২৩
গণহত্যা-স্বাধীনতা দিবসে ঢাবির কর্মসূচিতে যা থাকছে

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়: যথাযোগ্য মর্যাদায় ২৫ মার্চ গণহত্যা দিবস ও ২৬ মার্চ স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে বিস্তারিত কর্মসূচি গ্রহণ করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

বৃহস্পতিবার (২৩ মার্চ) বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দফতর থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

গণহত্যা দিবসের কর্মসূচি: ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ কালরাত্রি স্মরণে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির যৌথ উদ্যোগে ২৫ মার্চ (শনিবার) ‘গণহত্যা দিবস’ পালন করা হবে। সন্ধ্যা ৭টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্মৃতি চিরন্তন চত্বরে মোমবাতি প্রজ্বলন, সন্ধ্যা ৭ টা ৫ মিনিটে ডকুমেন্টারি প্রদর্শন এবং সন্ধ্যা ৭ টা ২০ মিনিটে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে।  

উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করবেন।  

অনুষ্ঠানে প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ, প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল এবং কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক মমতাজ উদ্দিন আহমেদ বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন। এছাড়া, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. নিজামুল হক ভূইয়া ও সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. জিনাত হুদা বক্তব্য রাখবেন।

রাত ১০টা ৩০ মিনিটে থেকে ১০টা ৩১ মিনিট পর্যন্ত ১ মিনিটের জন্য জরুরি স্থাপনা ছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের সব জায়গায় ‘ব্ল্যাক-আউট’ কর্মসূচি পালন করা হবে।

দিবসটি উপলক্ষে বাদ জোহর মসজিদুল জামিয়াসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক এলাকার মসজিদসমূহে এবং অন্যান্য ধর্মীয় উপাসনালয়ে শহীদদের রুহের মাগফেরাত/শান্তি কামনায় বিশেষ মোনাজাত/প্রার্থনা করা হবে।

মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসের কর্মসূচি: মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদ্যাপন উপলক্ষ্যে ২৬ মার্চ  (রোববার) সকাল ৬টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সব কেন্দ্রীয় ভবন ও আবাসিক হলে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, সকাল ৬টায় স্মৃতি চিরন্তন চত্বরে জমায়েত এবং সকাল ৬টা ১৫মিনিটে জাতীয় স্মৃতিসৌধের উদ্দেশে যাত্রা ও পুষ্পস্তবক অর্পণ।

দিবসটি উপলক্ষে বাদ জোহর মসজিদুল জামিয়ায় বিশেষ মোনাজাত এবং বিশ্ববিদ্যালয় এলাকার অন্যান্য ধর্মীয় উপাসনালয়ে শহীদদের রুহের মাগফেরাত/শান্তি কামনায় বিশেষ মোনাজাত/প্রার্থনা করা হবে। এছাড়া কার্জন হল ও টিএসসিতে আলোকসজ্জা করা হবে এবং বিশ্ববিদ্যালয় কর্মচারীদের সন্তানদের মধ্যে মিষ্টি বিতরণ করা হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৩৩ ঘণ্টা, মার্চ ২৩, ২০২৩
এসকেবি/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।