ঢাকা, রবিবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৯ মে ২০২৪, ১০ জিলকদ ১৪৪৫

শিক্ষা

বিশেষ সিনেট অধিবেশনে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২১০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৭, ২০১৪
বিশেষ সিনেট অধিবেশনে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস থেকে: বিশেষ সিনেট অধিবেশনে বসেছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়।

শনিবার (২৭ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের গাজীপুর ক্যাম্পাসের সিনেট হলে এই অধিবেশন শুরু হয়েছে।



অধিভুক্ত কলেজ ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার সার্বিক উন্নয়নের বিষয়ে একক আলোচ্যসূচির ওপর আয়োজিত বিশেষ সিনেট অধিবেশনে সভাপতিত্ব করছেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন-অর-রশিদ।

অধিবেশনে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য, সিনেট সদস্যবৃন্দদের মধ্যে সরকারি কর্মকমিশনের সদস্য ড. শরিফ এনামুল কবির, রংপুর, সিলেট ও বরিশাল বিভাগীয় কমিশনার, বিভিন্ন শিক্ষা বোর্ড’র চেয়ারম্যানবৃন্দ, সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ ও অধ্যাপকগণ অংশ নিয়েছেন।

সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর অধীনে সংশ্লিষ্ট জেলার সরকারি কলেজগুলো পরিচালনায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণার মধ্যে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় সেশনজটমুক্ত করতে বিশেষ সিনেট অধিবেশন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

বিশেষ সিনেট অধিবেশনের শুরুতে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য ড. হারুন-অর-রশিদ এই বিশ্ববিদ্যালয়কে গতিশীল করার নানা উদ্যোগের কথা তুলে ধরেন।
 
তিনি বলেন, এখন থেকে বিশ্ববিদ্যালয় হবে সেশনজটমুক্ত। এখন থেকে যারা ভর্তি হবে তাদের কোনো সেশনজট থাকবে না। তিন থেকে সর্বোচ্চ সাড়ে তিন মাসের মধ্যে ফল প্রকাশ করা হবে।

বর্তমানে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ২ হাজার ১৫৪টি কলেজে ২১ লাখেরও বেশি শিক্ষার্থী রয়েছে। শিক্ষক রয়েছে ৬০ হাজার।

সম্প্রতি শিক্ষা মন্ত্রণালয় পরিদর্শনকালে প্রধানমন্ত্রী জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে কলেজগুলো সংশ্লিষ্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভূক্তের কথা জানান।

এরপর ঢাকায় সংবাদ সম্মেলন, সরকারি কলেজের অধ্যক্ষদের নিয়ে আলোচনা এবং সর্বশেষ ছয় মাসের ব্যবধানে এই সিনেট অধিবেশন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

জাতীয় সংগীত, শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধার মধ্য দিয়ে শুরু হয় সিনেট অধিবেশন।

বাংলাদেশ সময়: ১২১০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৭, ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।