ঢাকা, রবিবার, ২৮ চৈত্র ১৪২৭, ১১ এপ্রিল ২০২১, ২৭ শাবান ১৪৪২

শিক্ষা

দ্বিতীয় দিনে ববি শিক্ষার্থীদের অবস্থান কর্মসূচি, হঠাৎ সড়ক অবরোধ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫১২ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২১
দ্বিতীয় দিনে ববি শিক্ষার্থীদের অবস্থান কর্মসূচি, হঠাৎ সড়ক অবরোধ অবস্থান কর্মসূচি/ ছবি: বাংলানিউজ

বরিশাল: কখনো অবস্থান কর্মসূচি, কখনো সড়ক অবরোধ করে দ্বিতীয় দিনের মতো কর্মসূচি পালন করছে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের নিচতলায় অবস্থান কর্মসূচি পালন শুরু করে তারা।

 

এর কিছুক্ষণপর হঠাৎ করেই ইট ফেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনের বরিশাল-পটুয়াখালী মহাসড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীরা। শিক্ষকদের হস্তক্ষেপে যদিও আধঘণ্টার মধ্যেই সড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।  

শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, আজকে সকালে অবস্থান কর্মসূচি শুরু করার পর তারা জানতে পারেন তাদের দাবিগুলো বাস্তবায়নে ৭ দিনের সময় নেওয়া হয়েছে বলে উপাচার্য বিভিন্ন স্থানে বলছেন। তবে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের নেতারা বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) ৪৮ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দিয়েছিলেন তাদের ৩ দফা দাবি বাস্তবায়নের জন্য। আর এ নিয়ে সকালে ক্ষোভের সৃষ্টি হলে সড়ক অবরোধ করতে চায় আন্দোলনরতরা। পরে যদিও সিদ্ধান্ত আসে ৪৮ ঘণ্টা সময় শেষ না হওয়ার আগে সড়ক অবরোধের মতো কর্মসূচি থেকে বিরত থাকার। পরে শিক্ষার্থীরা আবার ক্যাম্পাসে ফিরে যায় এবং প্রশাসনিক ভবনের নিচে ৬ দফা স্তম্ভের সম্মুখে গিয়ে অবস্থান নেয়।

এদিকে উপাচার্য বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) ১০ ঘণ্টা পর সড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক হওয়ার পরে জানিয়েছিলেন, দ্বিতীয় দফার বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী শিক্ষার্থীদের তিনদফা দাবি বাস্তবায়নের ওপর গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। এজন্য ৭ দিনের সময় নেওয়া হলেও যত দ্রুত সম্ভব শিক্ষার্থীদের দাবিগুলো বাস্তবায়ন করা হবে।

শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনা ন্যাক্কারজনক জানিয়ে তিনি বলেন, হামলারকারীদের বিচারের আওতায় আনার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদেরও নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হবে।  

এদিকে আল্টিমেটামের মধ্যে বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) নতুন করে কর্মসূচি নিয়ে বিপাকে পড়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।  

মঙ্গলবার দুপুরে ব‌রিশাল বিশ্ববিদ্যাল‌য়ের অর্থ‌নী‌তি বিভাগের শিক্ষার্থী তৌ‌ফিকুল সজল ও ফারজানা আক্তার মে‌মি নিজ বা‌ড়ি খুলনায় যাওয়ার জন্য রুপাতলীস্থ বিআর‌টি‌সি কাউন্টারে যায়। সেখানে কাউন্টার স্টাফ র‌ফিক তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে কথাকাটাকা‌টির জের ধরে সজলকে মারধর ও মে‌মিকে লা‌ঞ্চিত করে। এর প্রতিবাদে শিক্ষার্থীরা সড়ক অবরোধ করে এবং র‌ফিককে গ্রেফতা‌রের দা‌বি জানায়। পু‌লিশ ১ ঘণ্টার মধ্যে র‌ফিককে গ্রেফতার করলে শিক্ষার্থীরা সড়ক অবরোধ তুলে নেয়। পরে মঙ্গলবার গভীররাতে রুপাতলী এলাকায় শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন মেসে গিয়ে হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা। এতে ১৫ জন শিক্ষার্থী আহত হয়। এদিকে রাতের এ হামলার ঘটনার প্রতিবাদে বুধবার সকাল থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনের বরিশাল-পটুয়াখালী মহাসড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীরা। বিশ্ববিদ্যালয় ও স্থানীয় প্রশাসনের সাথে দুইদফার বৈঠক শেষে ১০ ঘণ্টা পর ৪৮ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দিয়ে শিক্ষার্থীরা সড়ক অবরোধ কর্মসূচি স্থগিত করে বিকেল ৫ টায়।

এদিকে শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনায় এখনো কোনো মামলা হয়নি, তবে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) একটি মামলা করবে বলে জানা গেছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৫১২ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২১
এমএস/এইচএডি/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa