ঢাকা, রবিবার, ২৮ চৈত্র ১৪২৭, ১১ এপ্রিল ২০২১, ২৭ শাবান ১৪৪২

শিক্ষা

পাবিপ্রবি ক্যাম্পাসে ৫২ ফিট উচ্চতার শহীদ মিনার উদ্বোধন

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২৪ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২০, ২০২১
পাবিপ্রবি ক্যাম্পাসে ৫২ ফিট উচ্চতার শহীদ মিনার উদ্বোধন পাবিপ্রবি ক্যাম্পাসে ৫২ ফিট উচ্চতার শহীদ মিনার উদ্বোধন। ছবি: বাংলানিউজ

পাবনা: ভাষার মাসে সকল ভাষা শহীদ স্মরণে পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে উদ্বোধন হলো ৫২ ফিট উচ্চতা বিশিষ্ট দৃষ্টিনন্দন শহীদ মিনারের।

শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে ইতিহাস ভিত্তিক এই নবনির্মিত এই শহীদ মিনারের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করে পাবনা সদর-৫ আসনের সংসদ সদস্য গোলাম ফারুক পিন্স।

 

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এম রোস্তম আলী। এসময় উপস্থিত ছিলেন কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ার খসরু পারভেজ, প্রক্টর ড. প্রীতম কুমার দাস প্রমুখ।

বিশ্ববিদ্যালয়ে সাধারণ শিক্ষার্থীদের দীর্ঘদিনের দাবিতে প্রায় অর্ধকোটি টাকা ব্যয়ে নির্মাণ করা হয়েছে এই শহীদ মিনারটি। গত বছরের ২১ ফেব্রুয়ারিতে ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন করা হয়েছিলো এই শহীদ মিনারের।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বলেন, পাবনা জেলায় বিগত দুই বছর আগে প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার স্থাপন করার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। এখানেও শহীদ মিনার ছিলো তবে সেটি দূর্বল ছিলো। আমরা শুধু মিনার তৈরি করার মধ্যে সীমাবব্ধ না থেকে ভাষার মর্যাদায় সঠিক চর্চা করতে হবে। মন থেকে ভাষার প্রতি, মুক্তিযুদ্ধের প্রতি, ভাষা শহীদদের প্রতি সম্মান প্রর্দশন করতে হবে। বাংলা ভাষা মুক্তিযুদ্ধ আর বঙ্গবন্ধুকে যারা অসম্মান করে তারা এই দেশকে ভালোবাসে না। তারাই মিনার নিয়ে, বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নিয়ে বাজে কথা বলে। তাই সকলকে এক সঙ্গে কাজ করতে হবে। সকল অপশক্তিকে প্রতিহত করতে হলে সকল স্থানে বাংলা ভাষার ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বলেন, এই বিশ্ববিদ্যালয়ে স্থায়ী কোন শহীদ মিনার ছিলো না। আমি এই বিশ্ববিদ্যালয়ে দায়িত্ব নেওয়ার পরে সাধারণ শিক্ষার্থীদের দাবির আলোকে বলেছিলাম খুব দ্রুত ক্যাম্পাসে স্থায়ী কেন্দ্রিয় শহীদ মিনার নির্মাণ করা হবে। বিশ্ববিদ্যালয় উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় ভাষা শহীদদের স্মরণে এই শহীদ মিনার নির্মাণ করা হয়েছে। এর মাধ্যমে শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের মধ্যে বাংলাভাষার চেতনা আরও ছড়িয়ে পড়বে বলে আমি মনে করছি।

অনুষ্ঠানে এই নব নির্মিত দৃষ্টিনন্দন শহীদ মিনার এর নকশাকার স্থাপত্য বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী মাহবুব হাসান ত্বহা উপস্থিত ছিলেন।

বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয়ে ৪৮০ কোটি টাকার উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ চলমান। উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় ৫৪ লাখ টাকা ব্যয়ে এই শহীদ মিনার নির্মাণ করা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ২০২৩ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২০, ২০২১
কেএআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa