ঢাকা, রবিবার, ২৮ চৈত্র ১৪২৭, ১১ এপ্রিল ২০২১, ২৭ শাবান ১৪৪২

শিক্ষা

হল খোলার দাবিতে ভিসির বাসভবনের সামনে ইবি শিক্ষার্থীদের অবস্থান

ইবি করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৩২ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২১
হল খোলার দাবিতে ভিসির বাসভবনের সামনে ইবি শিক্ষার্থীদের অবস্থান ভিসির বাসভবনের সামনে শিক্ষার্থীদের অবস্থান। ছবি: বাংলানিউজ

ইবি: আবাসিক হল খোলার দাবিতে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) উপাচার্যের বাসবভনের সামনে অবস্থান নিয়েছে শিক্ষার্থীরা। রোববার (২১ ফেব্রুয়ারি) সকাল পৌনে ১১টা থেকে তারা সেখানে অবস্থান নেন।

 

বিশ্ববিদ্যালয় প্রসাশনের পক্ষ থেকে হল খোলার সিদ্ধান্ত না আসা পর্যন্ত তারা সেখানে অবস্থান করবেন বলে জানান শিক্ষার্থীরা।

এর আগে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে হল খোলার দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেন শিক্ষার্থীরা। বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে তারা উপাচার্যের বাসভবনের সামনে অবস্থান নেন।

শিক্ষার্থীরা বলেন, সম্প্রতি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ওপর স্থানীয়দের নজিরবিহীন হামলা চলছে। এমতাবস্থায় আমরা মেসে অনিরাপদ মনে করছি। বিশ্ববিদ্যালয়ের সব কাজ স্বাভাবিক চলছে। শিক্ষক কর্মকর্তারা তাদের নিজ নিজ কোয়ার্টারে অবস্থান করছেন তাহলে আমাদের হল কেনো বন্ধ থাকবে।

পরে বেলা সাড়ে ১২টার দিকে আন্দোনলকারীদের মধ্যে থেকে পাঁচ জন শিক্ষার্থীর সঙ্গে বসার আহ্বান জানান বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. শেখ আব্দুস সালাম। উপাচার্যের আহ্বানে পাঁচ জন শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।

সাক্ষাতকালে শিক্ষার্থীরা তাদের যৌক্তিক দাবিগুলো তুলে ধরেন। শিক্ষার্থীদের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে উপাচার্য বলেন, যখন দেখি বিশ্ববিদ্যালয়ের হল, ল্যাব, শ্রেণীকক্ষগুলো ফাঁকা পড়ে আছে অন্যদিকে শিক্ষার্থীরা রাস্তায় রাস্তায় অবস্থান করছে বিষয়গুলো আমাকে ভীষণ পীড়া দেয়। যদি অবস্থান থাকতো তাহলে আমিও শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আন্দোলনে যোগ দিতাম। আমি তাদের আন্দোলনের সঙ্গে একমত।

উপাচার্য আরো বলেন, আমরা চাইলেই হল খোলার ঘোষণা দিতে পারছি না। এ সিদ্ধান্তটা আমাদের হাতে নাই। এ সপ্তাহের শেষে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে আমাদের মিটিং আছে। সেখানে তোমাদের এ যৌক্তিক দাবিগুলো সরকারকে জানাবো। যাতে করে সরকার খুব তাড়াতাড়ি আবাসিক হলগুলো খুলে দেওয়ার অনুমতি দেন। তবে আমরা আশা করছি অচিরেই আমরা কোনো নির্দেশনা পাবো।

সাক্ষাতকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ উপাচার্য অধ্যাপক ড. শাহিনুর রহমান, প্রক্টর অধ্যাপক ড. জাহাঙ্গীর হোসেন, ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার আতাউর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

সাক্ষাৎ শেষে শিক্ষার্থীরা তাদের আন্দোলন সাময়িকের জন্য স্থগিত করেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৪২৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২১
আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa