ঢাকা, রবিবার, ২৮ চৈত্র ১৪২৭, ১১ এপ্রিল ২০২১, ২৭ শাবান ১৪৪২

শিক্ষা

প্রশাসনের নির্দেশ উপেক্ষা করে হলে জাবি শিক্ষার্থীরা

জাবি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৫৬ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২১
প্রশাসনের নির্দেশ উপেক্ষা করে হলে জাবি শিক্ষার্থীরা প্রশাসনের নির্দেশ উপেক্ষা করে হলে জাবি শিক্ষার্থীরা। ছবি: বাংলানিউজ

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় (জাবি): জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় (জাবি) প্রশাসনের নির্দেশ অমান্য করে হলে অবস্থান করছে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা।

সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০টায় হল ছাড়ার নির্দেশের সময় শেষ হওয়ার পরও শিক্ষার্থীরা হল ছাড়েন নি।

এদিকে বেলা ১২টার দিকে প্রত্যেক হল প্রভোস্ট স্ব স্ব হলে গিয়ে শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগের অনুরোধ জানান।

এসময় শিক্ষার্থীরা বলেন, হামলার ৪৮ ঘণ্টা অতিবাহিত হলেও সমস্যার সমাধানে কোন উদ্যোগ নেয়নি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। গেরুয়া এলাকায় আটকা পড়া শিক্ষার্থীদের বিদ্যুত বন্ধ করে দিয়েছে। এছাড়া খাবারের দোকান বন্ধ করে দেওয়াসহ পার্সেলে খাবার সরবরাহকারীদেরও হুমকি দিয়ে খাবার সরবরাহ বন্ধ রাখা হয়েছে।

শিক্ষার্থীরা আরও বলেন, এরকম অরাজক পরিস্থিতিতে গেরুয়া এলাকায় ফিরে যাওয়া শিক্ষার্থীদের পক্ষে সম্ভব নয়। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন শিক্ষার্থীদের নিরাপদ আবাসস্থল নিশ্চিত না করা পর্যন্ত আমরা হল ত্যাগ করবো না।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রভোস্ট কমিটির সভাপতি অধ্যাপক মোতাহার হোসেন বলেন, হল প্রভোস্টগণ শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগের অনুরোধ জানিয়েছেন। কিন্তু শিক্ষার্থীরা হল ত্যাগ না করার ঘোষণা দিলে প্রভোস্টরা ফিরে আসেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের আ ফ ম কামালউদ্দিন হলের প্রাধ্যক্ষ ও ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর আ স ম ফিরোজ উল হাসান বলেন, আমরা শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগের জন্য অনুরোধ করেছি। তারা হল ছাড়তে রাজি হয়নি। এখন বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন শিক্ষার্থীদের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিবে।

এর আগে রোববার দিবাগত রাত ১টায় শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগের নির্দেশ দেয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। পরে সকাল ১০ টায় জরুরি প্রশাসনিক বৈঠকে বসেন বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। বৈঠকে শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগ করার জন্য স্ব স্ব হল প্রভোস্টকে দায়িত্ব প্রদান করা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১২৫৫ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২১
কেএআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa