ঢাকা, বুধবার, ১৯ মাঘ ১৪২৯, ০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ০৯ রজব ১৪৪৪

শিক্ষা

বিনামূল্যে রবীন্দ্র কাছারি ব্যবহারের দাবি রবি ভিসির

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯২৭ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৯, ২০২২
বিনামূল্যে রবীন্দ্র কাছারি ব্যবহারের দাবি রবি ভিসির

সিরাজগঞ্জ: রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য বিনামূল্যে কাছারি বাড়ি ব্যবহারের দাবি জানিয়েছেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. শাহ আজম।  

মঙ্গলবার (২৯ নভেম্বর) সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদের সঙ্গে এক মত বিনিময় সভায় তিনি এমনটা দাবি করেন।

 

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর রবীন্দ্র কাছারি বাড়ির মিলনায়তনে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজিত মতবিনিময় সভায় সভাপতির বক্তব্যে উপাচার্য বলেন, এ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা কাছারিবাড়ি প্রাঙ্গণ ব্যবহার করে শিক্ষা ও সংস্কৃতি চর্চা করলে রবীন্দ্র ভাবনা ও সংস্কৃতিপ্রেমী শিক্ষার্থীরা এ দেশের সংস্কৃতি চর্চায় নেতৃত্ব দেওয়ার সক্ষমতা অর্জন করবে।  

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এমপি বলেন, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের জমিতেই শান্তি নিকেতনের আদলে বিশাল ক্যাম্পাস হবে যেখানে শিক্ষার্থীরা মুক্তবুদ্ধি ও সংস্কৃতির চর্চা করবে। তিনি আরও বলেন, আজ থেকে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা বিনামূল্যে নির্বাচনের কাছারি বাড়ি শিক্ষা ও সংস্কৃতির চর্চার ক্ষেত্রে করবে।  

সভাপতির বক্তব্যে উপাচার্য ড. শাহ আজম আরও বলেন, কেবল পুথিবদ্ধ বিদ্যার মধ্য দিয়ে স্নাতক তৈরির নয়, রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় দৃষ্টি দেয় শিক্ষার্থীদের সংবেদনশীতার অনুশীলনে। তিনি বলেন, রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে বিভিন্ন সহশিক্ষামূলক সংগঠন শিক্ষার্থীদের মানবিক মননশীলতা গঠনে সাংস্কৃতিক কর্মকান্ড পরিচালনা করে যাচ্ছে। তবে স্থায়ী ক্যাম্পাস না থাকায় সেসব কর্মকান্ড কিছুটা ব্যাহত হচ্ছে। তবে খুব শীঘ্রই স্থায়ী ক্যাম্পাস নির্মাণের প্রস্তাবনা সরকারের সংশ্লিষ্ট মহলে পাঠাবে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়।  

এদিকে অনুষ্ঠানকে ঘিরে রবীন্দ্র কাছারি বাড়িকে বর্ণিল সাজে সাজানো হয়। রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ, এবং শাহজাদপুরের বিভিন্ন স্তরের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের সমাগমে মুখরিত হয়ে উঠেছিল কাছারিবাড়ি প্রাঙ্গণ। পরে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে 

রবীন্দ্র সংগীতের অমিয় সুর আর নৃত্যের তালে মোহিত হন উপস্থিত শত শত রবীন্দ্রপ্রেমী।  মত বিনিময় সভায় আরও বক্তব্য দেন সংসদ সদস্য প্রফেসর মেরিনা জাহান কবিতা।

বাংলাতেশ সময়ধ: ১৯২৬ ঘণ্টা,

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa