ঢাকা, সোমবার, ২৩ মাঘ ১৪২৯, ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৪ রজব ১৪৪৪

বিনোদন

চলে গেলেন অভিনেতা আব্দুল কাদের

নিউজরুম এডিটর | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৯২১ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৬, ২০২০
চলে গেলেন অভিনেতা আব্দুল কাদের আব্দুল কাদের

না ফেরার দেশে চলে গেলেন গুণী অভিনেতা আব্দুল কাদের।  শনিবার (২৬ ডিসেম্বর) সকালে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

তাঁর মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হাসপাতালের চিফ মেডিক্যাল অফিসার আরিফ মাহমুদ।  মৃত্যুকালে আব্দুল কাদেরের বয়স হয়েছিল ৬৯ বছর। তিনি স্ত্রী খায়রুন্নেসা কাদের এবং এক ছেলে ও মেয়েকে রেখে গেছেন।

আব্দুল কাদের’র মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে শোবিজ অঙ্গনে। হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, তাঁর মরদেহ হাসপাতাল থেকে বাসায় নেওয়া হবে।

দেশ বরেণ্য এই অভিনেতা ক্যান্সারে আক্রান্ত ছিলেন অনেকদিন ধরে। ক্যান্সার জটিল আকারে ছড়িয়ে পড়েছিল সারা শরীরে। অবস্থা গুরুতর হওয়ায় জরুরি ভিত্তিতে তাকে গেল ৮ ডিসেম্বর ভারতের চেন্নাইয়ের ভেলোর শহরের ক্রিস্টিয়ান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়।

সেখান থেকে গত ২০ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় তাকে দেশে ফিরিয়ে আনা হয়। এরপর এয়ারপোর্ট থেকে সরাসরি তাকে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে নেওয়া হয়।

সোমবার (২১ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় তার কোভিড-১৯ পরীক্ষার ফল পজিটিভ আসে। এরপর থেকে এভারকেয়ারের করোনা ইউনিটে ভর্তি ছিলেন আব্দুল কাদের।

কিংবদন্তি অভিনেতা আব্দুল কাদের হুমায়ূন আহমেদের লেখা ‘কোথাও কেউ নেই’ নাটকে ‘বদি’ চরিত্রে অভিনয় করে তুমুল জনপ্রিয়তা পান। এছাড়া তিনি হুমায়ূন আহমেদের ‘নক্ষত্রের রাত’ নাটকে দুলাভাই চরিত্রেও দারুণ প্রশংসিত হন। ছিলেন ‘ইত্যাদি’র নিয়মিত শিল্পী। এছাড়া তিনি বহু নাটক-সিনেমা ও টিভি শোতে অভিনয়ের মুন্সিয়ানা দেখিয়েছেন।

আরও পড়ুন:

>> একজন আব্দুল কাদের এবং তার কমর্ময় জীবনের যত দ্যুতি

>> শিল্পকলায় শ্রদ্ধা জানানো হবে কাদেরকে

>> দাদার মরদেহের অপেক্ষায় ছোট্ট লুবাবা

>> বনানী কবরস্থানে চিরশায়িত হবেন ‘বদি’

>> দাদা বলেছেন সিঙ্গার হবা: কাদেরের নাতনি লুবাবা

বাংলাদেশ সময়: ০৯২১ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৬, ২০২০
ওএফবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa