ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

বিনোদন

হল বাঁচাতে হিন্দি সিনেমা প্রদর্শনে সম্মত ৩ সংগঠন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৪৯ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩০, ২০২০
হল বাঁচাতে হিন্দি সিনেমা প্রদর্শনে সম্মত ৩ সংগঠন বৈঠকে সিনেমা সংশ্লিষ্ট নেতারা

দেশের প্রেক্ষাগৃহে আমদানি করে হিন্দি সিনেমা প্রদর্শনের পক্ষে সম্মতি দিয়েছে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক পরিবেশক সমিতি, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতি ও বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি। শুরু থেকে সংগঠনগুলো হিন্দি সিনেমা প্রদর্শনের ব্যাপারে বিরোধিতা করে আসছিল।

বুধবার (৩০ ডিসেম্বর) রাজধানীর একটি রেস্টুরেন্টে এই তিন সংগঠনের নেতারা এক হয়ে বৈঠকে বসে এই সিদ্ধান্ত নেন। সেসময় উপস্থিত ছিলেন পরিচালক সমিতির সভাপতি মুশফিকুর রমান গুলজার, সাধারণ সম্পাদক বদিউল আলম খোকন, প্রযোজক ও পরিবেশক সমিতির সভাপতি খোরশেদ আলম খসরু, সাধারণ সম্পাদক শামসুল আলম, হল মালিক ও প্রদর্শক সমিতির সিনিয়র সহ-সভাপতি মিয়া আলাউদ্দিন এবং প্রদর্শক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আওয়াল হোসেন উজ্জ্বলসহ সংগঠনগুলোর নেতারা।

আরও পড়ুন>> দেশের সিনেমা হলেও মুক্তি পাবে বলিউডের সিনেমা

এ প্রসঙ্গে মুশফিকুর রহমান গুলজার বাংলানিউজকে বলেন, ‘করোনার কারণে সিনেমা নির্মাণ থমকে আছে। ফলে হলে নতুন সিনেমার সঙ্কট। সেজন্য এই আপতকালীন সময়ে হল বাঁচাতে নির্দিষ্ট পরিমাণ হিন্দি সিনেমা প্রদর্শনের অনুমতি দেওয়ার জন্য আমরা প্রাথমিকভাবে মৌখিক সম্মতি জানিয়েছি। তবে তিন সংগঠন তাদের সদস্যদের সঙ্গে আলোচনা করে বিষয়টি নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানাবে। ’

তিনি আরও বলেন, ‘হিন্দি সিনেমা প্রদর্শনের ব্যাপারটি লিখিতভাবে চূড়ান্ত হলেও সেটার একটি নীতিমালার প্রস্তাব করবো আমরা। এতে কয়টা সিনেমা মুক্তি পাবে, কোন কোন সময়ে হিন্দি সিনেমা মুক্তি দেওয়া যাবে বা কতদিন পর্যন্ত মুক্তি দেওয়া যাবে- সেসব উল্লেখ থাকবে। ’

বড় উৎসবগুলোতে দেশের সিনেমার বড় ধরনের ব্যবসা হয়। তাই কোন উৎসবে হিন্দি সিনেমা মুক্তির ব্যাপারে সম্মতি দেওয়া হবে না বলেও জানান তিনি।

এদিকে গত নভেম্বরে অস্তিত্ব সংকটে থাকা দেশের সিনেমা হলের মালিকরা হিন্দি সিনেমা আমদানি করে চালাতে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সংকেত পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছেন। তখন বাংলাদেশ হল মালিক সমিতির নেতারা তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদের সঙ্গে দেখা করে এই প্রস্তাব দেন। পরে প্রস্তাবটির পক্ষে-বিপক্ষে মত দেন সিনেমা সংশ্লিষ্ট সংগঠনের নেতারা।

সেসময় হল মালিক ও প্রদর্শক সমিতির সিনিয়র সহ-সভাপতি মিয়া আলাউদ্দিন বলেন, দেশের অনেকগুলো সিনেমা হল বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। আমাদের কনটেন্ট সংকট, এ কথা অস্বীকার করার উপায় নেই। আমরা সারা দেশের হল মালিকরা একমত হয়েছি, আমরা ভারতের সিনেমা নিয়ে আসবো। কিন্তু পুরনো কোনো সিনেমা আমরা আর আনতে চাই না। আমরা চাই, বলিউড ও কলকাতার সিনেমা সেখানে যেদিন মুক্তি পাবে, আমাদের এখানেও একই দিন তা মুক্তি পাবে।

বাংলাদেশ সময়: ২১৪৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩০, ২০২০
জেআইএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa