ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ২৬ রবিউস সানি ১৪৪৩

বিনোদন

‘নোনা জলের কাব্য’ আসছে ২৬ নভেম্বর

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৪৯ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৩, ২০২১
‘নোনা জলের কাব্য’ আসছে ২৬ নভেম্বর (বা থেকে) অর্ণব, সুমিত, বাবু, জিয়া, তামান্না ও অমিতাভ। ছবি: রাজীন চৌধুরী/ বাংলানিউজ

প্রায় ৭ বছরের প্রচেষ্টার পর নিজের প্রথম সিনেমাটি ‘নোনা জলের কাব্য’ মুক্তি দিতে যাচ্ছেন নবাগত পরিচালক রেজওয়ান শাহরিয়ার সুমিত। আগামী ২৬ নভেম্বর এটি দেশের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেতে যাচ্ছে।

শনিবার (২৩ অক্টোবর) রাজধানীর ঢাকা ক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। সে সময় সিনেমাটির পরিচালকসহ উপস্থিত ছিলেন অভিনেতা ফজলুর রহমান বাবু, তিতাস জিয়া, অভিনেত্রী তাসনোভা তামান্না ও সংগীতশিল্পী শায়ান চৌধুরী অর্ণব। এছাড়া অতিথি হিসেবে অনুষ্ঠানে অংশ নেন নির্মাতা অমিতাভ রেজা চৌধুরী ও স্টার সিনেপ্লেক্সের চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান রুহেল।

রেজওয়ান শাহরিয়ার সুমিত বলেন, ‘২০০৮ সালে আমি যখন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ছিলাম, তখন বন্ধুদের নিয়ে কুয়াকাটা ঘুরতে গিয়েছিলাম। তখন কুয়াকাটা টুরিস্ট বিচ ছেড়ে প্রায় এক মাইল হেঁটে ভেতরে চলে যাই। সময়টা ছিল সিডর আঘাত হানার তিন মাস পর। তখন আমি একটা জেলে পাড়া আবিষ্কার করি। সেখানে একদিকে দেখি সিডরের রেখে যাওয়া ধ্বংস যজ্ঞ, আর অন্যদিকে সবকিছু ভুলে জেলেদের মাছ ধরতে যাওয়ার প্রস্তুতি। সে সময়ই সেখানকার মানুষের জীবন আমার মনে প্রভাব ফেলে। এরপর আমি নিউইয়র্ক বিশ্ববিদ্যালয়ে চলচ্চিত্র বিষয়ে পড়াশোনা করতে গিয়ে এই জনপদ নিয়েই স্ক্রিপ্টের প্রথম ড্রাফটা লিখে ফেলি। ’

তিনি আরও বলেন, ‘সিনেমাটি নিয়ে আমি ৭-৮ বছর একরকম সংগ্রাম করছি। যেহেতু আমি একজন স্বাধীন চলচ্চিত্র নির্মাতা, তাই জার্নিটার কিছু সময় একাই পাথরটা টানতে হয়েছে! তবে ভালো লাগছে অবশেষে সিনেমাটি মুক্তি দিতে পারছি। আগামী ২৬ নভেম্বর ‘নোনা জলের কাব্য’ প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাচ্ছে। আমার বিশ্বাস সবাই আমাদের সহযোগিতা করবেন এবং প্রেক্ষাগৃহে এসে সিনেমাটি দেখবেন। ’

সিনেমাটিতে অভিনয়ের পাশাপাশি গানও গেয়েছেন বাবু।

দেশের সমুদ্র উপকূলবর্তী প্রান্তিক জেলেদের দৈনন্দিন জীবনযাপন, আবহাওয়ার প্রতিকূলতার মুখে টিকে থাকার লড়াই এবং তাদের সামাজিক রীতিনীতি ও সংস্কার এই চলচ্চিত্রের মূল বিষয়।  

গত এক বছর বিভিন্ন আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে সাড়া জাগিয়েছে ‘নোনা জলের কাব্য’। সিনেমাটিতে অভিনয় করেছেন ফজলুর রহমান বাবু, শতাব্দী ওয়াদুদ, তিতাস জিয়া, এবং তাসনোভা তামান্না। আবহ সংগীত পরিচালনা করেছেন অর্ণব।  

সিনেমাটি প্রসঙ্গে অভিনেতা ফজলুর রহমান বাবু বলেন, ‘নোনা জলের কাব্য’ সিনেমায় আমি চেয়ারম্যানের চরিত্রে অভিনয় করেছি। আমি আশাবাদী সিনেমাটি আমাদের দেশের চলচ্চিত্র আঙ্গিনায় একটি নতুন মাত্রা যোগ করবে। আমি আপামর সিনেমাপ্রেমীদের অনুরোধ করবো, আপনারা প্রেক্ষাগৃহে আসবেন এবং আমাদের সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় তৈরি করা এই সিনেমাটি বড় পর্দায় দেখবেন।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, লন্ডন, বুসান, গুটেনবার্গ, সাও পাওলো, তুরিন, সিয়াটেল, সিঙ্গাপুরসহ বেশকিছু আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে দর্শক ও সমালোচকদের প্রশংসা কুড়িয়েছে ‘নোনা জলের কাব্য’। এবার এটি যাচ্ছে জাতিসংঘের জলবায়ু সম্মেলন COP26-এ। স্কটল্যান্ডের গ্লাসগো শহরে অনুষ্ঠিতব্য গুরুত্বপূর্ণ এই আসরে নভেম্বরের ৮ তারিখে আইম্যাক্স থিয়েটারে দেখানো হবে বাংলাদেশের এই সিনেমা।  

এই সম্মেলনে পৃথিবীর প্রায় সকল দেশের রাষ্ট্র প্রধানরা অংশ নেবেন। যাচ্ছেন বাংলাদেশের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও। এছাড়াও একই শহরে জাতিসংঘের COY16 সম্মেলনে অক্টোবরের ২৯ তারিখ দেখানো হবে ‘নোনা জলের কাব্য’।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৪৮ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৩, ২০২১
জেআইএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa