ঢাকা, সোমবার, ১৮ আশ্বিন ১৪২৯, ০৩ অক্টোবর ২০২২, ০৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

বিনোদন

আসিফের নামে করা মামলা তুলে নেবেন ন্যানসি?

বিনোদন ডেস্ক  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২০৭ ঘণ্টা, জুলাই ৩১, ২০২২
আসিফের নামে করা মামলা তুলে নেবেন ন্যানসি? আসিফ আকবরের সঙ্গে নাজমুন মুনিরা ন্যানসি

কণ্ঠশিল্পী আসিফ আকবরের সঙ্গে নাজমুন মুনিরা ন্যানসির মধ্যে দ্বন্দ্ব ছিল চার বছর ধরেই। তাদের দ্বন্দ্বের মূলে ছিল গানের রয়্যালটি নিয়ে।

এর সূত্রপাত ২০১৮ সালের মাঝামাঝির দিকে।

এরপর থেকেই আসিফ-ন্যানসি’র মধ্যে দূরত্ব বাড়তে থাকে। এক পর্যায়ে আসিফের বিরুদ্ধে মামলাও করেছিলেন ন্যানসি। তবে শনিবার ফের একসঙ্গে দেখা গেল এই দুই কণ্ঠশিল্পীকে। এরপর থেকেই বলা হচ্ছে তাদের দ্বন্দ্ব মিটে গেছে। আসিফের স্ট্যাটাসে সেই ইঙ্গিত পাওয়া গেছে।  

স্ট্যাটাসে আসফি উল্লেখ করেন, ‘একটা ফোনের অপেক্ষায় ছিলাম চারটা বছর। অবশেষে এলো সেই কাঙ্ক্ষিত ফোন। হ্যালো বলতেই শুনলাম অনেক পছন্দের আদুরে কণ্ঠটি। ভাইয়া আমি ন্যানসি বলছি…খুব ভালো লাগলো ওর ফোনটা পেয়ে। দুনিয়ার সমস্ত অভিযোগ অভিমান আমার বিরুদ্ধে, শুনে আরও ভালো লাগছিল। ন্যানসি তো আমার ছোট। আমিতো বড়, তাহলে আমার মিনিমাম ভুলের ম্যাক্সিমাম শাস্তি হওয়া উচিত। ’

তিনি আরো লেখেন, ‘ন্যানসি আমাকে বললো, ভাইয়া আমি রাগ কমিয়ে ফেলেছি, আপনিও রাগ কমিয়ে ফেলেন। সঙ্গে সঙ্গে রাজি হয়ে গেলাম। অনেকদিন পর স্নেহের ন্যানসির সঙ্গে গল্প-গানের আড্ডায় নিজেকে হালকা করে ফেলেছি। ’ 

এরপর একটি প্রশ্ন থেকেই যায়, সেটি হচ্ছে- আসিফ আকবরের বিরুদ্ধে করা মামলা কি তুলে নেবেন ন্যানসি? এ বিষয়ে একটি সংবাদমাধ্যমের সাক্ষাৎকারে ন্যানসি বলেন, ‘এটা আসলে আমার হাতে নেই। আমার অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত করে রাষ্ট্র বাদী হয়ে মামলা করেছে। তাই মামলা আসিফ ভাইকেই লড়তে হবে। ’

এ ক্ষেত্রে আসিফকে সব ধরনের সহযোগিতা করতে চান উল্লেখ করে ন্যানসি বলেন, ‘আমি তাকে (আসিফ) সব ধরনের সহযোগিতা করতে রাজি আছি। কী দরকার এত ঝামেলা বাড়িয়ে? তা ছাড়া আমি তো আমার রায় পেয়েই গেছি। যে গানগুলো নিয়ে মামলা, তার ৫০ ভাগের কপিরাইট এখন আমার অধীনে। চাইলে যেকোনো সময় আসিফ ভাইয়ের ইউটিউব চ্যানেলকে স্ট্রাইক খাওয়াতে পারি। তবে দেব না, প্রমাণ করার দরকার ছিল আমি সঠিক, সেটা প্রমাণ করতে পেরেছি। ’

বিয়েতেও নাকি আসিফকে দাওয়াত করেছিলেন ন্যানসি। তবে আসিফ নাকি সেখানে যাননি। এ বিষয়ে ন্যানসি বলেন, ‘মনে ক্ষত তৈরি করে সেটা রয়েই যায়। জানি না কত দিন আমাকে এই ক্ষত বয়ে যেতে হবে! আমার বিয়েতেও আসিফ ভাইকে দাওয়াত করেছিলাম, তিনি আসেননি। আমি কখনোই চাইনি ব্যক্তি বিরোধ শিল্পের মধ্যে আসুক বা পরিবারে তার প্রভাব পড়ুক। ’ 

তিনি আরো বলেন, আমি বরাবরই ব্যক্তিগত আর পেশাগত বিষয় দুভাবে দেখে আসছি। এর মধ্যে কেউ যদি আসিফ ভাইয়ের সঙ্গে গাওয়ার প্রস্তাব দিতেন, ভালো লাগলে অবশ্যই গাইতাম।

বাংলাদেশ সময়: ১২০৭ ঘণ্টা, জুলাই ৩১, ২০২২
এনএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa