ঢাকা, বুধবার, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ১২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

বিনোদন

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার গ্রহণ করলেন সুরিয়া-অজয়

বিনোদন ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৩৮ ঘণ্টা, অক্টোবর ১, ২০২২
জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার গ্রহণ করলেন সুরিয়া-অজয়

ভারতের ৬৮তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরষ্কার প্রদান করা হয়েছে শুক্রবার (৩০ সেপ্টম্বর)। এর আগে পুরস্কারের বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হয়েছিল চলতি বছরের ২২ জুলাই।

এ বছর যৌথভাবে সেরা অভিনেতার পুরস্কার পেয়েছেন বলিউড অভিনেতা অজয় দেবগন ও তামিল অভিনেতা সুরিয়া। সেরা অভিনেত্রী নির্বাচিত হয়েছেন অপর্ণা বালামুরালি। শুক্রবার তাদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন ভারতের রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মু।

জানা যায়, ‘তানাজি: দ্য আনসাং ওয়ারিয়র’ সিনেমার জন্য সেরা অভিনেতার পুরস্কার জিতেছেন অজয় দেবগন, ‘সুরারাই পোত্রু’ সিনেমার জন্য পুরস্কার পেয়েছেন সুরিয়া। অন্যদিকে, অপর্ণা বালামুরালি সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কারের জন্য নির্বাচিত ‘সুরারাই পোত্রু’ সিনেমার জন্য।

বহুল প্রশংসিত ‘সুরারাই পোত্রু’ সিনেমাটি এই বছরের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে একাধিক পুরস্কার জিতেছে। সুধা কোঙ্গারা পরিচালিত ও সুরাইয়া এবং গুনীত মঙ্গা প্রযোজিত সিনেমাটি যথাক্রমে ৫টি বিভাগে মনোনীত হয়েছে এবার। নায়ক-নায়িকা ছাড়াও সেরা ফিচার ফিল্ম, সেরা চিত্রনাট্য এবং সেরা ব্যাকগ্রাউন্ড স্কোর জিতেছে ‘সুরারাই পোত্রু’।  

শুক্রবার পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে সুরিয়ার সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন তার স্ত্রী অভিনেত্রী জ্যোতিকা। জ্যোতিকা ‘সুরারাই পোত্রু’ সিনেমার সহ-প্রযোজক ছিলেন। ভারতের রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুর কাছ থেকে সিনেমাটির জন্য সেরা ফিচার ফিল্মের পুরস্কার গ্রহণ করেন জ্যোতিকা।

পুরস্কার গ্রহণের পর গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলার সময় সুরিয়া বলেন, অনুষ্ঠানে তিনি অনেক আবেগি হয়ে পড়েছিলেন। সংবাদ সংস্থা এএনআই-এর সঙ্গে কথোপকথনে তিনি বলেন, “এটি বিশাল সম্মান। জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের জুরি এবং ভারত সরকারের প্রতি সত্যিই কৃতজ্ঞ আমি। আমার মনে অনেক আবেগ বয়ে যাচ্ছে। সত্যিই এটি এমন একটি মুহূর্ত যা আমি কখনই ভুলব না। ’’

এক নজরে ভারতের ৬৮তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরষ্কারে বিজয়ীদের তালিকা: 

সেরা ফিচার সিনেমা: সুরারাই পোত্রু।
সেরা পরিচালক: সচীদানন্দন কে আর।
সেরা জনপ্রিয় সিনেমা: তানাজি।
সেরা ডেবিউ পরিচালকের জন্য ইন্দিরা গান্ধী পুরস্কার: ম্যান্ডেলা।
সেরা শিশুতোষ সিনেমা: সুমি (মারাঠি)।
সেরা অভিনেতা: সুরিয়া (সুরারাই পোত্রু) ও অজয় দেবগন (তানাজি)।
সেরা অভিনেত্রী: অপর্ণা বালামুরালি।
সেরা পার্শ্ব অভিনেতা: বিজু মেনন।
সেরা পার্শ্ব অভিনেত্রী: লক্ষ্মী প্রিয়া চন্দ্রমৌলী।
সেরা শিশু শিল্পী: অনীষ মঙ্গেশ গোসাভি (তকতক) এবং আকাঙ্ক্ষা পিঙ্গলে ও দিব্যেশ ইন্দুলকর (সুমি)।
সেরা সংগীত পরিচালক: আলা বৈকুণ্ঠপুরামুলো।
সেরা গায়িকা: নানছাম্মা।
সেরা গায়ক: রাহুল দেশপাণ্ডে ও অনীষ মঙ্গেশ গোসাভি
সেরা অডিওগ্রাফি: জোবিন জায়ান (দোলু)।
সেরা সিনেমাটোগ্রাফি: অভিযাত্রিক।
সেরা নন-ফিচার সিনেমা: থ্রি সিস্টার্স।
সেরা পোশাক পরিকল্পনা: তানাজি।
সেরা মেকআপ: নাট্যম।
সেরা স্ক্রিনপ্লে: সুরারাই পোত্রু।
সেরা অসমীয়া সিনেমা: ব্রিজ।
সেরা বাংলা সিনেমা: অভিযাত্রিক।
সেরা হিন্দি সিনেমা: তুলসীদাস জুনিয়র।
সেরা তেলেগু সিনেমা: কালার ফটো।
সেরা তামিল সিনেমা: শিবারণজানিয়ুম ইন্নম শিলা পেঙ্গাল্লুম।

বাংলাদেশ সময়: ১২৩৮ ঘণ্টা, অক্টোবর ০১, ২০২২
এনএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa