ঢাকা, সোমবার, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৩ মে ২০২২, ২১ শাওয়াল ১৪৪৩

পরিবেশ ও জীববৈচিত্র্য

তুরাগ নদে ভেসে উঠল ৩ মণের মৃত ডলফিন!

সাভার করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২৩১৪ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২, ২০২২
তুরাগ নদে ভেসে উঠল ৩ মণের মৃত ডলফিন!

সাভার (ঢাকা): ঢাকার খুব কাছে সাভারে তুরাগ নদে ভেসে উঠেছে প্রায় ৫ ফুট লম্বা ও ৩ মণ ওজনের একটি মৃত ডলফিন। গত কয়েক বছরে আর কোনো ডলফিন পাওয়া যায়নি এ নদে।

রোববার (০২ জানুয়ারি) বিকেলে তুরাগ নদের আশুলিয়া বাজার ঘাট এলাকায় মৃত ডলফিনটি দেখতে পান জেলেরা। পরে সন্ধ্যায় সেটি জাল দিয়ে তীরে আনেন তারা।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, বিকেলে তুরাগ নদের আশুলিয়া বাজার ঘাটে মাছ ধরছিলেন কিছু জেলে। এসময় বিশাল আকারের ডলফিনটিকে মৃত ভাসমান অবস্থায় দেখতে পান তারা। পরে জালের মাধ্যমে ডলফিনটি তীরে তুলে আনা হয়। ডলফিনটির মুখ দিয়ে রক্ত বের হচ্ছিল। মূলত নদের পানিতে শিল্প কারখানার নির্গত মাত্রাতিরিক্ত রাসায়নিক মিশ্রিত থাকায় ডলফিনটি মারা গেছে। তবে এর আগে কখনও এ নদীতে ডলফিন দেখা যায়নি। তাই মৃত ডলফিনটিকে দেখতে তীরে অনেক মানুষ ভীড় করেন।

সাভার উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা কামরুল ইসলাম সরকার বলেন, ডলফিনটি হলো গ্যাংগিজ ডলফিন বা বাংলায় হলো গাঙ্গের শুশুক। পদ্মা ও যমুনা নদীতে এর অভয়াশ্রম ছিল এক সময়। মূলত এরা স্তন্যপায়ী জাতীয় প্রাণী। তবে এ অঞ্চলে গত ১০-১৫ বছরের মধ্যে এ রকম শুশুক দেখা যায়নি বা শোনা যায়নি। তবে বুড়িগঙ্গাতে ওই সময় দেখা যেত। হয়ত কোনোভাবে এ নদে এসেছিল। ঢাকার আশপাশের পরিবেশ প্রতিবেশটা দূষণের কারণে জলজ জীববৈচিত্র্য মারাত্মক হুমকির সম্মুখীন। সেই সঙ্গে এ প্রাণীর যে খাদ্যাভাস, সেটা তুরাগ নদীতে এখান নেই। বিষাক্ততা, খাদ্য স্বল্পতা, কোনো রোগে আক্রান্ত হওয়ার কারণেও এটা মারা যেতে পারে। মৃত্যুর কারণটা নিশ্চিত ও গবেষণার জন্য জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের গবেষকের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করছি।

বাংলাদেশ সময়: ২৩১২ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০২, ২০২২
এসআই
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa