ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩ কার্তিক ১৪২৮, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

ফিচার

প্রতিষ্ঠার ৪৭তম বছরে শিল্পকলা একাডেমি

ফিচার রিপোর্টার | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৩৮ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২১
প্রতিষ্ঠার ৪৭তম বছরে শিল্পকলা একাডেমি

ঢাকা: দেশের সংস্কৃতি চর্চার জাতীয় প্রতিষ্ঠান শিল্পকলা একাডেমির ৪৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আজ। দেশব্যাপী সংস্কৃতি চর্চার বিকাশ ও প্রসারে ১৯৭৪ সালের এই দিনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান শিল্পকলা একাডেমি প্রতিষ্ঠা করেন।

দিবসটি উদযাপনে দুই দিনব্যাপি বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করেছে শিল্পকলা একাডেমি। এছাড়া আরও থাকছে একাডেমির সকল বিভাগ ও শাখার কার্যক্রমের সপ্তাহব্যাপী প্রদর্শনী।

শুক্রবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০টায় একাডেমির পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে শুরু হয় অনুষ্ঠানমালা। এরপর বিকাল ৪টায় জাতীয় চিত্রশালা ভবনের ২ ও ৩ নং গ্যালারিতে শুরু হবে একাডেমির সকল বিভাগ ও শাখার কার্যক্রমের সপ্তাহব্যাপী প্রদর্শনী। এটি চলবে ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত।

সন্ধ্যা ৬টায় একাডেমির উন্মুক্ত প্রাঙ্গণের নন্দনমঞ্চে থাকছে আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এতে প্রধান অতিথি থাকবেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ। একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি থাকবেন সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. বদরুল আরেফীন এবং স্বাগত বক্তৃতা করবেন একাডেমির সচিব মো. নওসাদ হোসেন। শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা ৬টায় একই মঞ্চে থাকছে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

শিল্পকলা একাডেমির বর্তমানে ছয়টি বিভাগ নিয়ে কাজ করছে পুরো বাংলাদেশে। চারুকলা, নাট্যকলা ও চলচ্চিত্র, সংগীত নৃত্য ও আবৃত্তি, গবেষণা ও প্রকাশনা, প্রশিক্ষণ ও প্রযোজনা; এই ছয়টি বিভাগ নিয়ে পরিচালিত শিল্পকলা একাডেমির কার্যক্রম।

কার্যক্রমের মধ্যে রয়েছে শিল্প সংস্কৃতির বিকাশের লক্ষ্যে গুণী ও প্রতিভাবান শিল্পীদের সহায়তা ও স্বীকৃতি প্রদান, সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান ও সংস্থাকে অনুদান প্রদান, অতীত ঐতিহ্য ও সমকালীন সংস্কৃতি বিষয়ে গবেষণা পরিচালনা এবং সঙ্গীত, নাট্য ও চারুকলা বিষয়ে আন্তর্জাতিক উৎসবের আয়োজন। একাডেমির সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডের অংশ হিসেবে আরও রয়েছে উৎসব, সম্মেলন, সেমিনার, নাট্যানুষ্ঠান, কর্মশালা, দেশীয় ও আন্তর্জাতিক চিত্রকলা প্রদর্শনী, বিভিন্ন প্রতিযোগিতার আয়োজন ও পুরস্কার প্রদান, বিদেশে সরকারি পর্যায়ে বাংলাদেশের শিল্প ও সাংস্কৃতিক দল প্রেরণ এবং বিদেশী সাংস্কৃতিক প্রতিনিধি দলকে বাংলাদেশে আমন্ত্রণ জানানো, দেশের বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্বকে তাদের অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ পুরস্কৃত করা এবং শিল্প ও সংস্কৃতিবিষয়ক বিভিন্ন বিষয়ের ওপর গ্রন্থ, সাময়িকী ও স্মরণিকা প্রকাশ।

বাংলাদেশ সময়: ১২৩৪ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০২১
এইচএমএস/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa