ঢাকা, শনিবার, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৩ শাবান ১৪৪৫

ফুটবল

ভুটানকে উড়িয়ে শুরু বাংলাদেশের

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, স্পোর্টস  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৩৪ ঘণ্টা, মার্চ ২০, ২০২৩
ভুটানকে উড়িয়ে শুরু বাংলাদেশের

প্রত্যাশিত জয় দিয়েই সাফ অনূর্ধ্ব-১৭ নারী চ্যাম্পিয়নশিপ শুরু করেছে বাংলাদেশ।  

কমলাপুরের বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহি মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে আজ (২০ মার্চ) রোববার ভুটানকে ৮-১ গোলে হারিয়েছে গোলাম রব্বানী ছোটনেরর শিষ্যরা।

 

স্বাগতিক বাংলাদেশসহ এবারের আসরে অংশ নিচ্ছে নেপাল, ভারত, ভুটান এবং রাশিয়া। শক্তির বিচারে অনেকটাই পিছিয়ে থাকা ভুটানের বিপক্ষে জয়টা প্রত্যাশিতই ছিল।  

ম্যাচের শুরুতে কিছুটা অগোছালো ফুটবল খেললেও সময়ের সঙ্গে সঙ্গে খোলস ছাড়িয়ে বেড়িয়ে আসেন বাংলাদেশের ফুটবলাররা। ১৬তম মিনিটে ব্রেক থ্রু এনে দেন শ্রীমতি তৃষ্ণা রানী। সতীর্থের বাড়িয়ে দেয়া পাস ডি-বক্সে পেয়ে যান সুরভী আকন্দ প্রীতি। এগিয়ে আসা গোলরক্ষককে ফাঁকি দিয়ে প্রীতির বাড়িয়ে দেয়া বল পেয়ে যান তৃষ্ণা রানী। ডান পায়ের আলতো ছোঁয়ায় বল ফাঁকা বারে জড়ান তিনি।

ম্যাচের ২০তম মিনিটে অফসাইডের ফাঁদে পরে গোল বাতিল হয় বাংলাদেশের। জয়নব বিবি রিতার শট গোলরক্ষক লাফিয়ে ফেরানোর চেষ্টা করেন। গোলরক্ষকের হাতে লাগলেও উড়ন্ত বলে হেড নেন দলের অধিনায়ক রুমা আক্তার। তবে অফসাইডের কারণে গোলটি বাতিল হয়ে যায়।

আক্রমণাত্মক ফুটবলের ফল দুই মিনিট পরই তুলে নিয়েছে বাংলাদেশ। ২৮তম মিনিটে নুসরাত জাহান মিতুর দারুণ এক রক্ষণচেরা পাস ধরে বাঁ প্রান্ত থেকে কোনাকুনি শটে দলকে দ্বিতীয়বারের মতো এগিয়ে দেন তৃষ্ণা রানী।  

৩৫তম মিনিটে সুলতানা আক্তারের গোলে ব্যবধান ৩-০ করে বাংলাদেশ। জয়নব বিবি রিতার ফ্রি-কিক ভুটানি গোলরক্ষকের হাত ফসকালে মাটিতে পড়ে লাফিয়ে ওঠা বলে হেডে লক্ষ্যভেদ করেন সুলতানা।  

প্রথমার্ধে গোল পেয়েছেন দারুণ খেলা সুরভিও। ৪২তম মিনিটে মাঝমাঠ থেকে কানন রানীর বাড়ানো বল বিপদমুক্ত করতে পারেননি ভুটানের ডিফেন্ডার চকি ওম। পেছন থেকে দৌড়ে গিয়ে বলের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে ডান পায়ের মাপা শটে লক্ষ্যভেদ করেন প্রীতি।  

৫৩তম মিনিটে হ্যাটট্রিকের সুযোগ পেয়েছিলেন তৃষ্ণা। ডান প্রান্ত ধরে সুরভির ক্রস থেকে বল নিয়ন্ত্রণে না এনেই শট নেওয়ার চেষ্টা করেছিলেন তৃষ্ণা। তবে তাঁর দুর্বল শট ঠেকিয়ে দেন ভুটানি গোলরক্ষক।  

৬০তম মিনিটে সুরভির বদলি হিসেবে মাঠে নামেন থুইনু মারমা। নেমে প্রথম স্পর্শেই গোল পান বদলি এই ফরোয়ার্ড। মাঝমাঠ থেকে পূজা দাসের রক্ষণচেরা পাস ধরে ভুটানি গোলরক্ষককে হার মানান থুইনু। বল নিয়ন্ত্রণে রেখে ঠাণ্ডা মাথায় ফিনিশিং দেন এই ফরোয়ার্ড।  

পরের মিনিটেই ব্যবধান ৬-০ করেন সুলতানা আক্তারের বদলি হিসেবে নামা মুন্নি। নুসরাত জাহান মিতুর পাস ধরে গোলরক্ষকের মাথার ওপর দিয়ে বল জালে জড়ান মুন্নি।  

পরের মিনিটে দ্বিতীয়বারের মতো বল জালে জড়িয়েছিলেন থুইনু তবে অফসাইডের কারণে ব্যবধান বড় হয়নি স্বাগতিকদের। উল্টো ৬৩তম মিনিটে ভুটানের হয়ে এক গোল শোধ দেন প্রিয়া ঘালি।  

ভুটানের গোলের জবাবে ৭৬তম মিনিটে ম্যাচে নিজের দ্বিতীয় গোল তুলে নেন থুইনু মারমা। জয়নব বিবির ফ্রিকিক থেকে পোস্টে শট নিয়েছিলেন বদলি খেলোয়াড় সাগরিকা। তাঁর শট ক্রসবারে লাগলে ফাঁকায় বল পান থুইনু, ঠাণ্ডা মাথায় হেডে বল ঠেলে দেন জালে।  

৮৩তম মিনিটে হ্যাটট্রিকের সুযোগ পেয়েছিলেন থুইনু। গোলরক্ষককে একা পেয়ে শট নিয়েছিলেন, কিন্তু লক্ষ্যে থাকেনি। দুই মিনিট পর গোল খাতায় নাম লেখান সাগরিকা। বাঁ প্রান্ত ধরে মুন্নির শট প্রথম দফায় ঠেকান ভুটানি গোলরক্ষক দীক্ষা। ফিরতি বলে শট নেন সাগরিকা। দীক্ষা এবারও ফিরিয়েছিলেন সেই শট তবে বিপদমুক্ত করতে পারেননি, দৌড়ে আলতো টোকায় দলের অষ্টম গোল তুলে নেন সাগরিকা।

দিনের প্রথম ম্যাচে  নেপালকে ৪-১ হারিয়েছে ভারত। ভারতের হয়ে হ্যাটট্রিক করেছের শিলজি শাহজি অন্য গোলটি করেন পুজা।  

বাংলাদেশ সময়: ২১৩৫ ঘণ্টা, মার্চ ২০, ২০২৩
এআর/এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।