ঢাকা, বুধবার, ১৯ আশ্বিন ১৪৩০, ০৪ অক্টোবর ২০২৩, ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৫

ফুটবল

শিরোপা উৎসব চলছে মোহামেডানে 

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, স্পোর্টস  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯০৯ ঘণ্টা, মে ৩১, ২০২৩
শিরোপা উৎসব চলছে মোহামেডানে 

চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আবাহনীকে হারিয়ে ফেডারেশন কাপের চ্যাম্পিয়ন হয়েছে মোহামেডান। টান টান উত্তেজনার এক ফাইনালে ৯ বছরের শিরোপা খরা ঘুচিয়েছে সাদা-কালো শিবির।

সেই সঙ্গে ১৪ বছর পর ফেডারেশন কাপের শিরোপা ঘরে তুলেছে তারা। স্বাভাবিকভাবেই গতকাল রাত থেকেই ক্লাব প্রাঙ্গনে চলছে উৎসব। আজও এর ব্যতিক্রম নয়।

মোহামেডানের ভক্ত, সমর্থক, কর্মকর্তাদের পদচারণায় মুখরিত ক্লাব প্রাঙ্গন। আজ সন্ধ্যায় ক্লাব কর্তাদের বৈঠকের পর মোহামেডানের শিরোপা উদযাপন নিয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন ক্লাবের পরিচালক আবু হাসান চৌধুরি প্রিন্স। তিনি বলেন, ‘গতকাল রাতেই আমাদের ক্লাবের প্রেসিডেন্ট ক্লাবে কেক কেটে সকলের সঙ্গে উদযাপন করেছেন। আজকে সন্ধ্যায় তিনি আসবেন। এরপর ক্লাবের সকলের সঙ্গে বৈঠকে বসা হবে। এরপর আমরা সিদ্ধান্ত নেব কিভাবে শিরোপা উদযাপন করবো। ’ 

এবারের ফেডারেশন কাপে চ্যাম্পিয়ন হওয়ায় আগামী এএফসি কাপে খেলার সুযোগ রয়েছে মোহামেডানের সামনে। এবছর ক্লাব লাইসেন্সিং না করলেও আগামী এএফসির জন্য ক্লাব লাইসেন্সিংয়ের প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানিয়েছেন প্রিন্স। তিনি বলেন, ‘আমরা ফুটবল ফেডারেশনের সঙ্গে যোগাযোগ করবো। এর আগে আমাদের কাগজে কিছু স্বল্পতা ছিল। আর দলের পজিশনও তেমন ছিল না। তাই ক্লাব লাইসেন্সিং করা হয়নি। এবার আমরা যোগাযোগ করবো তাদের সঙ্গে। ’

ক্যাসিনো-কান্ডের পর মোহামেডান ক্লাব যখন গভীর সংকটে, তখন বাদল রায়ের নেতৃত্বে কয়েকজন সাবেক ফুটবলার ও সংগঠক ক্লাবের হাল ধরেন। বাদল রায়ের সেই হাল ধরার ফলেই মোহামেডানের আজকের অবস্থান। সেই বাদল রায়ের শহর কুমিল্লায়ই চ্যাম্পিয়ন হয়েছে মোহামেডান। তবে দেখতে পেলেন না তিনি। ২০২০ সালের নভেম্বরে দুনিয়া থেকে বিদায় নেন বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের সাবেক এই অধিনায়ক ও ফুটবল সংগঠক। তার স্মরণে ক্লাবের কোনও পরিকল্পনা আছে কিনা? এমন প্রশ্নের জবাবে প্রিন্স বলেন, ‘তার জন্যই আমরা মাঠটা পেয়েছি। আমাদের মনে-প্রাণে বাদল দা সবসময়ই আছেন। বোর্ড অব ডিরেক্টরের সকলেই দাদাকে শ্রদ্ধারে সঙ্গে স্মরণ করন। আজকের বৈঠকে এই বিষয়ে আলোচনার কথা রয়েছে। ’

চ্যাম্পিয়ন হলে ৪০ লাখ টাকা বোনাসের ঘোষণা আগেই দিয়েছিলেন ক্লাবের অন্যতম পরিচালক ও ফুটবল কমিটির চেয়ারম্যান প্রকৌশলী গোলাম মোহাম্মদ আলমগীর। গতকাল রাতে উৎসবের সময় দিয়েছেন আরও প্রায় ১০ লাখ টাকার বোনাসের ঘোষণা। মোহামেডানকে চ্যাম্পিয়ন করার তিন কারিগর ফরোয়ার্ড সুলেমান দিয়াবাতে ৫ লাখ এবং দুই গোলরক্ষক সুজন এবং বিপু দুই লাখ করে অতিরিক্ত বোনাস পাবেন। আজ-কালকের মধ্যেই অর্ধকোটি টাকার বোনাস পেয়ে যাবেন তারা, এমনটাই জানিয়েছেন আবু হাসান চৌধুরি প্রিন্স।

বাংলাদেশ সময়: ১৯০৯ ঘণ্টা, মে ৩১, ২০২৩
এআর/এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa