ঢাকা, শনিবার, ১৫ মাঘ ১৪২৮, ২৯ জানুয়ারি ২০২২, ২৫ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

ফুটবল

রোনালদোর 'বুড়ো' হাড়ের ভেলকি দেখে মুগ্ধ রাংনিক

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৪০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩, ২০২১
রোনালদোর 'বুড়ো' হাড়ের ভেলকি দেখে মুগ্ধ রাংনিক দায়িত্বে নেওয়ার আগে রোনালদোদের খেলা দেখতে গ্যালারিতে হাজির ছিলেন রাংনিক (বামে)/ সংগৃহীত ছবি

সদ্যই ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ভারপ্রাপ্ত কোচ হিসেবে যোগ দিয়েছেন রালফ রাংনিক। দায়িত্ব নেওয়ার পর প্রথম সংবাদ সম্মেলনে এই জার্মান কোচ জানান, তার পরিকল্পনার অন্যতম প্রধান অংশজুড়ে আছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো।

শুধু কি তাই, 'বুড়ো' বয়সেও পর্তুগিজ উইঙ্গারের শারীরিক ফিটনেস দেখে তিনি রীতিমত মুগ্ধ।  

বৃহস্পতিবার রাতেই রোনালদোর জোড়া গোলে আর্সেনালের বিপক্ষে জয় ছিনিয়ে আনে ইউনাইটেড। নাটকীয়তায় ভরা ম্যাচটিতে পিছিয়ে থাকা ম্যানইউ পর্তুগিজ তারকার পায়ের জাদুতে ঘুরে দাঁড়ায়। শেষদিকে এসে দারুণ স্পট কিকে দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছান পাঁচবারের ব্যালন ডি'অর জয়ী এই ফরোয়ার্ড। সেই সঙ্গে ইতিহাসের প্রথম ফুটবলার হিসেবে ৮০০ গোল করার মাইলফলক অর্জন করেন তিনি। বুড়ো হাড়ের এমন ভেলকি দেখে তাই নিজের নতুন শিষ্যের প্রশংসা করলেন নতুন ম্যানইউ বস।

সংবাদ সম্মেলনে রাংনিক বলেন, '(রোনালদোর মতো) ৩৬ বছর বয়সেও এত ফিট কাউকে আমি দেখিনি। কিন্তু এটা (পরিকল্পনা) শুধু তার ব্যাপারেই নয়। এটা পুরো স্কোয়াডেরই উন্নতির ব্যাপারে। আপনাকে সবসময় হাতে থাকা খেলোয়াড়দের সঙ্গে মানিয়ে নিতে হবে। আমার বেলায়, পুরো দলকে একসঙ্গে খেলানোর ব্যাপারে সহায়তা করাই আমার কাজ। এটা হলো একতা এবং টিপ স্পিরিট। দলে কার কেমন সম্ভাবনা তা আপনাকে জানতে হবে। '

গতকাল বৃহস্পতিবার প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে আর্সেনালের বিপক্ষে নাটকীয় লড়াইয়ে ৩-২ গোলে জয় পায় ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। ম্যাচ শেষে দলটির সঙ্গে ১৫ বছরের সম্পর্কের ইতি টানেন মাইকেল ক্যারিক। ম্যানইয়ে এক যুগের খেলোয়াড়ি জীবনে সবমিলিয়ে ৪৬৪ ম্যাচ খেলার পর তিনি যোগ দিয়েছিলেন ক্লাবটির কোচ স্টাফে। কাজ করেছেন তখনকার ম্যানইউ কোচ হোসে মরিনহোর সহকারী হিসেবে। ওই মৌসুমেই বিদায় নেন পর্তুগিজ কোচ।  

ওলে গানার সুলশারের অধীনেও কাজ করেছেন ক্যারিক। । সদ্য বরখাস্ত নরওয়েজিয়ান কোচের জায়গায় ভারপ্রাপ্ত হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন তিনি। নিজের এই সংক্ষিপ্ত মেয়াদেই ভালো সফলতা পেয়েছিলেন খেলোয়াড় হিসেবে পাঁচটি প্রিমিয়ার লিগের শিরোপাসহ চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জেতা সাবেক এই অলরেডস তারকা। তার অধীনে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ভিয়ারিয়ালের বিপক্ষে ২-০ গোলে জিতে নকআউট পর্বে পা রাখে ইউনাইটেড আর প্রিমিয়ার লিগে চেলসির সঙ্গে ১-১ ড্রয়ের পর আর্সেনালের বিপক্ষেও জয়।

অন্যদিকে রাংনিক ম্যানইউয়ের দায়িত্ব নেওয়ার আগে রাশিয়ান ক্লাব লোকোমোতিভ মস্কোর ক্রীড়া উন্নয়ন বিভাগের প্রধান ছিলেন। জার্মানিতে তার সবচেয়ে বেশি সাফল্য এসেছে। জার্মানির শীর্ষ পর্যায়ের ফুটবলে তাকে বলা হয় 'কোচদের কোচ'। প্রিমিয়ার লিগের আরও দুই জার্মান কোচ লিভারপুলের ইয়ুর্গেন ক্লপ ও চেলসির টমাস টুখেল, দুজনেই রাংনিকের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন।

জার্মানির স্টুটগার্ড, হ্যানোভার, হফেনহেইম, শালকে এবং আরবি লিপজিগের মতো ক্লাবের কোচের দায়িত্ব সামলেছেন রাংনিক। ২০১১ সালে শালকেকে জার্মান কাপের শিরোপা জেতানোর পর ২০১৯ সালে আরবি লিগজিগকে ফাইনালে নিয়ে যান তিনি। ২০১০-১১ মৌসুমে শালকেকে চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনালে নিয়ে যান তিনি, কিন্তু সেখানে দুই লেগ মিলিয়ে ৬-১ গোলে তারা হেরে যায় ইউনাইটেডের কাছে।  

রাংনিককে কিছুটা জোর করেই দায়িত্ব দিয়েছে ইউনাইটেড। কারণ তিনি নিজেই ব্যাখ্যা করেছেন। গত ২১ নভেম্বর সুলশার বরখাস্ত হন। এরপর গত সপ্তাহে তার সঙ্গে কথা হয় রাংনিকের। দুজনের মধ্যে ৯০ মিনিট আলাপচারিতাও হয়। পরে ক্যারিককেও থেকে যাওয়ার অনুরোধ করেন তিনি। কিন্তু সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসেননি ক্যারিক। পরে দায়িত্ব নেন রাংনিক। বর্তমান মেয়াদ শেষে আরও ৬ মাস এই ইউনাইটেডে থেকে যেতে পারেন, এমনটাই ইঙ্গিত দিয়েছেন তিনি। তবে তাকে সামলাতে হবে এক নড়বড়ে ম্যানইউকে। কারণ লিগ টেবিলে ১৪ ম্যাচে ৬ জয় ও ৩ ড্রয়ে ২১ পয়েন্ট নিয়ে এখন সাত নম্বরে আছে তারা।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৪০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৩, ২০২১
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa