ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৮ মে ২০২৪, ১৯ জিলকদ ১৪৪৫

ফুটবল

রাশিয়ায় হচ্ছে না চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনাল

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৪০ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২২
রাশিয়ায় হচ্ছে না চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনাল

ইউক্রেনের ওপর রাশিয়ার সর্বাত্মক সামরিক হামলার প্রভাব পড়লো ইউরোপের ফুটবলেও। এবারের চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনাল ম্যাচের ভেন্যু রাশিয়া থেকে সরিয়ে ফ্রান্সের প্যারিসে নেওয়া হয়েছে।

 

আজ শুক্রবার উয়েফার এক জরুরী বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

আগামী ২৮ মে রাশিয়ার সেন্ট পিটার্সবুর্গে ইউরোপীয় ক্লাব ফুটবলের সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ এই টুর্নামেন্টের ফাইনাল হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু আজ বৈঠক শেষে উয়েফা জানিয়ে দিয়েছে, সেন্ট পিটার্সবুর্গের গাজপ্রম অ্যারেনা থেকে ম্যাচটি সরিয়ে প্যারিসে নেওয়া হচ্ছে।

ম্যাচটি আয়োজনে সম্মত হওয়ায় উয়েফার পক্ষ থেকে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রঁর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করা হয়েছে।  

এর আগে গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ছয়টার কিছু আগে টেলিভিশন ভাষণে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ইউক্রেনে বিশেষ অভিযান চালানোর ঘোষণা দেন। ইউক্রেনে রুশ অভিযান শুরু হওয়ার পর দুই পক্ষের মধ্যেই হতাহতের খবর আসতে শুরু করে। এই পরিস্থিতিতে চ্যাম্পিয়নস লিগ ফাইনালের ভবিষ্যৎ অনিশ্চয়তার মুখে পড়ে।

যুদ্ধাবস্থার মধ্যে সেন্ট পিটার্সবুর্গে চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনাল হবে কিনা এই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে পৌঁছতে আজ শুক্রবার জরুরী বৈঠকে বসে উয়েফা। ইউরোপীয় পার্লামেন্টের চাওয়া ছিল, উয়েফা যেন সেন্ট পিটার্সবুর্গের গাজপ্রোম অ্যারেনা থেকে ফাইনালটি সরিয়ে অন্য কোথাও নিয়ে যায়। উয়েফার বৈঠকেও সেই সিদ্ধান্তই কার্যকর করা হলো।

চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোর খেলা চলছে এখন। সবগুলো দল এরই মধ্যে খেলে ফেলেছে প্রথম লেগও। এমন সময় দেখা দিয়েছে রাশিয়া-ইউক্রেন সংকট। বাংলাদেশ সময় শুক্রবার বিকেল ৪টা পর্যন্ত কয়েকশ মানুষ নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভও এরইমধ্যে আক্রান্ত হয়েছে। সেখান থেকে হাজার হাজার মানুষ নিরাপদ অবস্থানের খোঁজে ছুটছে।  

এদিকে ইউক্রেনে রাশিয়ার হামলার কারণে জরুরি বৈঠকে বসেছে ফিফাও। কারণ আগামী ২৪ মার্চ ঘরের মাঠে রাশিয়ার বিপক্ষে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের প্লে-অফের ম্যাচ খেলার কথা পোল্যান্ডের। আবার একই দিন ইউক্রেনকে আতিথ্য দেওয়ার কথা স্কটল্যান্ডের। তাছাড়া যুদ্ধ শুরুর কারণে ইউক্রেনের ঘরোয়া ফুটবল লিগও বন্ধ হয়ে গেছে। আশংকার ব্যাপার হচ্ছে, ইউক্রেন জাতীয় দলের অধিকাংশ খেলোয়াড় তাদের দেশের লিগেই খেলেন।  

রাশিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ খেলার কথা ছিল সুইডেনেরও। বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের প্লে-অফের ওই ম্যাচ দুই দলের জন্য কাতারের যাওয়ার ক্ষেত্রে খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু ম্যাচটি খেলার কোনো সম্ভাবনা নেই বলেই জানিয়েছেন সুইডিশ ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান কার্ল-এরিক নিলসন। দেশগুলো এরইমধ্যে রাশিয়ার মাটিতে না খেলার সিদ্ধান্ত জানিয়ে দিয়েছে। শুধু কি তাই, আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটিও রাশিয়ার বিরুদ্ধে 'অলিম্পিকের চেতনা' নষ্ট করার অভিযোগ এনেছে।  

বাংলাদেশ সময়: ১৬৪০  ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২২
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।