ঢাকা, মঙ্গলবার, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২১ মে ২০২৪, ১২ জিলকদ ১৪৪৫

ফুটবল

লিডসে শেষ হলো 'বিয়েলসা অধ্যায়' 

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬১৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২২
লিডসে শেষ হলো 'বিয়েলসা অধ্যায়' 

লিডসকে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে ফিরিয়ে ইতিহাস গড়েছিলেন মার্সেলো বিয়েলসা। যা তাকে এনে দিয়েছিল নায়কোচিত অবস্থান।

কিন্তু এবার মুদ্রার উল্টো পিঠও দেখলেন আর্জেন্টাইন কোচ। তার অধীনেই ফের দ্বিতীয় বিভাগে নেমে যাওয়ার পথে লিডস।  

পরিস্থিতি এতটাই খারাপ যে, গতকাল রাতে টটেনহ্যামের কাছে ৪-০ গোলে হেরে যাওয়ার পর লিডসের দায়িত্ব ছেড়ে দিয়েছেন ৬৬ বছর বয়সী আর্জেন্টাইন কোচ। তার জায়গায় আসছেন আরবি লিপজিগের সাবেক কোচ জেসি মার্শ। যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম 'দ্য সান' এমনটাই দাবি করেছে।  

এলান্ড রোডের ক্লাবটিতে ৪ বছর কাটিয়েছেন বিয়েলসা। তার অধীনে চ্যাম্পিয়নশিপ থেকে প্রিমিয়ার লিগে ফিরেছিল লিডস। কিন্তু চলতি মৌসুমে তার দল একের পর এক হারের পাশাপাশি গোল হজমেও ছিল অকৃপণ। সর্বশেষ টটেনহ্যামের বিপক্ষেও দেখা গেল সেই নজির। সবমিলিয়ে গত ৬ ম্যাচে তাদের অর্জন মাত্র ১ পয়েন্ট।  

২০১৮ সালে ইয়র্কশায়ারে পা রাখার পর থেকে লিডসের চেহারাই বদলে দিয়েছিলেন ৬ বছর আর্জেন্টিনা ও সাড়ে ৩ বছর চিলির দায়িত্বে থাকা বিয়েলসা। তার মেয়াদের প্রথম মৌসুমেই চ্যাম্পিয়নশিপের প্লে-অফে খেলে দলটি। কিন্তু ডার্বি কাউন্টির কাছে দুই লেগে হেরে যাওয়ায় দ্বিতীয় মৌসুমেও চ্যাম্পিয়নশিপেই থাকতে হয় তাদের। এরপর ২০১৯-২০ মৌসুমে সাফল্যের দেখা পায় লিডস। দ্বিতীয় স্থানে থাকা ওয়েস্ট ব্রমউইচ অ্যালবিওনের চেয়ে ১০ পয়েন্ট এগিয়ে থেকে লিগে পা রাখে তারা।  

গত মৌসুমেও লিগে নিজেদের অবস্থান ধরে রাখে বিয়েলসার দল। কিন্তু এবার ঠিক উল্টো অভিজ্ঞতা হয় তাদের। হারতে হারতে তারা নেমে যায় রেলিগেশন অঞ্চলের দিকে।

'দ্য সান' জানিয়েছে, লিডস ও বিয়েলসার আইনজীবীরা এখন দুই পক্ষ আলাদা হয়ে যাওয়ার চূড়ান্ত প্রক্রিয়া সম্পন্ন করছেন। বিয়েলসার বদলে যাকে ভাবা হচ্ছে, সেই মার্শ নিজে এই মৌসুমের শুরুর দিকে লিপজিগ কর্তৃক বরখাস্ত হয়েছিলেন। তার অধীনে জার্মান ক্লাবটি বুন্দেসলিগায় ৭ জয়, ৪ ড্র এবং ৬ হার দেখেছে।  

বাংলাদেশ সময়: ১৬১৮ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২২
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।