ঢাকা, বুধবার, ৮ চৈত্র ১৪২৯, ২২ মার্চ ২০২৩, ০০ রমজান ১৪৪৪

স্বাস্থ্য

নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থীকে হেনস্তা, হাসপাতালের কর্মচারী বহিষ্কার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯১৬ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৬, ২০২৩
নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থীকে হেনস্তা, হাসপাতালের কর্মচারী বহিষ্কার

বরিশাল: শের ই বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালের বহিঃবিভাগে চিকিৎসাসেবা নিতে গিয়ে বরিশাল নার্সিং কলেজের এক ছাত্রী আউট সোর্সিংয়ের কর্মচারীর কাছে হেনস্তার শিকার হয়েছেন।

এ ঘটনায় ওই কর্মচারী ইফাত সন্যামতকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছে হাসপাতাল প্রশাসন।

সোমবার (৬ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে হাসপাতালের জরুরি বিভাগের সামনে বিক্ষোভ করেন বরিশাল সরকারি নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থীরা।

ভুক্তভোগী বিএসসি নার্সিং কলেজের ডিপ্লোমা ইন মিড ওয়াইফারি দ্বিতীয় বর্ষের হেনস্তার শিকার ছাত্রী বলেন, আমি সকাল সাড়ে ১০টার দিকে হাসপাতালের বহিঃবিভাগে চিকিৎসকের কক্ষে ঢুকতে গেলে সেখানে দায়িত্বে থাকা হাসপাতালের ওই কর্মচারী আমাকে বাধা দেন। তিনি বলেন, ‘আমরা নাকি চিকিৎসকের কাছে ফ্রিতে ওষুধ নিতে এসেছি। চিকিৎসাসেবা নিতে নয়। তাই ভেতরে যেতে দেওয়া হবে না। ’ আমি চিকিৎসাসেবা নিতে আসার কথা বলে তার কথার প্রতিবাদ জানাই। এ সময় ওই ব্যক্তি জোর করে আমার পরিচয়পত্রের (আইডি) ছবি তুলে ফেসবুকে পোস্ট দেন। এরপর সেখান থেকে কলেজ ক্যাম্পাসে ফেরার পথে ওই ব্যক্তি আবারও আমাকে হাসপাতাল ক্যান্টিনের সামনে দাঁড়িয়ে অশালীন কথাবার্তা বলতে থাকেন।

এ খবর পেয়ে হাসপাতালের জরুরি বিভাগের সামনে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ শুরু করেন শিক্ষার্থীরা।

বিএসসি নার্সিংয়ের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী ফারহানা ঝুমুর ও ভুক্তভোগীর সহপাঠীরা বলেন, এ ঘটনা আমাদের যে শিক্ষার্থীর সঙ্গে ঘটেছে তিনি একজন ভদ্র মেয়ে। অসুস্থ হলেই আমরা হাসপাতালে যাই। হাসপাতালে গিয়ে কেউ শারীরিক হেনস্তার শিকার হবে সেটা কাম্য নয়।

এ বিষয়ে বরিশাল শের ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. এইচ এম সাইফুল ইসলাম বাংলানিউজকে বলেন, অভিযুক্ত ইফাতকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। পাশাপাশি এ ঘটনা তদন্তে তিন সদস্যদের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত শেষে অভিযোগ প্রমাণিত হলে অভিযুক্তকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৯১২ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৬, ২০২৩
এমএস/আরআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa